BREAKING NEWS

২৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

আগামী দু’মাসে রাজ্যে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা শিখরে পৌঁছবে, আতঙ্কিত হবেন না: মমতা

Published by: Sulaya Singha |    Posted: July 15, 2020 4:59 pm|    Updated: July 15, 2020 5:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশজুড়ে প্রতিদিন বাড়তে থাকা সংক্রমিতের সংখ্যা সাধারণ মানুষের কপালের ভাঁজ গভীর করছে। ব্যতিক্রম নয় বাংলাও। রোজই লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। নতুন করে লকডাউনের পথে হেঁটেও যেন বাগে আনা যাচ্ছে না মারণ করোনা ভাইরাসকে (Coronavirus)। তবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন, এই পরিসংখ্যান দেখে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। কারণ করোনা টেস্টের সংখ্যা বাড়লে পজিটিভ কেসও বাড়বে।

বুধবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আগামী কয়েকদিন সংক্রমিতের সংখ্যাটা বাড়বে। আগামী দু’মাসে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা শিখরে পৌঁছে যাবে। কিন্তু এতে আতঙ্কিত হবেন না। কারণ দেখুন, আগের তুলনায় এখন করোনা টেস্টের সংখ্যাও অনেক বেড়েছে। আগামিদিনে আরও বাড়ানো হবে। আমরা ট্রেসিং, ট্র্যাকিং আর টেস্টিংয়ের উপর বেশি জোর দিচ্ছি। তবেই তো রোগীকে চিহ্নিত করে তার চিকিৎসা করা যাবে।” তাঁর মুখ্যমন্ত্রীর মতে, শুধু রাজ্যের মোট করোনা আক্রান্তের বাড়তে থাকা সংখ্যা দেখে শিউরে ওঠার কোনও কারণ নেই। সংখ্যা বাড়বে নমুনা পরীক্ষা বাড়বে বলেই।

[আরও পড়ুন: ৯৯ শতাংশ ক্ষতিগ্রস্ত আমফানের টাকা পেয়েছেন, তাও কেউ কেউ ডার্টি পলিটিক্স করছে: মুখ্যমন্ত্রী]

এর পাশাপাশি, মুখ্যমন্ত্রী আরও একবার জনসাধারণকে অনুরোধ জানিয়েছেন, এই সময়টায় বেশি করে সমস্ত নিয়মবিধি মেনে চলার। তাঁর কথায়, অনেক সময় বাজার কিংবা অফিস থেকে ভাইরাস বয়ে নিয়ে আসছেন অনেকে। তাই একটু সতর্ক থাকা জরুরি। খেয়াল রাখতে হবে ভাইরাস যেন ছড়িয়ে না পড়ে। একই সঙ্গে মনে করিয়ে দেন, করোনা নিয়ে কোনও ধন্দ বা প্রশ্ন থাকলে এবার টেলিমেডিসিন অ্যাপের মাধ্যমেই সব জেনে নেওয়া যাবে। উপসর্গহীন রোগীদের হাসপাতালে ভরতি হতে হবে কি না, তাও বলে দেবে এই অ্যাপ। আর যাঁদের হোম আইসোলেশনে থাকার সমস্যা, তাঁদের জন্য সেফ হোমের ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার।

এদিনই কোভিড ‘ফ্রন্টলাইনার’দের জন্য বড় ঘোষণা করেন মমতা (Mamata Banerjee)। জানিয়ে দেন, চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশকর্মী-সহ যাঁরা করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রয়াত হয়েছেন, তাঁদের পরিবারের একজন সদস্যকে চাকরি দেবে সরকার। সেই সঙ্গে ১০ লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্যও দেওয়া হবে। পাশাপাশি করোনা যোদ্ধাদের সম্মান দিতে মেডেল, ব্যাজ ও সার্টিফিকেট দেওয়ার কথাও জানান মুখ্যমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন: NRS হাসপাতালেও খুলছে কোভিড ওয়ার্ড, ৭ দিনের মধ্যেই শুরু হবে রোগী ভরতির প্রক্রিয়া]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement