BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ৫ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

ডায়াবেটিস থাকলে করোনায় মৃত্যু হওয়ার ঝুঁকি অনেক বেশি, বলছে গবেষণার রিপোর্ট

Published by: Paramita Paul |    Posted: May 31, 2020 5:07 pm|    Updated: May 31, 2020 5:07 pm

An Images

অঙ্কন: সুযোগ বন্দ্যোপাধ্যায়

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ডায়াবেটিস করোনায় মৃত্যু হার বাড়াচ্ছে। ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীদের জন্য ক্রমশ ত্রাস হয়ে উঠছে এই কোভিড-১৯ (COVID-19)। আন্তর্জাতিক সমীক্ষার রিপোর্ট বলছে, হাসপাতালে ভরতির সাতদিন পর প্রতি ১০ করোনা রোগীর মধ্যে একজনের মৃত্যু হচ্ছে এই ডায়াবেটিসের কারণেই। আর প্রতি পাঁচজনের মধ্যে একজনকে ইনটিবেটেড অ্যান্ড মেকানিক্যাল ভেন্টিলেশনে দিতে হচ্ছে। এর উপর যদি মাইক্রো ভাসকুলার জটিলতা থাকে তাহলে মৃত্যুর ঝুঁকি দ্বিগুণ হয়ে যাচ্ছে। নতুন সমীক্ষার রিপোর্ট নিসন্দেহে রক্তচাপ বাড়াচ্ছে আমজনতার।

ডাক্তাররা আগেই বলেছিলেন, ডায়াবেটিস থাকলে করোনা আক্রান্ত হলে সমস্যা বাড়ে। মৃত্যু ভয়ও বাড়ে। এবার হাতেনাতে এক সমীক্ষায় এমন তথ্য উঠে এল। গত ১০-৩১ মার্চের মধ্যে ফ্রান্সের ৫৩টি হাসপাতালের ১ হাজার ৩১৭ জন রোগীর উপর পরীক্ষা চালান নানতেস বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। তাঁদের দাবি, করোনা আক্রান্ত ৯০ শতাংশ রোগীদের মধ্যে তাঁরা টাইপ ২ ডায়াবেটিস খুঁজে পেয়েছেন। আরও তিন শতাংশ রোগীর দেহে মিলেছে টাইপ ১ ডায়াবেটিস।

[আরও পড়ুন : করোনামুক্ত রোগীদের অস্ত্রোপচারের পর মৃত্যুভয় অনেক বেশি, বলছেন গবেষকরা]

ডায়াবেটোলোজিয়া জার্নালে প্রকাশিত ওই গবেষণাপত্রে আরও বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ (COVID-19) সংক্রমণ নিয়ে হাসপাতালে ভরতি হওয়া দুই তৃতীয়াংশই পুরুষ। তাঁদের গড় আয়ু ৭০ বছরের মধ্যে। তা দেখে গবেষকরা বলছেন, বয়সের ভার ও ডায়াবেটিসের কারণেই অধিকাংশ করোনা রোগীর মৃত্যু হচ্ছে। হাসপাতালে ভরতি হওয়ার সাতদিনের মধ্যে এই ধরণের রোগীর শারীরিক অবনতি হচ্ছে। ভেন্টিলেশনে পাঠাতে হচ্ছে তাঁদের। আর তাঁদের প্রতি দশ জনের মধ্যে একজনের মৃত্যু হচ্ছে। আশঙ্কার কথা হল, এই ধরণের মাত্র ১৮ শতাংশ রোগী বাড়ি ফিরতে পারছেন।

[আরও পড়ুন : ডিসেম্বরের মধ্যে ৫০ শতাংশ ভারতীয়ই করোনায় আক্রান্ত হবেন, ছড়াবে গোষ্ঠী সংক্রমণ, দাবি গবেষকের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement