BREAKING NEWS

১০  আশ্বিন  ১৪২৯  বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিপুল সংখ্যক শিক্ষক নিয়োগের পথে রাজ্য, ঘোষণা চলতি সপ্তাহেই

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 14, 2022 2:05 pm|    Updated: August 14, 2022 2:05 pm

Recruitment of school teachers in Bengal to be announced in this week | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

স্টাফ রিপোর্টার: নিয়োগ দুর্নীতির (SSC Scam) তদন্তের মাঝেই ফের নয়া শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করে ইতিবাচক বার্তা দিতে চাইছে রাজ্য সরকার। প্রায় আড়াই হাজার প্রধান শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারির পাশাপাশি নবম-দশম ও একাদশ-দ্বাদশের বিধি প্রায় প্রস্তুত করে ফেলেছে এসএসসি। আগামী ১৮ আগস্ট, বৃহস্পতিবার রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ নিয়ে সবুজ সংকেত দেওয়ার সম্ভাবনা।

এসএসসি সূত্রে খবর, মুখ্যমন্ত্রীর অনুমতি পেলেই সেপ্টেম্বর মাসের শুরুতেই প্রধান শিক্ষকের শূন্যপদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দেবে কমিশন। সূত্রের দাবি প্রধান শিক্ষক নিয়োগের বিধিতে ইতিমধ্যেই সম্মতি দিয়েছে রাজ্যের আইনদপ্তর। নিয়োগের জন্য অর্থদপ্তরের সম্মতিও পেয়েছে স্কুল শিক্ষাদপ্তর। বৃহস্পতিবারের রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে তা অনুমোদন হয়ে গেলেই রাজ্যে স্কুলগুলিতে প্রধান শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দিয়ে দেবে স্কুল সার্ভিস কমিশন (School Service Commission)।

[আরও পড়ুন: বিনামূল্যে তাজমহল দর্শনের সুযোগ পেয়ে হাজার হাজার মানুষের ভিড়, সামাল দিতে লাঠিচার্জ পুলিশের]

অন্যদিকে, হাই কোর্টে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী নবম-দশম ও একাদশ-দ্বাদশ মিলিয়ে প্রায় কুড়ি হাজার শিক্ষকের শূন্যপদ রয়েছে। সেই পদগুলিতে নিয়োগ নিয়ে নয়া বিধি প্রায় চূড়ান্ত করে ফেলেছে শিক্ষাদপ্তর। আর এই নয়া বিধি আইনদপ্তরের অনুমোদন পেলেই তা দ্রুত পাঠানো হবে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে। স্বভাবতই আগামী সপ্তাহে প্রধান শিক্ষকের শূন্যপদের সিদ্ধান্ত হলে বিজ্ঞপ্তি জারির পাশাপাশি শীঘ্রই নবম-দশম ও একাদশ-দ্বাদশেও নিয়োগ প্রক্রিয়ার পথে হাঁটবে রাজ্য সরকার।

রাজ্যের স্কুল শিক্ষাদপ্তরের তরফে ইতিমধ্যে হাই কোর্টে জানানো হয়েছে, রাজ্য প্রায় আড়াই হাজার প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। সেই শূন্যপদ গুলিতেই নিয়োগের জন্য তৎপর হয়েছে রাজ্য। অন্যদিকে স্কুলভিত্তিক চূড়ান্ত শূন্যপদের তালিকা শীঘ্রই মধ্যশিক্ষা পর্ষদ তৈরি করে তা এসএসসিতে পাঠিয়ে দেবে বলেই সূত্রের খবর। তবে প্রাথমিকভাবে নিয়োগের বিধিতে রাজ্য মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিয়ে দিলেই বিজ্ঞপ্তি জারির প্রক্রিয়া শুরু করে দেবে কমিশন।

এদিন কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে বেশ কিছু রদবদল আনা হচ্ছে নিয়মে। মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষা হবে । এর মধ্যে ৯০ নম্বর হবে ওএমআর শিটে, ১০ নম্বরের হবে ইন্টারভিউ। যে লিখিত পরীক্ষা হবে তার পুরোটাই হবে ওএমআর শিটে। তবে এবার কমিশন অনেকটাই ‘পরীক্ষার্থী বান্ধব’ হতে চাইছে। বস্তুত সেই কারণেই প্রশ্নপত্রের প্যাটার্ন কী হবে তা মন্ত্রিসভার অনুমোদন পেলেই বিজ্ঞপ্তি জারির পর পরীক্ষার্থীদের সুবিধার্থে ওয়েবসাইটে জানিয়ে দেওয়া হবে। লিখিত পরীক্ষার পাশাপাশি ইন্টারভিউ-এর নিয়মেও বেশ কিছু রদবদল আনা হচ্ছে। এবার নয়া নিয়োগে লিখিত ও ইন্টারভিউ শেষে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের কাউন্সেলিংয়ের নিয়মেও বেশ কিছু পরিবর্তন আনা হচ্ছে বলে স্কুল সার্ভিস কমিশন সূত্রে দাবি।

[আরও পড়ুন: ৫ হাজার টাকা থেকে ৪৩ হাজার কোটি! শেয়ার বাজারে ঝুনঝুনওয়ালার উড়ান যেন রূপকথা]

প্রধান শিক্ষক নিয়োগের যাতে নতুন কোনও জটিলতা না সৃষ্টি হয় তার জন্য এসএসসি কর্তাদের সঙ্গে একাধিক বৈঠক করেছে স্কুল শিক্ষাদপ্তর। শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুও এসএসসি চেয়ারম্যান ও শিক্ষাদপ্তরের শীর্ষ অফিসারদের সঙ্গে নিয়োগ বিধি নিয়ে আলোচনা শেষে রাজ্যের আইন দপ্তরের মতামত নেন। ১৮ আগস্ট মন্ত্রিসভার অনুমতি পেলে প্রধান শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করার প্রস্তুতিও প্রায় সম্পূর্ণ। শিক্ষামহলের মতে, প্রধান শিক্ষক ও নবম-দশম ও একাদশ-দ্বাদশ মিলিয়ে তিনটি পদে প্রায় ২৩ হাজার নয়া নিয়োগকে হাতিয়ার করে বাংলার বেকারদের মধ্যে ইতিবাচক বার্তা দিতে চায় রাজ্য সরকার।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে