১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

অর্ণব আইচ: চিন ও তাইল্যান্ড থেকে কলকাতায় বেআইনিভাবে ‘সেক্স টয়’ পাচার হচ্ছে। বেহালার পর্ণশ্রীর একটি গুদাম থেকে শুল্ক বিভাগের হাতে উদ্ধার হয়েছে বিপুল সংখ্যক ‘সেক্স টয়’। বেআইনি এই পাচার চক্রের সঙ্গে যুক্ত থাকায় পুলিশের তরফে ইতিমধ্যেই আটক করা হয়েছে তিন জনকে। 

[আরও পড়ুন: ‘যাদবপুর কাণ্ডের দায় বাবুলের’, অভিযোগ তুলে আন্দোলনের ডাক SFI-এর ]

শুল্ক দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, পর্ণশ্রীর নিবেদিতা সরণির একটি বেসরকারি সংস্থা বিদেশ থেকে বিভিন্ন ধরনের ‘সেক্স টয়’ আমদানি করে সারা দেশের একাধিক শহরে বিক্রি করে। গোপন সূত্রে এই খবর পেয়েই বৃহস্পতিবার শুল্ক দপ্তরের আধিকারিকরা ওই অফিস এবং ওই অফিস লাগোয়া গুদামে হানা দেন। গুদামে ভরতি ছিল যৌনতৃপ্তি দায়ক সমস্ত বিদেশি সামগ্রী। এরপরই শুল্ক দপ্তরের আধিকারিকরা ওই সংস্থার মালিকের কাছ থেকে নথিপত্র দেখতে চান। কিন্তু যথাযথ নথিপত্র দেখাতে পারেননি সংস্থার মালিক ও তাঁর দুই সঙ্গী। 

ধৃতদের জেরা করেই শুল্ক দপ্তর জানতে পারে যে, বেআইনি ওই সংস্থাটি মূলত অনলাইনে অর্ডার দিয়েই বেআইনিভাবে কলকাতায় নিয়ে আসত লক্ষ লক্ষ টাকার সামগ্রী। তবে সব থেকে বেশি সংখ্যক সামগ্রী তারা নিয়ে আসত চিন থেকে। এছাড়া কিছু সামগ্রী আবার আসে তাইল্যান্ড থেকেও। পর্ণশ্রীর একটি গুদাম থেকে আটক করা হয়েছে কয়েক লক্ষ টাকার জিনিস। সংস্থার তিন কর্ণধারকে আপাতত জেরা করা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে শুল্ক দপ্তরের তরফে।

[আরও পড়ুন: রাজীবের খোঁজে হন্যে সিবিআই, যেকোনও মুহূর্তে গ্রেপ্তারিতে লাগবে না পরোয়ানা ]

বর্তমানে যৌন চাহিদা মেটাতে মানুষ কত কি-ই না করে থাকে, সেক্স টয় তাদের মধ্যে অন্যতম। চিন, জাপান এবং আমেরিকায় বিশ্বের সবচাইতে বেশি ‘সেক্স টয়’ প্রস্তুতের পাশাপাশি ব্যবহারও সর্বাধিক। আর এই চাহিদার জোগান দিতেই অনলাইন বিভিন্ন সাইটের মাধ্যমে ক্রমশ ভারতের বাজারেও বেআইনিভাবে দেদার বিকোচ্ছে ‘সেক্স টয়’।  

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং