১ শ্রাবণ  ১৪২৬  বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অর্ণব আইচ: শহরের রাস্তায় টহলদারি সময়ের দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল এক পুলিশকর্মীর। আহত এক সিভিক ভলান্টিয়ার। বৃহস্পতিবার সাতসকালে দুর্ঘটনা ঘটল দমদম রোডে।

[আরও পড়ুন: দিনে মেকানিক-রাতে বাইক চোর, সিসিটিভি ফুটেজ দেখে পাকড়াও দুই দুষ্কৃতী]

ঘড়িতে তখন ভোর পাঁচটা। দমদম রোডে বাইকে চেপে টহল দিচ্ছিলেন কাশীপুর থানার এএসআই বীরেশ্বরচন্দ্র রায় ও সিভিক ভলান্টিয়ার শুভজিৎ চন্দ্র। বাইক চালাচ্ছিলেন শুভজিৎ, পিছনে বসেছিলেন বীরেশ্বর। পুলিশ জানিয়েছে, ১/১/৩১ দমদম রোডের কাডে আচমকাই নিয়ন্ত্রণ হারান একটি পণ্যবাহী লরির চালক। লরিটি সজোরে ধাক্কা মারে পুলিশের টহলদারি বাইকে। দুর্ঘটনায় মাথায় গুরুতর চোট পান কাশীপুর থানার এএসআই বীরেশ্বরচন্দ্র রায়। তড়িঘড়ি তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় আরজি কর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। হাসপাতালে কাশীপুর থানার ওই এএসআইকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। পায়ে চোট লেগেছে বাইকের চালক সিভিক ভলান্টিয়ার শুভজিতেরও। তবে তাঁর আঘাত গুরুতর নয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর ওই সিভিক ভলান্টিয়ারকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

কিন্তু কীভাবে দুর্ঘটনা ঘটল? তদন্তে নেমেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার করা হয়েছে ঘাতক লরির চালককে। ইদানিং শহরের বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালানোর প্রবণতা বাড়ছে। ঘটছে দুর্ঘটনাও। পরিস্থিতি মোকাবিলায় শহরের কুড়িটি রাস্তাকে দুর্ঘটনাপ্রবণ বলে ঘোষণা করেছে ট্রাফিক পুলিশ। সেই তালিকার শীর্ষে ইএম বাইপাস। বাইপাসের সঙ্গে দুর্ঘটনায় পাল্লা দিচ্ছে ডায়মন্ড হারবার রোড ও বাসন্তী হাইওয়ে-ও।

[আরও পড়ুন: সরকারি কাজ চলাকালীন দেওয়াল চাপা পড়ে শিশুর মৃত্যু, রণক্ষেত্র নোনাডাঙা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং