৮ মাঘ  ১৪২৬  বুধবার ২২ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৮ মাঘ  ১৪২৬  বুধবার ২২ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মার্কিন মুলুকের সেই হিন্দু-মুসলিম সমকামী তরুণী জুটির কথা মনে আছে? যাঁদের চুম্বনের ছবি এককালে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলেছিল? সেই কাপল ফের শিরোনামে। তবে এবার কারণটা একটু অন্য। এবার এই ভালবাসার জুটির একটি ভিডিও সরিয়ে দিল টিকটক। আর তাতেই ক্ষুব্ধ তাঁরা। কোনওরকম হিংসাত্মক বা অশালীন কনটেন্ট না থাকা সত্ত্বেও কেন জনপ্রিয় অ্যাপটি তাঁদের ভিডিও মুছে দিল, সেই নিয়েই সরব হয়েছেন দুই সুন্দরী তরুণী।

সোশ্যাল মিডিয়ায় জুটি বেঁধে মাঝেমধ্যেই মজার মজার ভিডিও পোস্ট করেন পাকিস্তানের সান্দাস মালিক এবং ভারতীয় বংশোদ্ভূত অঞ্জলি চক্র। সম্প্রতি তেমনই একটি ভিডিও জনপ্রিয় টিকটক অ্যাপে পোস্ট করেছিলেন তাঁরা। কিন্তু অঞ্জলি জানান, সেটি পোস্ট করার খানিক পরেই সরিয়ে দেওয়া হয়। অঞ্জলি জানান, অ্যাপ কর্তৃপক্ষের তরফে বলা হয়েছে, ভিডিওটি তাদের পলিশি বিরুদ্ধ। সেই কারণেই তা সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন ওঠে, কী এমন পোস্ট করলেন তাঁরা?

[আরও পড়ুন: ইন্টারনেটে নিষেধাজ্ঞার জের, কাশ্মীরে বন্ধ হল হোয়াটসঅ্যাপ]

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, দুই সমকামী বান্ধবী পাশাপাশি দাঁড়িয়ে নাচের তালে কোমর দোলাচ্ছেন। খানিক পরই তাঁদের পোশাক বদলে গেল। না, সে পোশাককে অবশ্য তথাকথিত অশালীন পোশাকও বলা যাবে না। তা একেবারেই ট্র্যাডিশনাল পোশাক। দিন কয়েক আগে ওই একই ভিডিও তাঁরা টুইটারেও পোস্ট করেছিলেন। অথচ টিকটক তা সরিয়ে নেওয়ায় বেশ বিরক্ত এই সোশ্যাল মিডিয়া তারকাজুটি। অঞ্জলি লেখেন, “টিকটক এই ভিডিওটি ডিলিট করে দিয়েছে। বলেছে, এটি তাদের গাইডলাইনের বিরুদ্ধে। অর্থাৎ সমকামিতা নিয়ে তাদের মধ্যে ছুৎমার্গের যে গুজব রয়েছে, তা একেবারে সত্যি।” টিকটকের কাছ থেকে এনিয়ে জবাবদিহিও চেয়েছেন তিনি।

টিকটক এখনও পর্যন্ত কোনও প্রতিক্রিয়া না দিলেও নেটিজেনরা দুই সমকামী বান্ধবীর পাশে দাঁড়িয়েছেন। তাঁদের সমর্থন জানিয়ে টিকটককে একহাত নিয়েছেন নেটদুনিয়ার বাসিন্দারা। অনেকেই বলছেন, এমন ভিডিও ডিলিট করে তারা নিজেদেরই ক্ষতি করল। বলেন, “এমন আরও নানা ভিডিও পোস্ট করতে থাকুন।”

[আরও পড়ুন: দাম বাড়লেও অন্যদের থেকে কমেই মিলবে জিওর পরিষেবা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং