৪ আশ্বিন  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রান্নাঘর থেকে বাথরুম পুরোটাই সোনায় মোড়া, পুলিশ অফিসারের কীর্তিতে হতবাক সকলে

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: July 24, 2021 3:50 pm|    Updated: July 24, 2021 9:13 pm

Golden Toilet Found in Traffic Cop’s Lavish Mansion During Bribery Probe, Video Goes Viral | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দুর্নীতিতে যুক্ত পুলিশ আধিকারিক। অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নামে পুলিশ। কিন্তু বাড়িতে তল্লাশি চালাতে গিয়েই চক্ষু চড়কগাছ পুলিশের। গোটা বাড়ি যেন সোনায় মোড়া। এমনকী বাদ যায়নি বাথরুমও। একজন সাধারণ পুলিশ অফিসারের এরকম রাজপ্রাসাদ দেখেই হতচকিত অন্যান্যরা। শুনতে অবাক লাগলেও সম্প্রতি রাশিয়ায় (Russia) সামনে এসেছে এরকমই এক পুলিশ অফিসারের কীর্তি। যা সামনে আসতে অনেকেই অবাক হয়েছেন।

সাধারণত আরব বা মধ্য প্রাচ্যের দেশগুলির ক্ষেত্রে দেখা যায়, কারওর গাড়ি সোনায় মোড়া, কারওর আবার বাড়ির প্রতিটি আসবাবপত্র। সেদেশে অনেকেই কোটিপতি হওয়ায়, এটা খুবই সাধারণ একটি ঘটনা। কিন্তু রাশিয়ার স্ট্যাভ্রপল অঞ্চলের পুলিশ কর্নেল আলেক্সি সাফোনভের বাড়ি যে এরকম হবে তা অনেকেই ধারনা করতে পারেননি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, বাড়ির শৌচাগার ঝকঝকে করে সাজানো, কমোডের বসার জায়গাটিও সোনা দিয়ে তৈরি। শোওয়ার ঘরটিও বিলাসবহুল। বাথরুম এবং শোওয়ার ঘরের পাশাপাশি রান্নাঘরও সোনায় মোড়া। আর এই সবটাই হয়েছে ঘুষ নিয়ে এবং মাফিয়া গ্যাং চালিয়ে। আর এই গুরুতর অভিযোগেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে আলেক্সি সাফোনভ-কে।

[আরও পড়ুন: পণে কচ্ছপ ও বিদেশি কুকুর চাওয়ায় বিপাকে বরপক্ষ, থানায় দায়ের অভিযোগ]

রুশ তদন্ত কমিটি দক্ষিণে স্ট্যাভ্রপল অঞ্চলের বাড়ি থেকেই সাফোনভ ও আরও ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে। তারপরই ওই পুলিশ অফিসারের বিলাসবহুল বাড়ির ছবি প্রকাশ্যে এসেছে, যা দেখে চোখ কপালে উঠেছে সকলের। পুরো বাড়ি জুড়ে শুধুই সোনা আর সোনা। বাথরুমেই প্রচুর অর্থ ব্যয় করেছে সে। সোনার কমোডের পাশাপাশি রয়েছে দামি আয়না, ডাবল-এন্ড স্নানের সরঞ্জাম-সহ বহু চমত্কার জিনিসপত্র। শয়নকক্ষের দেওয়াল সোনা দিয়ে বাঁধানো ওয়ালপেপারে মোড়া। রয়েছে ভারী পর্দা এবং একটি বিলাসবহুল বিছানা। রান্নাঘরের মেঝেটি মার্বেলের এবং একটি সোনার নকশা করা একটি ঝাড়বাতি রয়েছে। বাড়ির সিলিং, সিঁড়ির রেলিং এবং দেওয়ালে সোনার কাজ রয়েছে। একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, ৪৫ বছর বয়সি আলেক্সি সাফোনভ গাড়িচালকদের কাছ থেকে তোলা আদায় করত এবং ঘুষ নিত। আরও ৩৫ জন পুলিশ অফিসারকে নিয়ে সে এক মাফিয়া বাহিনী তৈরি করেছিল। তারা ঘুষের বিনিময়ে শস্যবাহী গাড়িগুলিকে অনুমোদন দিত। রুশ দুর্নীতি দমন শাখার তদন্তকারীরা এখন পর্যন্ত প্রায় ২.০৪ কোটি টাকা ঘুষ নেওয়ার প্রত্যক্ষ প্রমাণ পেয়েছে এবং ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তও চলছে।

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: ধেয়ে আসছে মশাদের ঘূর্ণিঝড়, আতঙ্কে কাঁপছে রাশিয়ার একাধিক এলাকা, দেখুন ভিডিও]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

×