১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এবার প্রতিটি UPI লেনদেনেও গুনতে হবে গাঁটের কড়ি? আরবিআইয়ের প্রস্তাব ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে

Published by: Biswadip Dey |    Posted: August 21, 2022 11:56 am|    Updated: August 21, 2022 11:56 am

RBI is thinking about adding fees to UPI payments। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কার্ডের মাধ্যমে লেনদেনের বিকল্প হিসেবে ক্রমশই জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ইউনিফায়েড পেমেন্টস ইন্টারফেস তথা UPI। এখন দেশের বাইরে থেকেও ডিজিটাল লেনদেনের এক মঞ্চ হিসেবে ব্যবহার করা যাচ্ছে এই পদ্ধতি। ইউপিএ’র বাড়তে থাকা জনপ্রিয়তার অন্যতম কারণ এটি ব্যবহার করা যায় একেবারে নিখরচায়। কিন্তু এবার সেই নিয়মেই সম্ভবত বদল আসতে চলেছে। ইতিমধ্যেই আরবিআই (RBI) এই সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব পেশ করেছে। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি তেমনটাই।

‘ডিসকাশন পেপার অন চার্জেস ইন পেমেন্ট সিস্টেম’ শীর্ষক ওই প্রস্তাবে ইউপিআইয়ের প্রতিটি লেনদেনের জন্য এবার থেকে চার্জ কাটার বিষয়ে চিন্তাভাবনা শুরুর কথা বলা হয়েছে। ইউপিআই পরিকাঠামো নির্মাণ ও তা চালানোর যে খরচ, তা তুলতেই এই পরিকল্পনা বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। আরবিআই জানাচ্ছে, আইএমপিএস তথা ইনস্ট্যান্ট পেমেন্ট সার্ভিসেরই সমতুল ইউপিআই। সেই হিসেবে আইএমপিএসের জন্য ধার্য চার্জ কাটা উচিত ইউপিআইয়ের ক্ষেত্রেও। এই বিষয়ে আরবিআই ওই প্রস্তাবনায় জানিয়েছেন, ‘বিনামূল্যে পরিষেবার কোনও যুক্তি নেই বিশেষত অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের ক্ষেত্রে, যার মধ্যে পেমেন্ট সিস্টেমও রয়েছে, যদি না তাতে দেশ ও জাতির কল্যাণের মতো কোনও বিষয় থাকে।’

[আরও পড়ুন: ‘৫ জনকে পিটিয়ে মেরেছি’, প্রকাশ্যে ক্যামেরায় আস্ফালন বিজেপি নেতার, তোপ কংগ্রেসের]

প্রসঙ্গত, দিনে দিনে জনপ্রিয়তা বাড়ছে ইউপিআইয়ের। একটি পরিসংখ্যান বলছে শুধুমাত্র মে মাসেই প্রায় ৬০০ কোটি ট্রানজাকশন হয়েছে এর মাধ্যমে, টাকার অঙ্কে ১০.৪ লক্ষ কোটিরও বেশি। সব মিলিয়ে ডিজিটাল লেনদেনের জগতে কার্যত বিপ্লব এনেছে ইউপিআই। ২০২১ সালের ডিসেম্বরে দুই প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী ‘ফোনপে’ এবং ‘জিপে’, যথাক্রমে ৪৭ শতাংশ এবং ৩৪ শতাংশ বাজার নিজেদের কুক্ষিগত করে। এরপর গত আট মাসে লড়াই আরও জোরদার হয়েছে। এখন চলে এসেছে আরও দুই বৃহৎ, বহুজাগতিক প্লেয়ার- ‘হোয়াটসঅ্যাপ পে’ এবং ‘অ্যামাজন পে’।

এদিকে ডেবিট কার্ডের লেনদেনের উপরেও চার্জ ধার্য করতে চাইছে আরবিআই। তবে এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরামর্শ সকলেই যাতে সেই খরচ বহন করতে পারেন, সেই দিকটিও বিবেচনা করা হবে। সব দিক খতিয়ে দেখে ডেবিট কার্ড পিছু একটি নির্ধারিত মূল্য ধার্য করা হতে পারে।

[আরও পড়ুন: ব্রাহ্মণদের নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য, প্রভাবশালী নেতাকে বহিষ্কার করল বিজেপি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে