৫ আষাঢ়  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: OMG! বিজেপি দিল্লির অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে গোমাংসের রেসিপি! অবাক কাণ্ড! এমনটাও সম্ভব? রীতিমতো হকচকিয়ে যাওয়ার মতোই ঘটনা। ব্যাপারটা কী? একদিকে বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতি ভবনে যখন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দ্বিতীয়বার শপথ নিচ্ছেন নরেন্দ্র মোদি, তখনই ঘটল এমন ঘটনা।

বিজেপির ওয়েবসাইটের হোমপেজ থেকে উধাও BJP শব্দটি। সেখানে বড়বড় করে লেখা BEEF। অর্থাৎ গোমাংস। বদলে গিয়েছে মেনু বার এবং অন্যান্য পেজের নামও। অ্যাবাউট বিজেপি পালটে পরিণত হয়েছে অ্যাবাউট বিফ-এ। এমনকী বিজেপি হিস্ট্রি বদলে হয়ে গিয়েছে BEEF History-তে। ধন্দ কাটল প্রথম পেজের একটি লেখা দেখে। উল্লেখ রয়েছে ওয়েবসাইটটি হ্যাক করা হয়েছে। হ্যাকারের নাম Shadow_V1P3R। ওয়েবসাইট জুড়ে গোমাংসের ছবি এবং বিভিন্ন ডিশের রেসিপি। এরপরই দেখা যায়, বিজেপির তরফে লেখা হয়েছে, “ওয়েবসাইটে বিঘ্ন ঘটায় দুঃখিত। দ্রুত বিষয়টি ঠিক করার চেষ্টা করা হচ্ছে। আমরা খুব তাড়াতাড়ি ফিরছি।” সেই ঘটনার বেশ খানিকক্ষণ পর আবার চালু হয় ওয়েবসাইট।

BJP

গোরক্ষার তাগিদে দেশজুড়ে বিজেপি সমর্থকদের তাণ্ডবের একাধিক ঘটনা সামনে এসেছে। বহু রাজ্যে গোমাংস বন্ধ করার দাবিতে বহুবার সরব হয়েছেন সমর্থকরা। এমনকী, গোহত্যা রুখতে নির্বিচারে চলেছে মারধর, অত্যাচার। সেখানে বিজেপির ওয়েবসাইট হ্যাক করে গোমাংসের রেসিপি ছড়িয়ে দেওয়ার মধ্যে রাজনৈতিক সংঘাতই দেখছে ওয়াকিবহাল মহল। অনেকের মতে, মোদি তথা বিজেপি বিরোধী হ্যাকাররাই ‘উচিত শিক্ষা’ দিতে এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে।

[আরও পড়ুন: জঘন্য পরিষেবা, ৩২৯ জন যাত্রীকে ৪৮ ঘণ্টা অপেক্ষা করাল এয়ার ইন্ডিয়া]

উল্লেখ্য গত ৫ মার্চও বিজেপির ওয়েবসাইটটি হ্যাক করা হয়েছিল। তারপর এপ্রিলে নতুন চেহারায় ফেরে ওয়েবসাইট। সেই সময়ও বিজেপির তরফে একইরকম বার্তা দেওয়া হয়েছিল। বলা হয়েছিল, শীঘ্রই ফিরবে তারা। তৎকালীন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী রবি শংকর প্রসাদ সেসময় জানিয়েছিলেন, তাঁদের ওয়েবসাইটটি হ্যাক করা হয়েছিল।

BJP

[আরও পড়ুন: রেস্তরাঁর রান্নাঘরে স্নান করছেন কর্মী! ভিডিও ভাইরাল হতেই শুরু তুমুল বিতর্ক]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং