২৬ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ১১ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

সৌন্দর্য ধরে রাখতে চান? ফুলের রসেই লুকিয়ে রয়েছে অব্যর্থ দাওয়াই

Published by: Bishakha Pal |    Posted: May 6, 2020 8:13 pm|    Updated: May 6, 2020 8:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিজেকে সুন্দর দেখাক, তা কে না চায়? সৌন্দর্য ধরে রাখতে তাই বাজার চলতি বিউটি প্রোডাক্টগুলোও বিকোয় হু হু করে। সেখানে কত ফুলের কথা উল্লেখ থাকে। কিন্তু সবার গুণাগুণ তো বিস্তারিত বলা থাকে না। তাই নিজের ত্বকের জন্য ঠিক কোন প্রোডাক্ট কিনতে হবে, তা নিয়ে অনেকের ধারণাই পরিষ্কার নয়। ভুল প্রোডাক্ট দিয়ে রূপচর্চা করলে ফল হিতে বিপরীত হতে পারে। তাই প্রতিটি ফুলের গুণাগুণ জেরে তবেই ব্যবহার করা উচিত।

গোলাপ
বিউডি প্রোডাক্ট হিসেবে গোলাপের জুড়ি মেলা ভার। রোজ ওয়াটার, ফেস মাস্ক, লোশন এমনকী গোলাপ দিয়ে তৈরি হয় নাইট ক্রিমও। ত্বককে প্রাণবন্ত রাখতে সাহায্য করে গোলাপ। ত্বকে রক্ত সঞ্চালনও স্বাভাবিক রাখে। এর অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান বয়সের বলিরেখা ত্বকে পড়তে দেয় না। তাই এই সমস্যা থেকে রেহাই পেতে গোলাপ জল বা গোলাপের রস দিয়ে তৈরি ক্রিম বা মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন।

[ আরও পড়ুন: লকডাউনে বন্ধ পার্লার, বাড়িতে বসে কয়েক মিনিটেই সারুন রূপচর্চা ]

ল্যাভেন্ডার
অপরিহার্য তেল হিসাবে এর ব্যবহার হয় সবচেয়ে বেশি। তৈলাক্ত, শুষ্ক ও স্বাভাবিক, তিন ধরনের ত্বকের জন্যই ল্যাভেন্ডার উপযোগী। ল্যাভেন্ডার ত্বকের পরিশ্রান্তভাব দূর করে। এটি অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিসেপটিক বৈশিষ্টপূর্ণ হওয়ায় অনেক ফেস মাস্ক এবং ক্রিম তৈরিতে এই ফুল ব্যবহার করা হয়।

ক্যামোমিল
এই ফুল ত্বকের যত্নের ক্ষেত্রে দুর্দান্ত কাজ দেয়। এতে অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি, অ্যান্টি ফাঙ্গাল, অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিসেপটিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এর ফলে ত্বকে স্থিতিস্থাপকতা বজায় থাকে। লালচেভাব কমায় এবং ত্বককে বুড়িয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে। ক্যামোমিল মূলত তেল তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। শুকনো ফুলের গুঁড়ো দিয়ে ফেসপ্যাকও তৈরি হয়।

জবা
সৌন্দর্য ধরে রাখতে জবার তুলনা নেই। অনেক বিউটি প্রোডাক্টে এই ফুল ব্যবহার করা হয়। ত্বকের উজ্জ্বলতা বজায় রাখতে ও ত্বকের সঠিক রং ধরে রাখতে এর জুড়ি নেই। ত্বকের প্রয়োজনীয় তেলের মধ্যে সামঞ্জস্য রাখে জবা। ত্বককে অকালে বুড়িয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করতে এর রস ব্যবহৃত হয়। এমনকী চুলের সৌন্দর্যের ক্ষেত্রেও জবা ফুলের ব্যবহার রয়েছে। চুলের তেল তৈরিতে এটি ব্যবহৃত হয়। কারণ এটি স্কাল্পের যত্ন নেয় ও চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

[ আরও পড়ুন: পার্লার বন্ধে ফ্যাশনের দফারফা? লকডাউনে নিজে হাতে বাড়িতে বসেই ফিরে পান সুন্দর ভ্রূ ]

জুঁই
অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি এডিং ট্রিটমেন্টের জন্য বিখ্যাত জুঁই। ত্বকের মৃত কোষগুলিকে সরিতে ত্বককে উজ্জ্বল করে এই ফুল। তাই এটি বেশ কয়েকটি সৌন্দর্যের পণ্য তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।

গাঁদা
ভারতে বহুল পরিমাণে পাওয়া যায় এই ফুল। এটি ক্যালেন্ডুলা নামেও পরিচিত। এর তেল সারা বিশ্বে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়। ক্যালেন্ডুলা তেলে অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য রয়েছে। ফলে ব্রণ, ত্বকের দাগ হ্রাস করতে এটি সহায়তা করে। ব্যথা প্রশমিত করতে এবং পোকার কামড়ে জ্বালার উপশম ঘটাতেও গাঁদার রস ব্যবহার করা হয়।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement