BREAKING NEWS

১৩ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  বুধবার ২৭ মে ২০২০ 

Advertisement

পুষ্টি ও স্বাদের মেলবন্ধন, খেজুর দিয়ে সহজ পদ্ধতিতে বাড়িতেই বানান লোভনীয় পদ

Published by: Sayani Sen |    Posted: May 22, 2020 5:05 pm|    Updated: May 22, 2020 5:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনে বাড়িতেই আছেন? এই সময়ে বাইরে খাবারদাবার অর্থাৎ কেনা খাবার পাওয়া যথেষ্ট দুষ্কর। কিন্তু ভাল খাবার খেতে ইচ্ছে করছে? চিন্তা কী, হাতে রয়েছে যথেষ্ট সময়। তাই এই সময়ে নয় চটজলদি কিছু খাবার তৈরি করে নিন। দেখবেন তাতে মুখের স্বাদ যেমন বদল হবে, তেমনই আবার প্রিয়জনদের প্রশংসায় চওড়া হতে পারে আপনার মুখের হাসি। তাই আপনার জন্য রইল খেজুরের বার তৈরির রেসিপি।

খেজুর মোটামুটি বেশিরভাগ মানুষই খেতে পছন্দ করেন। আর তা স্বাস্থ্যকরও বটে। করোনা সংক্রমণ রুখতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। আর তাই খেজুরের কোনও বিকল্প নেই। ভিটামিন, জিঙ্ক, ম্যাগনেশিয়াম, আয়রন, ফসফরাস, পটাশিয়াম থাকা খেজুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। তাই এই সময়ে খেজুরের বার খাওয়া অত্যন্ত ভাল। এবার দেখে নেওয়া যাক খেজুরের বার তৈরি করার জন্য কী কী প্রয়োজন।

Dates

[আরও পড়ুন: ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন? শরীর-মন চাঙ্গা রাখতে প্রাতঃরাশে এই খাবারগুলি অবশ্যই রাখুন]

উপকরণ:
খেজুরের বীজ ছাড়িয়ে দিতে হবে। তারপর কুচি কুচি করে তা কেটে নিতে হবে। অন্তত ২০০ গ্রাম খেজুর নিতে পারেন। ৫০ গ্রাম করে কাজু বাদাম, কাঠবাদামের কুচি। ২৫ গ্রাম করে কাঁচা নারকেলের শাঁস এবং পেস্তা বাদাম নিন। ১ টেবিল চামচ ঘি প্রয়োজন।
পদ্ধতি:
প্রথমে গ্যাসে একটি কড়া বসান। কড়া গরম হয়ে গেলে তাতে ঘি দিন। ঘি গলে গেলে কাঠবাদাম, পেস্তার কুচি দিন। হালকা করে তা ভেজে নিন। এবার কড়ায় খেজুরকুচি দিন। কাঁচা নারকেলের শাঁস কড়াইতে দিন। ভাল করে আবারও ভেদে নিন। অল্প আঁচে মিশ্রণটি আঠালো হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এবার এই মিশ্রণটি কড়াইতে ঢেলে নিন। ঠান্ডা হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। একটি থালায় ঢেলে বরফিকৃতি বা চৌকো করে কেটে নিন।

Dates

ব্যস! আপনার খেজুরের বার প্রস্তুত। এবার তা প্রিয়জনদের হাতে পরিবেশন করুন। দেখবেন খেজুরের বার মুখে দিলেই অবাক হয়ে যাবেন আপনার প্রিয়জনেরা। অল্প সময়ে লোভনীয় এই খেজুরের বার ছোট থেকে বড় সকলেরই যে ভাল লাগবে তা নিয়ে কোনও সংশয় নেই।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে মন খারাপ? আইসক্রিম বানিয়ে খুশি করুন পরিবারের সকলকে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement