Advertisement
Advertisement
এনআরএস হাসপাতাল

ধারাবাহিক শিশুমৃত্যুতে সুতোর মান নিয়ে প্রশ্ন, আপাতত SNCU বন্ধ করল এনআরএস

সদ্যোজাতদের জন্য বিশেষ ইউনিটকে জীবাণুমুক্ত করা হবে।

NRS authority closes SNCU temporarily for controversy

ফাইল ছবি

Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:March 1, 2020 7:12 pm
  • Updated:March 1, 2020 7:19 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিম্নমানের সুতো ব্যবহার করে সেলাইয়ের জের। চিকিৎসায় অবহেলার ফলে শিশুমৃত্যু নিয়ে টানাপোড়েন। ধারাবাহিক ঘটনায় লাগাতার সমালোচনার মুখে পড়ে নড়েচড়ে বসেছে সরকারি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। SNCU আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। আপাতত কয়েকদিন স্পেশ্যাল নিউবর্ন কেয়ার ইউনিট খালি করে, তাকে জীবাণুমুক্ত করা হবে। আপাদমস্তক পালটে ফেলা হবে ইউনিটটি। পরিকাঠামোগত পরিবর্তনও করা হতে পারে। সে ক’টি দিনের জন্য পেডিয়াট্রিক সার্জারি বিভাগে শিশুদের স্থানান্তরিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সূত্রের খবর, সেখানেই আপাতত চলবে তাদের দেখভাল, চিকিৎসা।

গত মাসের মাঝামাঝি সময়ে মালদার গাজোলের বাসিন্দা এক সদ্যোজাত শিশুকে মলদ্বারের সমস্যা নিয়ে ভরতি করানো হয়েছিল কলকাতার এনআরএস হাসপাতালে। সেখানে SNCU তে তার অপারেশন হওয়ার পর সেলাই করা হয়। সেলাইয়ের জন্য সুতোটি কিনে আনতে পরিবারের সদস্যদের বলা হয়েছিল, চিকিৎসকদের দাবি এমনই। কিন্তু সেলাইয়ের সুতো ছিঁড়ে যাওয়ায় ফের অস্ত্রোপচার হয়। পরেরদিন চিকিৎসকরা জানান যে শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এরপরই সুতোর মান নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘ক্রিমিনালের দল বিজেপি’, ‘গোলি মারো’ স্লোগানের জেরে তোপ সুজনের]

তার আগেও নিম্নমানের সুতো দিয়ে সেলাই করার জেরে যাদবপুরের এক শিশুর শরীরে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে বলে অভিযোগ তুলেছিলেন তাঁর অভিভাবকরা। ধীরে ধীরে এই সংক্রমণ বাড়তে থাকে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২৩ সদ্যোজাত শিশুর শরীরে সংক্রমণ দেখা গিয়েছে। তবে এনআরএস কর্তৃপক্ষে সুতোর মান নিয়ে মুখ খোলেনি। পরবর্তী সময়ে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সস্তার সুতো দিয়ে কাজ চালানো হয়েছিল। সেই সুতো সরবরাহকারী তিনটি সংস্থার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয় বলে খবর।

Advertisement

সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসায় এমন গাফিলতির অভিযোগে শুরু হওয়া সমালোচনাকে এবার গুরুত্ব দিয়ে দেখল এনআরএস কর্তৃপক্ষ। SNCU-এর পরিস্থিতি কেমন, যে অভিযোগ উঠেছে, তা কতটা সত্যি, সেসব খতিয়ে দেখার জন্য আপাতত ইউনিটটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। রবিবার বিকেল থেকেই বন্ধ সরকারি হাসপাতালটির এই বিভাগ বন্ধ। যে ক’জন শিশু এখানে চিকিৎসাধীন, তাদের পেডিয়াট্রিক সার্জারি বিভাগে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। SNCU কে জীবাণুমুক্ত করা হবে। সুধুই সুতোর কারণে নাকি অন্য কোথাও থেকে সদ্যোজাত শিশুদের শরীরে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে, সে বিষয়টি বুঝতে চান স্বাস্থ্যকর্তারা। সেই কাজ শেষ হলে, ফের খুলে দেওয়া হবে SNCU. তবে তা কবে, সেই উত্তর জানা নেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষেরও।

[আরও পড়ুন: অমিত শাহের সভায় পিস্তল নিয়ে ঢোকার চেষ্টা বিজেপি কর্মীর, আটকাল পুলিশ]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ