BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Sadhan Pandey Death: দীর্ঘদিনের লড়াইয়ে হার, প্রয়াত রাজ্যের মন্ত্রী সাধন পাণ্ডে, টুইটে শোকপ্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: February 20, 2022 11:44 am|    Updated: February 22, 2022 4:26 pm

WB Minister Sadhan Pandey died today morning, CM Mamata Banerjee tweets to convey the news

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পরও জীবনের পথে ফেরা হল না। রবিবার সকালে মুম্বইয়ের হাসপাতালে প্রয়াত রাজ্যের মন্ত্রী সাধন পাণ্ডে (Sadhan Pandey)। সকালে দুঃসংবাদ পাওয়ার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee) টুইটে শোকপ্রকাশ করেন। সম্প্রতি বেশ কয়েকদিন ধরেই সাধন পাণ্ডের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। চিন্তিত হয়ে পড়েছিলেন চিকিৎসকরাও। মেয়ে শ্রেয়া শনিবারই সোশ্যাল মিডিয়ায় বাবাকে নিয়ে নিজের উদ্বেগের কথা প্রকাশ করেছিলেন। শেষমেশ রবিবার সকালে হাসপাতালেই জীবনাবসান হয় তাঁর। বয়স হয়েছিল ৭১ বছর।

মোট ৯ বারের বিধায়ক সাধন পাণ্ডে। প্রথমে তিনি কংগ্রেসের (Congress) হয়ে নির্বাচনী লড়াইয়ে অংশ নিয়ে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হন। তখন তাঁর কেন্দ্র ছিল বড়তলা। ৬ বার এখান থেকেই জিতেছেন। পরবর্তীতে তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লড়াই দেখে উদ্বুদ্ধ হয়ে তৃণমূলে (TMC) যোগ দেন। তৃণমূল প্রতিষ্ঠার সময় থেকেই তিনি মমতার পাশে থেকে লড়াই করেছেন।  মানিকতলা বিধানসভা কেন্দ্র থেকে পরপর তিনবার ভোটে জিতে হ্যাটট্রিকের রেকর্ড হয়েছে তাঁর। দীর্ঘ রাজনৈতিক অভিজ্ঞতার কথা মাথায় রেখে প্রতিবারই তাঁকে ক্রেতা-সুরক্ষা দপ্তরের দায়িত্ব দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সাধন পাণ্ডের নেতৃত্বেই ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তরের কাজের প্রশংসা ছড়িয়ে পড়েছিল রাজ্যজুড়ে। খুব সাফল্য়ের সঙ্গেই এই কাজ সামলে জনপরিষেবাকে আরও উন্নত করেছিলেন। 

[আরও পড়ুন: আন্তর্জাতিক মাদকপাচার চক্রের পর্দাফাঁস, আমেরিকা থেকে কুরিয়ারে গাঁজা পাচারে ধৃত ২]

তবে ২০২১-এর বিধানসভা ভোটে অসুস্থ শরীরে নির্বাচনে অংশ নিয়ে জেতার পর তাঁকে মন্ত্রিসভায় রাখলেও কোনও দায়িত্ব দেননি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর অধীনে থাকা ক্রেতা-সুরক্ষা দপ্তরটি প্রথমে শশী পাঁজা ও পরে মানস ভুঁইঞাকে দেওয়া হয়। ফলে দপ্তরহীন মন্ত্রীই ছিলেন সাধন পাণ্ডে। তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় মুম্বইয়ের হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছিল। নিয়মিত তাঁর খোঁজখবর নিতেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন দলের বর্ষীয়ান সহযোদ্ধার প্রয়াণের খবর পেয়ে শোকার্ত হয়ে পড়েন মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। টুইটে শোকবার্তা দেওয়ার পাশাপাশি সাধন পাণ্ডের সঙ্গে সুসম্পর্কের কথাও উল্লেখ করেন। তাঁর পরিবার ও বন্ধুবান্ধবদের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন। 

[আরও পড়ুন: মাদক খুঁজতে গিয়ে খাস কলকাতার উদ্ধার কোটি কোটি কালো টাকা, আটক ২]

শনিবারই বাবার সংকটজনক অবস্থার কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছিলেন তাঁর মডেল কন্যা শ্রেয়া পাণ্ডে। বাবার জন্য কি কিছুই যথেষ্ট নয়? এই পোস্ট লিখে একটি ছবি দিয়েছিলেন। তাতেই বোঝা গিয়েছিল, কতটা ভেঙে পড়েছেন শ্রেয়া। 

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে এদিনই মুম্বই থেকে সাধন পাণ্ডের দেহ আনা হবে কলকাতায়। দমদম বিমানবন্দরে থাকবেন দুই মন্ত্রী- শশী পাঁজা ও সুজিত বসু। তাঁরা গোটা বিষয়টি তদারকি করে মরদেহ নিয়ে যাবেন পিস হাভেনে। আজ সারাদিন সেখানেই থাকবে সাধন পাণ্ডের দেহ। অন্তেষ্টিক্রিয়া নিয়ে এখনও কোনও পরিকল্পনা হয়নি বলে খবর।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে