BREAKING NEWS

২১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৪ জুন ২০২০ 

Advertisement

রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়ার চিন্তা অতীত, মধুমেহ রোগীদের জন্য বাজারে এল সুগার ফ্রি খেজুর গুড়

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 19, 2020 7:11 pm|    Updated: January 19, 2020 7:11 pm

An Images

ধীমান রায়, কাটোয়া: বাঙালির রসনাতৃপ্তি মানে রুটির সঙ্গে খেজুর গুড়। কিন্তু ভাল খেজুর গুড় পাওয়া আজকাল সত্যিই দুষ্কর। তবে হাজার চেষ্টা করে ভাল গুড় নয় পেলে কিন্তু মন দিয়ে কবজি ডুবিয়ে খেতে পারছেন কই? পরিবর্তে বারবার রক্তের শর্করার মাত্রা বাড়ার চিন্তায় বুক ধুকপুক। তাই ভাল গুড় খাওয়াই হচ্ছে না তাই তো? এমনই কিছু গুড়প্রেমীদের মনখারাপ দূর করতে এবার বাজারে এল সুগার ফ্রি খেজুর গুড়। পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়ার বাজারে দেদার বিকোচ্ছে। যা কিনতে দোকানের সামনে লম্বা লাইন ক্রেতাদের।

কাটোয়ার বারোয়ারিতলায় অশোক রায়ের দোকানে কাঠের জ্বালানির উনুনে টগবব করে ফুটছে খেজুর রস। রস মেরে তৈরি হচ্ছে গুড়। কাটোয়া, অগ্রদ্বীপ, কেতুগ্রাম প্রভৃতি এলাকার খেজুর বাগানগুলিতে আগে থেকেই চুক্তি করে রেখেছেন অশোকবাবু। খাঁটি রস ভোরের মধ্যেই দোকানে চলে আসছে। আর নিজেই গুড় তৈরি করছেন সকলের সামনেই। আর তৈরি হতে যতক্ষণ। মুহূর্তের মধ্যেই গুড় শেষ। গুড় বিক্রেতার দাবি, তাঁর দোকানে বিক্রি হচ্ছে সুগার ফ্রি গুড়। তিনি রীতিমতো ব্যানার ঝুলিয়ে তাঁর দোকানে বিক্রি হওয়া গুড় সুগার ফ্রি বলে দাবি করেছেন। দামটাও নেহাত কম নয়। দামের নিরিখে বাজার চলতি খেজুর গুড়কে পিছনে ফেলে দিয়েছে সুগার ফ্রি গুড়। এই গুড় কিনতে গেলে প্রায় চার গুণ বেশি টাকা খরচ করতে হবে। ঝোলা গুড় কেজি প্রতি ৪০০ টাকা। আর পাটালি বিক্রি হচ্ছে ৫০০ টাকা কেজি। দাম বেশি হলেও ক্রেতার অভাব নেই। জোগান দিতে হিমশিম খেয়ে যাচ্ছেন গুড় ব্যবসায়ী।

[আরও পড়ুন: রেস্তরাঁয় খাবার খেতে গিয়ে ‘বোকা প্রশ্ন’ করায় জরিমানা! ব্যাপারটা কী?]

খেজুর রসের গুড়কে হঠাৎ সুগার ফ্রি গুড়ের ছাড়পত্র দিয়ে দেওয়ার যুক্তি কি? অশোকবাবুর দাবি, “বাজারে চালু গুড় যেগুলি ১০০-১৫০ টাকায় বিক্রি হয় সেগুলিতে চিনি মেশাতেই হয়। কারণ চিনি না মেশালে খেজুর গুড়ের চাহিদা অনুযায়ী জোগান দেওয়া সম্ভব নয়। আর দামও সবার নাগালের মধ্যে থাকবে না। কিন্তু আমার তৈরি গুড়ে কোনও চিনি নেই। তাই সুগার ফ্রি গুড় এটি।” সত্যিই কি এই খাঁটি খেজুর রসে তৈরি গুড় সুগার ফ্রি হতে পারে? কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক জয়ন্ত সিনহার কথায়, “গাছের মিষ্টি রস মানেই তার মধ্যে শর্করা থাকবে। কিন্তু ল্যাবে পরীক্ষা না করে কত শতাংশ শর্করা রয়েছে তা বলা সম্ভব নয়।” তবে চিকিৎসকেরা এই গুড়কে সুগার ফ্রি বলে ছাড়পত্র দিন বা না দিন, আপাতত এ বছরের হটকেক কাটোয়ার সুগার ফ্রি খেজুর গুড়?

ছবি: জয়ন্ত দাস

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement