BREAKING NEWS

১১ কার্তিক  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

পুরুষের মাথায় চুল কম হলে বাড়তে পারে করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা! বলছেন বিশেষজ্ঞরা

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: June 6, 2020 12:40 pm|    Updated: June 6, 2020 2:00 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাথায় চুল কম? ভাবছেন কি এটাকেই স্টাইল স্টেটমেন্ট বানিয়ে ফেলবেন? তাহলে আপনি ভুল করছেন। সচেতন হোন। সম্প্রতি এক গবেষণায় জানা গেছে পুরুষদের মাথায় চুল কম থাকলে বাড়তে পারে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি! নতুন এই আশঙ্কার নাম দেওয়া হয়েছে ‘গ্যাব্রিন সাইন’ (Gabrin sign)।

দূষণের জেরে এখন অনেক বাড়ির পুরুষদেরই মাথায় নেই ঢেউ খেলানো চুলের বাহার। উত্তম, সৌমিত্র অতীত হয়ে এখন সবটাই নেই-এর যুগ। ফলে চুল ঝরে পড়াটাকেই পুরুষেরা স্টাইলে বদলে ফেলেছেন। তবে না জানা স্টাইল স্টেটমেন্টের জেরেই বাড়তে পারে করোনার সংক্রমণ। আমেরিকার এক দল গবেষক সম্প্রতি জানান, “যে পুরুষদের মাথায় চুল কম বা যাদের নেই তাদেরই করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বেশি”। এই নতুন রিস্ক ফ্যাক্টরের নাম দেওয়া হয়েছে ‘গ্যাব্রিন সাইন’। করোনা আক্রান্ত হয়ে আমেরিকার এক চিকিৎসক ডক্টর ফ্র্যাঙ্ক গ্যাব্রিনের (Dr Frank Gabrin) মৃত্যুর পরে এই নাম দেওয়া হয়েছে। গ্যাব্রিনের মাথাতেও চুল ছিল না বলে জানা যায়। এই গবেষণার প্রধান ব্রাউন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর কার্লোস ওয়াম্বিয়ার জানান, “মাথায় চুল কম থাকলে সংক্রমণের সম্ভাবনা ও তার প্রভাব অনেক বেশি বেড়ে যায়”।

[আরও পড়ুন:ইডির দপ্তরে করোনার হানা! ৬ আধিকারিকের শরীরে মিলল মারণ ভাইরাসের সন্ধান]

করোনার আঁতুরঘর চিনের ইউহানে সংক্রমণ ছড়ানোর পর থেকেই নড়চড়ে বসেন বিশ্বের গবেষকরা। কীসের থেকে এই সংক্রমণ হচ্ছে? বা কীসের থেকে বাড়তে পারে সংক্রমণের মাত্রা? তার চুলচেরা বিশ্লেষণ করতে গিয়ে শেষে পুরুষদের মাথায় চুল কম থাকাকেই একটি কারণ হিসেবে মেনে নিয়েছেন তাঁরা। গবেষকরা দেখেছেন যে, মেয়েদের তুলনায় ছেলেদেরই করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বেশি। আর তার অন্যতম কারণই হল মেয়েদের তুলনায় ছেলেদের জীবন যাত্রার পার্থক্য, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ইত্যাদি। সম্প্রতি গবেষণায় দেখা গিয়েছে, পুরুষদের শরীরে নিঃসৃত হওয়া হরমোন এন্ড্রোজেন (androgens) শুধুমাত্র চুল পড়াতে প্রধান ভূমিকা পালন করে না, করোনাভাইরাসের ক্ষমতাও বাড়িয়ে দেয়।

[আরও পড়ুন:ফের একদিনে রেকর্ড বৃদ্ধি, করোনা সংক্রমণের নিরিখে ইটালিকে টপকে গেল ভারত]

তাই পুরুষদের চুল পড়া কমানোর জন্য চিকিৎসকরা এই হরমোনের প্রভাব কম করার চেষ্টা করছেন। প্রফেসর ওয়াম্বিয়ার জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই আমেরিকায় চুল পড়া কমানোর জন্য যে ওষুধ ব্যবহার করা হয়, সেই ওষুধ নিয়ে করোনা সংক্রমণ কমানো যায় কিনা তার গবেষণা শুরু হয়েছে। একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে, স্পেনের মাদ্রিদের তিনটি হাসপাতালে কোভিড আক্রান্ত হয়ে যাঁরা ভর্তি রয়েছেন, তাঁদের মধ্যে ৭৯ শতাংশ পুরুষের মাথায় চুল নেই বা কম আছে। আমেরিকান অ্যাকাডেমি অফ ডারামাটোলজিতে প্রকাশিত একটি জার্নালে বলা হয়েছে, ১২২ জন রোগীর মধ্যে গবেষণা করে দেখা গিয়েছে যে, তাঁদের মধ্যে ৭১ শতাংশ রোগীর মাথায় চুল নেই। যাঁদের চুল কম, তাঁদের শরীরে এই ভাইরাসের প্রভাব অনেক বেশি দেখা যাচ্ছে বলেও দাবি করেছে এই গবেষণা। ফলে এবার থেকে গোঁফ নয় করোনা আক্রান্ত পুরুষদের চেনা যাবে চুলেই।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement