২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

এই পুজোয় মেকআপ করুন মানানসই, জেনে নিন কিছু স্পেশ্যাল টিপস

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 25, 2017 5:35 am|    Updated: September 27, 2019 7:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুজোয় ঠাকুর দেখা শুরু হয়ে গেছে। আর প্রতিদিন শুধু ভাল জামা, জুতো পরলেই হবে না, তার সঙ্গে মানানসই মেকআপ করাটাও জরুরি। এদিকে বাজারে হাজারও মেকআপের সামগ্রী। কিন্তু কী ধরনের মেকআপ আপনার ত্বকের বা আপনার মুখাকৃতির জন্য ভাল তা আগেভাগে জেনে নিলেই কেল্লাফতে।

বেস:

প্রাইমার বা বেস হল মেকআপের প্রথম ধাপ। মেকআপকে দীর্ঘক্ষণ ধরে রাখতে প্রাইমার বা বেসের দরকার। প্রাইমার মেকআপকে লং লাস্টিং করে এবং মুখে দাগ থাকলে তা ঝাপসা করে দিয়ে চকচকে ভাব আনে। এতে মেকআপ সহজে বসে যায়। তাই মেকআপের প্রথম পাঠ হল প্রাইমার বা বেস।


makeup-base_549eed75-31ee-11e5-a8da-005056b4648e

[পুজোর সময় মুখে ব্রণ? মুক্তি মিলবে এই ঘরোয়া টোটকাতেই]

কন্সিলর:

যাদের মুখে দাগ রয়েছে, দাগ ঢাকতে এটি সবচেয়ে উপযোগী। বেসের উপর মুখে যেখানে যেখানে কালো দাগ রয়েছে সেইসব দাগের উপর কন্সিলর দিয়ে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। কন্সিলর মুখের কালো দাগ সহজেই ঢেকে ফেলে।

concealer

ফাউন্ডেশন:

ফাউন্ডেশন ফুল কভারেজ মেকআপের জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে। বাজারে বিভিন্ন ধরনের ফাউন্ডেশন রয়েছে যা আপনাকে ফুল কভারেজ দেবে। সারাদিন মেকআপ ভাল থাকবে। দীর্ঘক্ষণের জন্য মেকআপ টিকিয়ে রাখার জন্য আপনি ফাউন্ডেশনের দু’টি লেয়ার দিতে পারেন। অয়েলি ও ড্রাই স্কিনের জন্য দু’ধরনের ফাউন্ডেশন পাওয়া যায়। তবে অবশ্যই ফাউন্ডেশন কেনার সময় নিজের স্কিন টোন দেখে কিনবেন।

foundation-spill

[পুজোয় চাই মোহময়ী চোখ ও ঠোঁট? কী করতে হবে জেনে নিন]

কন্টুরিং কিট:
কন্টুরিং ব্যবহার করা হয় আপনার মুখের আকৃতি বোঝানোর জন্য। যাতে মুখের মেকআপ আরও ভালভাবে বোঝা যায়। এটির দু’টি শেড একটি ন্যাচারাল এবং আরেকটি ডার্ক। দিনের বেলার জন্য অবশ্যই ন্যাচারাল ও রাতের জন্য ডার্ক কন্টুরিং ব্যবহার করুন।

contouring

লুজ পাউডার:
এটি ট্রান্সপারেন্ট। তাই ত্বকের কালার যাই হোক না কেন এটি দিলে মুখ থেকে তেল বের হয় না। আপনার ত্বকে মেকআপ বসতে সাহায্য করবে। কন্টুরিং এর পর এটি দিলে কন্টুরিং করা মুখের ত্বকের সঙ্গে এটি ভালভাবে মিশে যায়।

Makeup brushes with jars filled with loose cosmetic powder different tones, side view

ফেসপাউডার:

মেকআপের পর ফিনিশিং টাচের জন্য ফেস পাউডার গুরুত্বপূর্ন। এক্ষেত্রেও ড্রাই ও অয়েলি স্কিনের জন্য দু’ধরনের ফেস পাউডার পাওয়া যায়। যা অতি অবশ্যই যেন আপনার স্কিনটোনের সঙ্গে মানানসই হয়। এটি মিনিমাম ৬/৮ ঘন্টা মুখের দাগ এবং পোর কভার করবে।

face powder

[বাড়িতে বসেই সেরে ফেলুন পেডিকিওর ও মেনিকিওর]

ব্লাশ:
ব্লাশ ছাড়া মেকআপ কমপ্লিট হয় না। মোটামুটি একটি কিটে দু’টো থেকে শুরু করে অনেক রং থাকে যা ব্রাশার ও হাইলাইটার দু’টোরই কাজ করে। একটু লং লাস্টিং ব্লাশার কেনাই ভাল। ড্রেসের রঙের সঙ্গে মানাসই ব্লাশারেই মেকআপ হবে পারফেক্ট।

 2301128

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement