BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

Dream11-এর উপরও জারি নিষেধাজ্ঞা! নয়া রিপোর্ট ঘিরে চাঞ্চল্য

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 29, 2020 6:31 pm|    Updated: September 30, 2020 3:28 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আবহে প্রায় ছ’মাস পর ফিরেছে ক্রিকেট। সেই সৌজন্যেই মুখে হাসি ফুটেছে ফ্যান্টাসি ক্রিকেটপ্রেমীদের মুখে। আইপিএলের টাইটেল স্পনসর Dream11-এ নিজেদের দল বানিয়ে প্রচুর আয় করছেন অনেকেই। কিন্তু এক্ষেত্রে অন্ধ্রপ্রদেশের ছবিটা আলাদা। শোনা যাচ্ছে, সেখানে নাকি নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে Dream11।

Gulte নামের একটি ওয়েবসাইটের খবর অনুযায়ী, অন্ধ্রপ্রদেশে জনপ্রিয় এই অ্যাপটি বন্ধেরই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। কিন্তু কেন এমন সিদ্ধান্ত? কোম্পানির তরফে বলা হয়েছে, সম্প্রতি সে রাজ্যের গেমিং আইনে বেশ কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে। আর সেই কারণেই এই অ্যাপের মাধ্যমে প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে টাকা জেতা যাবে না। শুধু ড্রিম ইলেভেনই নয়, ইতিমধ্যেই সে রাজ্যে রামি (Rummy), পোকারের (Poker) মতো জনপ্রিয় অনলাইন গেমগুলি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এবার সেই তালিকায় ঢুকে পড়ল Dream11ও। যদিও এই অ্যাপ সংস্থার তরফে কোনও অফিসিয়াল নোটিস দেওয়া হয়নি বলেই খবর। তবে ওয়েবসাইটের রিপোর্ট বলছে, অন্ধ্রের ক্রিকেটপ্রেমীরা অ্যাপটি খুললেই স্ক্রিনে ভেসে উঠছে নিষেধাজ্ঞার নোটিস।

[আরও পড়ুন: ব্যাংকের তরফে হোয়াটসঅ্যাপ কল বা মেসেজ আসছে? গ্রাহকদের সাবধান করল SBI]

বাইশ গজের লড়াইয়ের মতোই প্রযুক্তি নির্ভর প্রজন্মের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ফ্যান্টাসি ক্রিকেট। বাড়ি বসে মগজ খাটিয়ে দল সাজাতে পারলেই ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ঢুকে যায় টাকা। এ নিয়ে বিজ্ঞাপনেরও ছড়াছড়ি। মহেন্দ্র সিং ধোনি থেকে বিরাট কোহলি, অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি থেকে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, সকলেই এই ধরনের অনলাইন গেমের প্রচারে শামিল। তাই অ্যাপগুলি সাধারণের দৃষ্টি আকর্ষণও করেছে দ্রুত। কিন্তু অন্ধ্র সরকারের দাবি, যুবপ্রজন্মের ভবিষ্যেতর সুরক্ষার কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তেলেঙ্গানায় অবশ্য অনেক আগে থেকে নিষিদ্ধ এইসব অনলাইন গেম। সম্প্রতি শোনা গিয়েছে, নাগাল্যান্ড, অসম ও সিকিমেও এই গেম থেকে অর্থ উপার্জন করার উপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। অর্থাৎ ফ্রি ভার্সানটি খেলার অনুমতি আছে মাত্র। তবে অন্ধ্র সরকারের সিদ্ধান্ত মন খারাপ Dream11 ইউজারদের। আইপিএলে (IPL 2020) দেখতে পেলেও দল সাজিয়ে আর আয় করার উপায় নেই।

[আরও পড়ুন: ‘অন্তঃসত্ত্বার জন্য বেশিই উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচ’, বিরাট-রোহিত লড়াই দেখে নাভিশ্বাস উঠল অনুষ্কার!]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement