BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

নোনতা পদে ভিন্ন স্বাদ আনতে পারে সামান্য একটু নতুন গুড়, রইল ব্যতিক্রমী রেসিপি

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 31, 2020 8:11 pm|    Updated: January 31, 2020 8:11 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শীত যেন যেতে যেতে যাচ্ছে না। শেষধাপে এখনও ব্যাটিং করে চলেছে। দীর্ঘায়িত হচ্ছে হিমের মরশুম। আর তাতেই আনন্দ দ্বিগুণ শীতপ্রেমী বাঙালির। আরও কয়েক বাহারি সোয়েটার, জ্যাকেট, টুপি ব্যবহারের পাশাপাশি পেটপুজোটাও জমিয়ে করা যাবে যে। টাটকা নলেন গুড় এখনও হাতছানি দিচ্ছে। তবে গুড় সহযোগে শুধুই পিঠেপুলি কিংবা রসগোল্লা, মালপোয়াই খাবেন? নাকি একটু অন্য কিছুও বানাবেন। খাঁটি নলেন গুড়ের কিছু ভিন্ন স্বাদের রেসিপির হদিশ রইল আপনার জন্য।

গুড় মাখানো চিকেন বল
উপকরণ:
মুরগির কিমা – ১ কাপ
আদাবাটা – ১ চা-চামচ
রসুনবাটা – আধা চা-চামচ
লঙ্কাগুঁড়ো – ১ চা-চামচ
গোলমরিচ গুঁড়ো – ১ চা-চামচ
অরিগানো – আধ চা-চামচ
ময়দা – ২ টেবিল চামচ
কর্নফ্লাওয়ার – ২ টেবিল চামচ
লেবুর রস – ১ চা-চামচ
চিনি – আধ চা-চামচ
সয়া সস – ১ টেবিল চামচ
চিলি সস – ১ টেবিল চামচ
ডিম – পরিমাণমতো
গুড় – আধ চা-চামচ
কুচনো পেঁয়াজকলি – ১ টেবিল চামচ
লবণ স্বাদমতো, তেল পরিমাণমতো

[আরও পড়ুন: রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়ার চিন্তা অতীত, মধুমেহ রোগীদের জন্য বাজারে এল সুগার ফ্রি খেজুর গুড়]

প্রণালী: প্রথমেই মুরগির কিমার সঙ্গে আদা, রসুন, লবণ, লঙ্কাগুঁড়া, গোলমরিচ গুঁড়ো, অরিগানো, ময়দা, লেবুর রস, কর্নফ্লাওয়ার, ডিম, চিনি, সয়া সস দিয়ে মেখে রেখে দিন। মাখানো হয়ে গেলে তেলে ভেজে তুলে রাখুন। এবার অন্য একটি কড়াইয়ে তেল গরম করে পেঁয়াজকলি কুচি দিয়ে নেড়ে চিলি সস, টমেটো সস ও গুড় দিয়ে ভাল করে নেড়ে নিন। এবার ভাজা চিকেন বলগুলো দিয়ে একটু নেড়ে নামিয়ে সাজিয়ে সস-সহ পরিবেশন করুন।

chicken-ball
টক মিষ্টি চিকেন
উপকরণ:
বোনলেস মুরগির মাংস – ১ কাপ
ভিনিগার – ১ চা-চামচ
হলুদগুঁড়ো – আধ চা-চামচ
মরিচগুঁড়ো – ১ চা-চামচ
চিলি সস – ১ চা-চামচ
গরম মসলাগুঁড়ো – আধ চা-চামচ
আদা বাটা – ১ চা-চামচ
রসুন বাটা – আধ চা-চামচ
ধনেগুঁড়ো – ১ চা-চামচ
জিরেগুঁড়ো – ১ চা-চামচ
গোলমরিচ গুঁড়ো – আধা চা-চামচ
ডিম – ১টা
কর্নফ্লাওয়ার – ১ টেবিল চামচ
ময়দা – ১ চা-চামচ
লেবুর রস – ১ চা-চামচ
টক দই – আধ কাপ
শুকনো লঙ্কা – পরিমাণমতো
কাঁচা লঙ্কা – কয়েকটা
ধনেপাতা – পরিমাণমতো
তিল – পরিমাণমতো
গুড় – ১ টেবিল চামচ।
তেল পরিমাণমতো, লবণ স্বাদমতো।

[আরও পড়ুন: ১১৫ বছর পর স্বাদবদল, চিনির পরিবর্তে এবার বাজারে এল নলেন গুড়ের সীতাভোগ-মিহিদানা]

প্রণালী: প্রথমেই সব উপকরণ দিয়ে মুরগির মাংস ম্যারিনেট করে নিন। কিছুক্ষণ রেখে মসলা মাখানো মাংসগুলো তেলে ভেজে আলাদা পাত্রে তুলে রাখুন। এবার দইয়ের মিশ্রণের সঙ্গে অন্যান্য সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। গরম তেলে সরষে, শুকনো লঙ্কা, কাঁচা লঙ্কা ফোড়ন দিন। তাতে ধনেপাতা, চিলি সস ও দইয়ের মিশ্রণ দিন। মিশ্রণটি ভাল করে কষিয়ে নিন। এরপর তার মধ্যে ভাজা মুরগি দিয়ে নেড়ে নিন। নামানোর আগে তিল, লেবুর রস ও গুড় দিয়ে একটু নেড়ে পরিবেশন করুন মজাদার টক মিষ্টি মুরগি।

takmisti-murgi

শেষ পাতে একটু মিষ্টি না হলে কি চলে? মোটেই না। রইল মিষ্টির একটা পদের রেসিপিও।

হাবসি হালুয়া
উপকরণ:
দুধ – ১ লিটার
লেবুর রস – সিকি চা-চামচ
জল – ২ চা-চামচ
সাদা ভিনিগার – ১ টেবিল চামচ
ময়দা – ৩ টেবিল চামচ
ঘি – ৪ টেবিল চামচ
গুড় – আধ কাপ এলাচগুঁড়ো – আধ চা-চামচ
জাফরান – আধ চা-চামচ
কোকো পাউডার – ১ টেবিল চামচ
কাঠবাদাম – আধ কাপ।

halua

প্রণালী: দুধ ঘন করে জাল দিন। আভেন বন্ধ করে লেবুর রস জলে মিশিয়ে দুধের মধ্যে দিন। ৫ মিনিট ঢেকে রাখুন। দুধ ছানা ছানা হয়ে এলে আবার আভেন জ্বালিয়ে মাঝারি আঁচে ৩০-৪০ মিনিট তা জাল দিন। ছানা থেকে জল শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত জাল দিতে হবে। এরপর এতে চিনি, সাদা ভিনিগার দিয়ে ৮-১০ মিনিট নাড়তে হবে। কোকো পাউডার, ময়দা ও ঘি মিশিয়ে আবার ভাল করে নাড়ুন। প্যানের গা থেকে হালুয়া ছেড়ে এলে, এলাচগুঁড়ো ও জাফরান দিয়ে নেড়ে কাঠবাদাম ছড়িয়ে দিন। নামিয়ে একটা ঘি লাগানো পাত্রে সমানভাবে বিছিয়ে দিন। একটু ঠান্ডা হলে পছন্দমতো শেপে কেটে পরিবেশন করুন।

গুড়ের এমন অনবদ্য সব পদ চেখে অতিথিরা আপনাকে ধন্যি ধন্যি করতে বাধ্য।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement