Pregnancy

দিদিমাই জন্ম দেবেন নাতনির! ছোট্ট শিশুকে স্বাগত জানাতে তৈরি মার্কিন পরিবার

ফের মাতৃত্বের স্বাদ পেতে তৈরি আট সন্তানের জননী।

Mom of eight is pregnant with her own grandchild। Sangbad Pratidin
Published by: Biswadip Dey
  • Posted:April 2, 2022 3:29 pm
  • Updated:April 2, 2022 3:29 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি আট সন্তানের জননী। বয়স ছুঁয়েছে ৫০। এই বয়সে এসে আরেক বার তিনি হয়েছেন অন্তঃসত্ত্বা (Pregnancy)। তাঁর গর্ভে বেড়ে উঠছে আরও এক প্রাণ। তবে এবারের ব্যাপারটা আগের সব অভিজ্ঞতার থেকে আলাদা। কেননা এবার তাঁর গর্ভে যে বেড়ে উঠছে সে তার সন্তান নয়, নাতনি! তিনি চ্যালিস স্মিথ। মার্কিন (US) এই প্রৌঢ়া আগামী মে মাসে যে ফুটফুটে শিশুটিকে জন্ম দেবেন সে আসলে তাঁর মেয়ে কেটলিনের সন্তান।

কেটলিন চ্যালিসের মেজো মেয়ে। বছর চব্বিশের এই তরুণী ভুগছেন এন্ডোমেট্রিওসিসের মতো জটিল অসুখে। পাশাপাশি আরও একটি এমন অসুখ রয়েছে তাঁর, যার জেরে এক সন্তানের মা কেটলিনের পক্ষে আর সন্তানধারণ সম্ভব নয়। এই পরিস্থিতিতে মেয়ের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন চ্যালিস। তিনিই হয়েছেন তাঁর মেয়ের সন্তানের ‘সারোগেট’ (Surrogacy) মা।

[আরও পড়ুন: প্রাক্তন স্বামীকে দিতে হবে খোরপোশ, মহিলাকে নজিরবিহীন নির্দেশ বম্বে হাই কোর্টের]

গত সেপ্টেম্বরে মেয়ের সন্তানকে গর্ভে ধারণ করেছেন চ্যালিস। মে মাসে ভূমিষ্ঠ হওয়ার কথা তাঁর নাতনির। কেটলিন ও তাঁর স্বামী মিগুয়েল তাঁদের ২ বছরের পুত্র ক্যালাহানের সঙ্গে অপেক্ষা করছেন সেই সময়টার। নিজের জীবনের কথা বলতে গিয়ে কেটলিন জানিয়েছেন, ”আমি চেষ্টা করেছিলাম দ্বিতীয়বার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার। কিন্তু কিছুতেই সন্তান আসছিল না।”

আসলে ক্যালাহানের জন্মও হয়েছিল আইভিএফ পদ্ধতিতে। কিন্তু সেবারই ওই জটিল অসুখ ধরা পড়ে। ফলে কেটলিন বুঝে যান, এরপর আর তাঁর পক্ষে কারও জন্ম দেওয়া সম্ভব না। অথচ তিনি বরাবরই চেয়েছেন তাঁর পরিবার হবে বড়। এই পরিস্থিতিতেই মুশকিল আসান হয়ে দেখা দিয়েছেন তাঁর জন্মদাত্রী চ্যালিস। যদিও প্রথম প্রথম এই প্রস্তাবে কেটলিন বেশ অবাকই হয়েছিলেন। তবে শেষ পর্যন্ত সেটি মেনে নেন তিনি। আপাতত সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা চ্যালিসও মুখিয়ে রয়েছেন নাতনির মুখ দেখতে।

[আরও পড়ুন: অপরাধ দমনে কড়া মধ্যপ্রদেশ, গুঁড়িয়ে দেওয়া হল নাবালিকাকে গণধর্ষণে অভিযুক্ত ধর্মগুরুর বাড়ি]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ