৩১ আষাঢ়  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারত সংস্কৃতির পীঠস্থান। কিন্তু আধুনিক ভারতে এর সন্ধান পাওয়া দুষ্কর। প্রাচীন ভারতকে চিনতে গেলে যেতে হবে এমন কয়েকটি স্থানে যেখানে আজও সকাল শুরু হয় গঙ্গা পুজো করে। সন্ধ্যাকে স্বাগত জানানো হয় আরতির মাধ্যমে। শুধু কাশীর দশাশ্বমেধ ঘাটে নয়। এমন পরিবেশ রয়েছে আরও অনেক জায়গাতেই।

অযোধ্যা:  রামায়ণ জানেন না এমন মানুষ বোধহয় নেই৷ তাই অযোধ্যার কথা আর কাউকেই বেশি ব্যাখ্যা করার প্রয়োজনও আছে বলে মনে হয় না৷ তাই প্রাচীন ভারতকে জানতে আপনার গন্তব্য হতেই পারে অযোধ্যা৷ বিকালের দিকে বেশ কিছুটা সময় কাটাতে পারেন ভাটকুন্ড এবং সরযূ নদীর ধারেও৷ এছাড়াও আপনি যেতে পারেন ফৈজাবাদ, বিথুর, জৈনপুর, বারাণসী, প্রতাপগড় ও বাস্তি-সহ একাধিক জায়গায়৷ যাওয়া ও থাকার খরচও অতি সামান্যই৷ তাই দেরি না করে পুজোর মরশুমেই বরং ঘুরে আসুন অযোধ্যা থেকে৷

[পাহাড়ের কোলে নিরালার খোঁজে পাড়ি জমান লালটিব্বায়]

পুষ্কর: ব্রহ্মার মন্দির ও জলাশয়ের জন্য পর্যটকদের কাছে বিখ্যাত পুষ্কর৷ ব্যস্ততা ভুলে শান্তিতে বেশ কিছুটা সময় কাটাতে চাইলে, আপনার ডেস্টিনেশন হতে পারে এই জায়গা৷ পুষ্কর থেকে আপনি যেতেই পারেন রাজস্থানের একাধিক জায়গায়৷ এক ফাঁকে বেড়িয়ে আসতেই পারেন আজমের, জয়পুর৷ দিনকয়েকের ছুটিতে এই ট্যুর আপনার মন ভাল করতে বাধ্য৷

[পুজোয় রাজবাড়ির আতিথ্য পেতে চলে আসুন মহিষাদলে]

বুদ্ধ গয়া:  হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের কাছে বুদ্ধ গয়ার তাৎপর্য এক্কেবারেরই অন্যরকম৷ অন্যত্র পবিত্র জায়গা হিসাবেই ধরা হয় এই জায়গাটিকে৷ আপনার পরিবারের বয়স্ক সদস্যটিও নিশ্চয়ই আধ্যাত্মিক মনোভাবাপন্ন৷ তাই তাঁকে নিয়ে পুজোর ছুটিতে বেড়িয়ে আসুন বুদ্ধ গয়া থেকে৷ একইসঙ্গে বারাণসী ও পাটনা থেকেও বেড়িয়ে আসতে পারেন আপনি৷

দ্বারকা: গোমতী ঘাটে গিয়ে গঙ্গার শোভা দেখতে চাইলে, আপনাকে দ্বারকা যেতেই হবে৷ একাধিক মন্দিরে মন্দিরে সাজানো এলাকা দ্বারকা৷ শান্ত এই শহর আপনার মন ভাল করতে বাধ্য৷ কৃষ্ণ মন্দির, দ্বারকা মন্দির, সুদামা সেতু, গাগা বন্যপ্রাণী সংরক্ষণালয় ছাড়াও বহু দর্শনীয় স্থান রয়েছে এখানে৷ কম বাজেটে একাধিক জায়গা বেড়ানোর পরিকল্পনা থাকলে, দ্বারকায় আপনাকে যেতেই হবে৷

[অন্য নীলগিরি দেখতে চান? ঘুরে আসুন কোটাগিরি থেকে]

পুরী:  আপনি যদি জগন্নাথদেবের ভক্ত হন, তবে বেড়িয়ে আসতে পারেন পুরী থেকে৷ একদিকে সমুদ্র অন্যদিকে জগন্নাথদেবের মন্দির, আপনার পরিবারের আট থেকে আশি প্রত্যেক সদস্যের ভাল লাগার জন্য আদর্শ পুরী৷ ট্রেনপথে অনায়াসেই ঘুরে আসতে পারেন ওড়িশার এই জায়গাটি থেকে৷ সবচেয়ে কম খরচে বেড়িয়ে আসার জন্য পুরীর কোনও বিকল্প বোধহয় থাকতেই পারে না৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং