১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৬ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

টেট কাণ্ডে CBI তদন্তের গতিতে ক্ষুব্ধ বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়, সিটে বড়সড় রদবদলের নির্দেশ

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: November 16, 2022 5:00 pm|    Updated: November 16, 2022 5:06 pm

TET scam: Justice Abhijeet Ganguly changes SIT member | Sangbad Pratidin

রাহুল রায়: টেট কেলেঙ্কারিতে সিবিআই তদন্তের গতি নিয়ে আগেই অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন। এবার তদন্তের দায়িত্বে থাকা সিটে বড়সড় রদবদলের নির্দেশ দিলেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Justice Abhijit Ganguly)। সিবিআই আগে যে ৬ সদস্যের সিট গঠন করেছিল, সেই সিট থেকে দু’জনকে সরিয়ে নতুন চারজনকে নিয়োগের নির্দেশ দিলেন কলকাতা হাই কোর্টের (Calcutta High Court) বিচারপতি। নতুন এই সিটের তদন্তকারী আধিকারিক হিসাবে দায়িত্ব নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সিবিআইয়ের (CBI) প্রাক্তন ডিআইজি অখিলেশ সিংকে।

আসলে, বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় গ্রুপ সি এবং গ্রুপ ডি মামলায় সিবিআই তদন্তের অগ্রগতিতে ক্ষুব্ধ। আগেও একাধিকবার তদন্তের গতি নিয়ে ক্ষোভপ্রকাশ করেছেন তিনি। কিন্তু তারপরও সিবিআই তদন্তের গতি আশানুরূপ হয়নি। যা নিয়ে এদিন ফের সরব হন অভিজিৎবাবু। বিচারপতির পর্যবেক্ষণ, “সিবিআই খুব আস্তে আস্তে কাজ করছে। কেন করছেন সেটা তারাই জানেন। গ্রুপ-ডি র ৫৪২ জনের মধ্যে মাত্র ১৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। এদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে আরও তথ্য পাওয়া যাবে।”

[আরও পড়ুন: ‘ঘর তৈরির টাকাও আটকে দিয়েছে কেন্দ্র’, ফের মোদি সরকারকে তোপ মমতার]

এদিন সরাসরি সিবিআইয়ের আইনজীবীর কাছে তিনি জানতে চান, গ্রুপ- ডি’র নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গত ১৮ ই মে, যে ৫৪২ জন চাকরিপ্রাপককে জিজ্ঞাসাবাদ করার নির্দেশ তিনি দিয়েছিলেন তাদের মধ্যে কতজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা? তাতে সিবিআই জানায়, এখনও পর্যন্ত মাত্র ১৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পেরেছেন তারা। অর্থাৎ মোট অভিযুক্ত চাকরিপ্রাপকের ৫ শতাংশকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা সম্ভব হয়নি। সিবিআইয়ের এই পরিসংখ্যান দেখেই ক্ষুব্ধ বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় সিটে রদবদলের নির্দেশ দেন। বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আইনজীবীকে সিটের জন্য চারজন আধিকারিকের নাম প্রস্তাব করার নির্দেশ দেন। সিবিআইয়ের তরফে যে চারজন আধিকারিকের নাম দেওয়া হয়, তাঁরা হলেন অংশুমান সাহা (ডেপুটি সুপার), বিশ্বনাথ চক্রবর্তী(ইন্সপেক্টর), প্রদীপ ত্রিপাঠী(ইন্সপেক্টর) এবং ওয়াসিম আক্রম খান (ইন্সপেক্টর)। এই চারজনকেই সিটে যুক্ত করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: দলিল উদ্ধারে দিলীপকে গ্রেপ্তারির দাবি অভিষেকের, ‘CID তদন্ত হোক’, পালটা চ্যালেঞ্জ দিলীপের]

তবে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় একজন ডিআইজি পদমর্যাদার আধিকারিককে সিটের শীর্ষপদে বসাতে চাইছিলেন। এই মুহূর্তে সিবিআইয়ের দুর্নীতি দমন শাখার কলকাতা দপ্তরে কোনও ডিআইজি না থাকায় তিনি নির্দেশ দেন, সিবিআইয়ের প্রাক্তন ডিআইজি অখিলেশ প্রসাদ সিংকে সিটের দায়িত্ব নিতে হবে। তিনি বর্তমানে যেখানে আছেন সেখান থেকে তাকে এখানে নিয়ে আসতে হবে। সাতদিনের মধ্যে তিনি এই মামলার তদন্তের দায়িত্ব নেবেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে