BREAKING NEWS

১১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  সোমবার ২৫ মে ২০২০ 

Advertisement

করোনা থেকে বাঁচতে অকারণ অর্থ খরচ নয়, বরং করুন এই কাজগুলি

Published by: Sulaya Singha |    Posted: March 3, 2020 4:19 pm|    Updated: March 4, 2020 2:55 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সূচনাটা হয়েছিল চিনে। তারপর মহামারির আকার ধারণ করে করোনা ভাইরাস। বর্তমানে বিশ্বের অন্তত ৬০টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই COVID-19 ভাইরাস। বাদ পড়েনি ভারতও। এমন পরিস্থিতিতে যতদিন যাচ্ছে, ততই বাড়ছে করোনার আতঙ্ক। অনেকেই এই ভাইরাসের প্রভাব থেকে রক্ষা পেতে খোলা বাজার থেকে মাস্ক কিনে ব্যবহার করছেন। কিন্তু আদৌ কি তাতে কোনও কাজ হচ্ছে? এভাবে কি সত্যিই আটকানো সম্ভব করোনার প্রভাব? চলুন জেনে নেওয়া যাক, এক্ষেত্রে কীভাবে নিজেকে প্রস্তুত রাখবেন। কোন জিনিসগুলি কেনার প্রয়োজন আছে আর কোন জিনিসগুলি কেনা মানে শুধুই টাকা খরচ।

বাজার থেকে কিনে কি মাস্ক পরার প্রয়োজন আছে? বিশেষজ্ঞদের মতে, না। যদি আপনি হাসপাতাল কিংবা স্বাস্থ্যকেন্দ্রের কর্মী না হন অথবা আপনার পরিবারের কেউ এই রোগে আক্রান্ত না হয়ে থাকেন, তাহলে মাস্ক পরার দরকার নেই। মার্কিন মুলুকের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও সুরক্ষা কেন্দ্রের মতে, মাস্ক COVID-19 ভাইরাস আটকাতে পুরোপুরি সক্ষম নয়। তবে ভাইরাস যাতে ছড়িয়ে না পড়ে, তার জন্য আক্রান্ত ব্যক্তির মাস্ক পরা অত্যন্ত জরুরি। করোনার ভয়ে মাস্কের বিক্রি বিপুল পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে যাদের সত্যিই মাস্ক পরার দরকার, কার্যক্ষেত্রে তারাই মাস্ক পাচ্ছেন না। আপনিও কিনে থাকলে তা আপাতত নিরাপদে রেখে দিন।

[আরও পড়ুন: টিভিতে হিংসার খবরে প্রভাবিত শিশুমন? জেনে নিন বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ]

গুগল সার্চ করে করোনা নিয় পড়াশোনা করার পর অনেকে আবার N95 মাস্কও কিনছেন। এই মাস্ক ৯৫ শতাংশ ভাইরাস রোধ করে। অর্থাৎ এই মাস্কের কিন্তু আপনি সম্পূর্ণ সুরক্ষিত নন। তবে মাস্ক তখনই কাজ করবে যখন সেটি মুখে এঁটে বসবে। তবে এতেও যে এই মারণরোগকে পুরোপুরি রোখা সম্ভব নয়, তাও মেনে নিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

আপনারই আশেপাশে কেউ করোনায় আক্রান্ত। এমন পরিস্থিতি তৈরি হলে কী করবেন? প্রথমত মাথা ঠান্ডা রাখতে হবে। ভয় পেলে চলবে না। প্রতি মুহূর্তের খবরাখবর রাখুন। এই সময় অন্তত ২০ সেকেন্ড ভালভাবে সাবান দিয়ে হাত ধোবেন। হাঁচলে বা কাশলে অবশ্যই মুখ ও নাক হাত দিয় চেপে রাখুন। অসুস্থ বোধ করলে কর্মক্ষেত্রে যাবেন না। পুরো সময়টা বাড়িতে কাটান। চোখ, নাক ও মুখে হাত দেবেন না। বাড়ির চারপাশ পরিষ্কার রাখুন। বাড়িতে থাকলে গ্লাভস পরার প্রয়োজন নেই। আর একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, কারও সঙ্গে সাক্ষাৎ হলে করমর্দন একেবারে এড়িয়ে চলুন। অচেনা মানুষের গালে গাল ঠেকানো কিংবা চুমু খাওয়া নৈব নৈব চ। হাত জোর করে নমস্কার করেই অভিবাদন জানান। সতর্ক থাকুন, সতর্ক রাখুন।

[আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত পোপ ফ্রান্সিসও! পরপর ধর্মীয় অনুষ্ঠান বাতিলে জোরদার জল্পনা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement