BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ধর্মঘটে ক্ষতি হলে দায়িত্ব সরকারের, আশ্বাসে বৃহস্পতিবার পথে বাস নামাতে প্রস্তুত মালিকরা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: November 25, 2020 9:09 am|    Updated: November 25, 2020 9:10 am

West Bengal Govt. asked to keep bus services normal on general strike of November, 26 called by trade unions| Sangbad Pratidin

প্রতীকী ছবি।

নব্যেন্দু হাজরা: বৃহস্পতিবার দেশজুড়ে কেন্দ্রীয় শ্রমিক সংগঠনের (Trade Unions) ডাকে সাধারণ ধর্মঘট। ওইদিন প্রয়োজনীয় কাজে বাইরে বেরিয়ে আমজনতাল যাতে সমস্যায় না পড়েন, তার জন্য পথে প্রায় দেড় হাজার সরকারি বাস (Bus) নামানোর পরিকল্পনা নেওয়া হল। পাশাপাশি হাজার চারেক বেসরকারি বাসও নামানো হতে পারে বলে জানিয়েছেন বেসরকারি বাস মালিকরা।

রাস্তায় থাকবে অটো, ট্যাক্সি, ক্যাবও। তবে বামপন্থী ট্যাক্সি এবং বাস সংগঠন সাফ জানিয়ে দিয়েছে, তারা গাড়ি রাস্তায় নামাবে না। পথে নেমে যানবাহন না পেয়ে কারও সমস্যা হলে রাজ্য পরিবহণ দপ্তরের কন্ট্রোলরুমের টোল ফ্রি নম্বরে যোগাযোগ করে জানাতে পারবেন নিত্যযাত্রীরা। তার জন্য ২৬ তারিখ ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকবে কন্ট্রোলরুম।

[আরও পড়ুন: জামিন পেলেন ব্যবসায়ী গোবিন্দ আগরওয়াল, কলকাতা পুলিশের নজরে আরও এক আয়কর কর্তা]

২৬ নভেম্বর কেন্দ্রীয় শ্রমিক সংগঠনগুলির ডাকে ধর্মঘটের (General Strike) দিন পরিবহণ ব্যবস্থা সচল রাখতে কী পদক্ষেপ নেওয়া হবে, তা নিয়ে মঙ্গলবার বাস, অটো, ট্যাক্সি, ট্রাক সংগঠনগুলির সঙ্গে বৈঠকে বসেন পরিবহন দপ্তরের কর্তারা। বৈঠকে বাস মালিকদের ওইদিন রাস্তায় গাড়ি নামানোর কথা বলা হয়। মঙ্গলবার বৈঠক শেষে বেসরকারি বাসমালিক সংগঠনের বেশিরভাগ প্রতিনিধিরাই ধর্মঘটের দিন বাস নামবেন বলে জানিয়েছেন। তবে তাঁদের বক্তব্য, বাসের চাবি থাকে শ্রমিকদের হাতে। তাঁরা কাজে যোগ দিলে গাড়ি রাস্তায় নামবে। না হলে নামবে না। কিন্তু বাস নামানোর পর যদি তাতে ভাঙচুর হয় তার বিমার বিষয়টি সরকারকে দেখতে হবে।

[আরও পড়ুন: দূরপাল্লার ট্রেন কম থাকায় টিকিটের চাহিদা তুঙ্গে, হাওড়া-শিয়ালদহ এখন দালালদের স্বর্গরাজ্য]

ধর্মঘটিদের দ্বারা বাসের কোনও ক্ষয়ক্ষতি হলে বিমার বিষয়টি সরকার দেখবে বলেও আশ্বাস দিয়েছে, বৈঠকের পর এমনই জানান বাস মালিকরা। বিমা নিয়ে সরকারি আশ্বাস পেয়ে অনেকটাই নিশ্চিন্ত বাসমালিকরা। ওয়েস্টবেঙ্গল বাস-মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ নারায়ণ বোস বলেন, “আমরা বাস নামাব অন্যদিনের মতোই। সরকার থেকে বলা হয়েছে, বাস ভাঙচুর হলের বিমার বিষয়টা দেখবে।”

এদিকে, ধর্মঘটের সমর্থনে বুধবার মিছিল করবেন কলকাতার ট্যাক্সিচালকরা। শিয়ালদহ থেকে রাজা সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার পর্যন্ত মিছিল করে যাবেন এআইটিইউসি অনুমোদিত কলকাতা ট্যাক্সি অপারেটর্স কো-অর্ডিনেশন কমিটির সদস্যরা। পরিবহণ দপ্তরের তরফে জানানো হয়েছে, সিএসটিসি, সিটিসি এবং ডাব্লুবিএসটিসির তরফে কলকাতা এবং শহরতলিতে প্রায় ১৪০০ থেকে ১৫০০ বাস রাস্তায় নামবে। পুলিশের সঙ্গে সবসময় যোগাযোগ রাখা হবে। যাত্রীরা কোথাও বাস না পেলে খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সেখানে বাস পৌঁছে যাবে। নামানো হবে পর্যাপ্ত ভেসেলও। যাত্রীরা কোনও সমস্যায় পড়লে টোল ফ্রি নম্বরে ফোন করতে বলা হয়েছে। নম্বর দুটি হল ১৮০০৩৪৫৫১৯২, ৮৯০২০১৭১৯১।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে