BREAKING NEWS

১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  বুধবার ৫ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অসুস্থ পার্থ চট্টোপাধ্যায় ভরতি SSKM-এ, ইডির হেফাজতে থাকাকালীন চলবে চিকিৎসা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 23, 2022 9:21 pm|    Updated: July 24, 2022 9:36 am

Partha Chatterjee admitted to the Cardiaology department, SSKM | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হৃদযন্ত্রের সমস্যা, রয়েছে থাইরয়েড, সুগার, পায়ের পেশিতে যন্ত্রণা। একাধিক শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে অবশেষে এসএসকেএমের (SSKM) কার্ডিওলজি বিভাগের ICCU-তে ভরতি হলেন রাজ্যের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)। এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় ইডির হাতে এদিন সকালেই গ্রেপ্তার হয়েছেন তিনি। ব্যাঙ্কশাল আদালতে পেশ করে ২ দিনের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু এদিন এজলাসেই পার্থবাবু অসুস্থ বোধ করায় বিচারক তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করানোর নির্দেশ দেন। সেই নির্দেশ মেনেই তাঁকে হুইলচেয়ারে করে নিয়ে এসএসকেএমে যাওয়া হয়। কার্ডিওলজি বিভাগের ১৮ নং বেডে ভরতি হন তিনি। তাঁর চিকিৎসায় তৈরি হবে মেডিক্যাল বোর্ড। যদিও সূত্রের খবর, নিরাপত্তার স্বার্থে রাতের দিকে তাঁকে ICCU থেকে কেবিনে দেওয়া হয়েছে। 

বছর সত্তরের পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থা এমনিতেই খুব একটা ভাল নয়। একাধিক ওষুধের নির্ভরশীল তিনি। শুক্রবার সকাল থেকে তাঁর নাকতলার বাড়িতে কার্যত ঘাঁটি গেড়ে বসেছিলেন ইডি (ED)  আধিকারিকরা। টানা প্রায় ২৭ ঘণ্টা ধরে এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তার মাঝে পার্থবাবু অসুস্থ বোধ করলে এসএসকেএম থেকে চিকিৎসকদের ডেকে তাঁর চেক আপ করান কেন্দ্রীয় তদন্তকারীরা। তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রীকে শনিবার সকালে গ্রেপ্তার করে ইডি। প্রথমেই তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় জোকার ইএসআই (ESI)হাসপাতালে। সেখানে শারীরিক পরীক্ষার পর আনা হয় ব্যাঙ্কশাল কোর্টে। তারপর থেকে ফের অসুস্থ বোধ করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তাঁকে কোর্ট লকআপে রেখেই শুনানি চলে। বিচারককে তাঁর অসুস্থতার কথা জানান আইনজীবী। বিচারক ইডি হেফাজতের নির্দেশের দেওয়ার পর চিকিৎসার ব্যবস্থা করার কথা বলেন।

[আরও পড়ুন: করোনার মতোই ছোঁয়াচে মাঙ্কিপক্স! ফের স্বাস্থ্যক্ষেত্রে জরুরি অবস্থা জারি করল WHO]

সেইমতো প্রথমে তাঁকে এসএসকেএমে নিয়ে যাওয়ার কথা হয়। পরে শোনা যায়, এসএসকএম নয়, আলিপুরের কমান্ড হাসপাতাল কিংবা জোকার ইএসআই-তে তাঁর চিকিৎসা হবে। এমনই একাধিক সম্ভাবনার মাঝে দেখা যায়, ব্যাঙ্কশাল আদালত থেকে পার্থবাবুকে নিয়ে গাড়ি এসএসকেএমের পথেই রওনা দিয়েছে। সেখানে কিছু পরীক্ষার পর বেরিয়ে যান মন্ত্রী। ফের গাড়ি করে যান হাসপাতালের অন্য ক্যাম্পাসে – কার্ডিওলজি বিভাগে।  সেখানে ICCU-তে ১৮ নং বেডে তাঁকে ভরতি করা হয়। মেডিক্যাল বোর্ড তৈরি হবে পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়ের চিকিৎসার জন্য। চিকিৎসকরা বেশ কয়েকটি পরীক্ষা করে তাঁর শারীরিক পরিস্থিতি বোঝার চেষ্টা করছেন। তবে প্রাথমিক অনুমান, মানসিক চাপেই বেশি বিপর্যস্ত বছর সত্তরের পার্থবাবু।

[আরও পড়ুন: বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে লাগাতার সহবাস, যুবতী অন্তঃসত্ত্বা হতেই বেঁকে বসলেন যুবক! তারপর…]

এদিকে, হাসপাতাল সূত্রে খবর, উডবার্ন ওয়ার্ডেও মন্ত্রীর জন্য কেবিন প্রস্তুত রাখা হয়েছে। তাঁর হৃদযন্ত্রের সমস্যা কমলে, কার্ডিওলজি বিভাগ থেকে ছাড়া পেলেন উডবার্নে স্থানান্তরিত করা হতে পারে। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে