BREAKING NEWS

১০ আষাঢ়  ১৪২৮  শুক্রবার ২৫ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘সহযোগিতার কথা বলেও বঞ্চনা’, যশ মোকাবিলায় ‘শাহি’ বৈঠকের পর অভিযোগ মমতার

Published by: Sayani Sen |    Posted: May 24, 2021 4:09 pm|    Updated: May 24, 2021 6:15 pm

Mamata Banerjee slams Centre for not providing 'enough financial package' to tackle cyclone Yaas ।Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আরও একবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগে সরব মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার ঘূর্ণিঝড় ‘যশ’ (Cyclone Yaas) বাংলায় আছড়ে পড়ার আগেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বিমাতৃসুলভ আচরণের অভিযোগ করলেন তিনি। অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী জানান, ওড়িশা এবং অন্ধ্রের জন্য আগাম ৬০০ কোটি টাকা আর্থিক সাহায্যের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। তবে বাংলা পাবে মাত্র ৪০০ কোটি টাকা। কেন কম পরিমাণ আর্থিক সাহায্যের সিদ্ধান্ত, সেই প্রশ্ন তোলেন তিনি।  

আমফানের স্মৃতি উসকে দিয়ে বাংলায় ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘যশ’। আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী বাংলা, ওড়িশা (Odisha) এবং অন্ধ্র ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। তবে সবচেয়ে বেশি ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা ওড়িশার। তাই  ‘যশ’ মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ তিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন। যদিও প্রথমে এই বৈঠকে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের থাকার কথা ছিল না। মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওই বৈঠকে থাকার কথা ছিল। যদিও পরে সিদ্ধান্ত বদল করেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি নিজেই ভারচুয়াল ওই বৈঠকে যোগ দেন।

[আরও পড়ুন: পুলিশ হাসপাতাল বদলে গেল কোভিড চিকিৎসাকেন্দ্রে, ভারচুয়ালি উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী]

তবে বৈঠক শেষে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আরও একবার বঞ্চনার অভিযোগে সরব হন তিনি। তাঁর দাবি, ঘূর্ণিঝড় ‘যশ’ আছড়ে পড়ার আগেই ওড়িশা এবং অন্ধ্রকে ৬০০ কোটি টাকা আর্থিক সাহায্য দেওয়া হবে বলেই জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তবে বাংলার ক্ষেত্রে মাত্র ৪০০ কোটি টাকা। এত বড় রাজ্য হওয়া সত্ত্বেও কেন কম টাকা দেওয়া হল, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। কেন বাংলা ফের বৈষম্যের শিকার হল, সেই প্রশ্নের যদিও সদুত্তর পাননি মু্খ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তবে এ বিষয়ে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বিশেষ কিছু বলতে রাজি হননি। ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে রাজ্যের ঠিক কতটা ক্ষয়ক্ষতি হয়, তা খতিয়ে দেখেই কেন্দ্রের কাছে দাবি জানানো হবে বলেই সিদ্ধান্ত রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধানের। উল্লেখ্য, এর আগে ঘূর্ণিঝড় আমফানেও (Cyclone Amphan) ব্যাপক ক্ষতি হয়েছিল বাংলার। আকাশপথে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। ১ হাজার কোটি টাকা অনুদানও দিয়েছিলেন। কেন্দ্রীয় দল পরিদর্শনের পর প্রয়োজনমতো আর্থিক সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছিল কেন্দ্র। তবে সেই সময় অনুদান মেলেনি বলেই অভিযোগ উঠেছিল। এবার রাজ্যে ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়ার আগেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে উঠল বিমাতৃসুলভ ব্যবহারের অভিযোগ। 

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: নারদ মামলা: ফিরহাদ-সহ চার নেতা আরও দু’দিন গৃহবন্দি, পরবর্তী শুনানি বুধবার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement