BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থীদের সঙ্গে পুলিশের ধস্তাধস্তি, রণক্ষেত্র কালীঘাট

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 16, 2022 1:58 pm|    Updated: November 16, 2022 5:08 pm

Upper Primary aspirants showcased protest at Kalighat metro station । Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চাকরিপ্রার্থীদের আন্দোলনে ফের উত্তপ্ত কলকাতার রাজপথ। কালীঘাট মেট্রো স্টেশন সংলগ্ন রাস্তায় ব্যাপক বিক্ষোভ আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থীদের। পুলিশ ও আন্দোলনকারীদের মধ্যে চলে ধস্তাধস্তি। চ্যাংদোলা করে রাস্তা থেকে সরিয়ে প্রিজন ভ্যানে তোলা হয় বিক্ষোভকারীদের। তারপরই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

বুধবার কালীঘাট মেট্রো স্টেশনের (Kalighat Metro Station) এক নম্বর গেটে আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থীদের জমায়েতের কথা ছিল। তবে চাকরিপ্রার্থীরা আগেভাগেই খবর পেয়ে যান, কড়া নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে ওই এলাকা। চাকরিপ্রার্থীরা মেট্রো স্টেশনের অন্য গেটে জড়ো হতে থাকেন। রাস্তায় বসে পড়েন চাকরিপ্রার্থীরা। খবর পেয়ে পুলিশও সেখানে পৌঁছয়। বিক্ষোভকারীদের সরে যেতে বলা হয়। তাতেই পুলিশ ও চাকরিপ্রার্থীরা হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। শুরু হয় তুমুল ধস্তাধস্তি। পরিস্থিতি সামাল দিতে চ্যাংদোলা করে বিক্ষোভকারীদের প্রিজন ভ্যানে তোলা হয়।

Kalighat Agitation

এরপর আরও একদল বিক্ষোভকারী ওই একই জায়গায় পৌঁছন। আবারও শুরু হয় আন্দোলন। পরে তাঁদেরও সরিয়ে দেওয়া হয়। চাকরিপ্রার্থীদের দাবি, তাঁদের বেশ কয়েকজন জখম হয়েছেন। দ্রুত নিয়োগের দাবিতে সরব আন্দোলনকারীরা। কেন তাঁদের ৮ বছর নষ্ট করা হল, সেই প্রশ্নও করেন আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থীরা।

[আরও পড়ুন: ‘ঘর তৈরির টাকাও আটকে দিয়েছে কেন্দ্র’, ফের মোদি সরকারকে তোপ মমতার]

উল্লেখ্য, সপ্তাহখানেক আগে চাকরিপ্রার্থীদের আন্দোলনে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে কলকাতার রাজপথ। ক্যামাক স্ট্রিটে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের অফিসের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন চাকরিপ্রার্থীরা। প্রিজন ভ্যানের চাকার সামনে শুয়ে পড়েন আন্দোলনকারীরা। পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয়। এরপর জোর করে প্রিজন ভ্যানে তোলা হয় আন্দোলনকারীদের। অরুণিমা পাল নামে এক বিক্ষোভকারীকে কামড়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। কলকাতা পুলিশের লেডি কনস্টেবল ইভা থাপার বিরুদ্ধে ওঠে অভিযোগের আঙুল। তা নিয়ে রীতিমতো শোরগোল শুরু হয়।

জখম হওয়ার পরেও অরুণিমা পালের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করে পুলিশ। তদন্তকারীদের কার্যত ভর্ৎসনা করে আদালত তাদের জামিন দেয়। ঘটনার প্রায় দু’দিন পর ওই পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেয় লালবাজার। ডিসি সাউথ (২) বুদ্ধদেব মুখোপাধ্যায়ের তত্ত্বাবধানে শুরু হয় তদন্ত। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই চাকরিপ্রার্থীদের আন্দোলনে ফের উত্তপ্ত তিলোত্তমা।

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: দলিল উদ্ধারে দিলীপকে গ্রেপ্তারির দাবি অভিষেকের, ‘CID তদন্ত হোক’, পালটা চ্যালেঞ্জ দিলীপের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে