BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনে বন্ধ মন্দিরের বাইরেই চার হাত এক যুগলের, অদ্ভুত বিয়ের সাক্ষী আসানসোল

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 30, 2020 3:29 pm|    Updated: April 30, 2020 3:29 pm

An Images

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল: লকডাউনের জেরে বন্ধ মেলামেশা। ডেটিং নেই, একসঙ্গে সিনেমা দেখা নেই, শপিং মলে ঘোরার উপায় নেই। কলেজ টিউশন বন্ধ থাকায় প্রেমিকের সঙ্গে দেখা সাক্ষাতও বন্ধ। এই পরিস্থিতিতে বাড়ি থেকে পালিয়ে একসঙ্গে দেখা করে বিয়ে সেরে ফেললেন প্রেমিক যুগল। মন্দির বন্ধ, পুরোহিত নেই। ফুরসত নেই তাই বন্ধ মন্দিরের দরজার সামনেই যুবক সিঁদুর পরিয়ে দিলেন যুবতীর সিঁথিতে। ব্যস হয়ে গেল বিয়ে!

লকডাউনে অদ্ভুত বিয়ের সাক্ষী থাকলেন আসানসোলে ইসমাইল ভীমপাড়ার বাসিন্দারা। স্থানীয় যুবক করণ বাল্মিকী বিয়ে করলেন কল্যাণপুরের তনুজাকে। বিয়ের সময় না মানা হয়েছে সামাজিক দূরত্ব, না ছিল মুখে মাস্ক। বিয়ে দেখতে ভিড় জমে যায় এলাকায়। ভেঙে যায় লকডাউন। আসানসোল জেলা হাসপাতালে অ্যাম্বুল্যান্সের খালাসি করণ বাল্মিকী। তাঁর প্রেম ছিল কল্যাণপুরের তনুজার।

[আরও পড়ুন: সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ফল খাচ্ছে বাঁদর! ভাইরাল ছবি দেখে অবাক নেটিজেনরা]

মেয়ের বাড়ির লোক বিয়েতে রাজি ছিলেন না। ফলে নজরদারির মধ্যেই কাটছিল তনুজার জীবন। গোদের ওপর বিষফোঁড়া হয়ে যায় করোনা সংক্রমণের জেরে লকডাউন। বন্ধ হয়ে যায় মেলামেশা। তবে লকডাউনের প্রায় দেড়মাসের মাথায় চরম পরিণতি পেল যুগলের প্রেম। এদিন আসানসোলের ভাড়া বাড়িতে চলে যায় দুজন।

[আরও পড়ুন: কেক নিয়ে বাড়ির সামনে হাজির পুলিশ, জন্মদিনের সারপ্রাইজে চোখ ভিজল বৃদ্ধর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement