Advertisement
Advertisement
Indonesia

‘জুরাসিক’ যুগ! আচমকা ট্রাকের পথ আটকাল ভয়ংকর কোমোডো ড্রাগন, ভাইরাল হাড়হিম করা ছবি

ভয়াবহ এই প্রাণীটি একমাত্র ইন্দোনেশিয়ার বাসিন্দা।

Komodo Dragon appears infront of the truck in Indonesia's island, the photo goes viral| Sangbad Pratidin
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:October 27, 2020 3:29 pm
  • Updated:October 27, 2020 3:34 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যে প্রাণীর নামে আজও ভয়ে কাঁপে তামাম দুনিয়া, আচমকা সেই প্রাণীকে চোখের সামনে দেখলে পিলে চমকে যাওয়ার দশা। ঠিক তেমনটাই হল ইন্দোনেশিয়ার (Indonesia) দুই ট্রাক চালকের। আচমকাই ট্রাকের পথরোধ করে দাঁড়াল ভয়ংকর এক কোমোডো ড্রাগন। নাক ফুলিয়ে গর্জন আর ধারালো দাঁতের ফাঁকে জিভ বের করে ফোঁসফোঁস। চোখের সামনে তখন যেন হুবহু ‘জুরাসিক পার্ক’-এর দৃশ্য! ইন্দোনেশিয়ার রিংকা আইল্যান্ডের এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তে মুহূর্তে ভাইরাল। ছবি দেখেই অনেকে শিউড়ে উঠে চোখ সরিয়ে নিচ্ছেন। 

Indonesia

Advertisement

কোমোডো ড্রাগন (Komodo Dragon)। বলা হয়, বিশ্বের সবচেয়ে বড় সরীসৃপ। অন্তত ১০ ফুট লম্বা, ধারালো দাঁত, চেরা লম্বা জিভ। দাঁতে শুধু ক্ষুরের ধারই নেই, রয়েছে বিষও। ‘জুরাসিক পার্ক’-এ দেখা ডায়নোসরদের সঙ্গে অনেকাংশেই মিল খুঁজে পাওয়া যায় এই কোমোডো ড্রাগনদের। এই প্রজাতির বয়সও অনেক।

Advertisement

[আরও পড়ুন: মুখ ভরতি ছিদ্র, কপালে শিং! গিনেস বুকে নাম তুললেন ভয়াবহ চেহারার জার্মানির এই ব্যক্তি]

ইদানিং একমাত্র ইন্দোনেশিয়ার গুটিকয়েক দ্বীপে এদের অস্তিত্ব রয়েছে। এছাড়া পৃথিবীর আরও কোথাও এদের দেখা মেলে না। সংখ্যা মেরেকেটে হাজার তিনেক। এই ৩০০০ প্রাণীকে বাঁচিয়ে রাখতে সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়া প্রশাসন উদ্যোগী হয়েছে। সে দেশের পরিবেশ মন্ত্রক কোমোডো ড্রাগনদের বাসস্থান সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত নিয়ে ওই দ্বীপগুলিতে ইতিমধ্যেই পর্যটকদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে। এতে পর্যটক এবং বিশালাকার প্রাণী – উভয়ের সুরক্ষাই নিশ্চিত করা যাবে বলে তাদের ধারণা।

Indonesia

ইন্দোনেশিয়ার রিংকা দ্বীপ কোমোডো ড্রাগনদের দ্বিতীয় পছন্দের বাসস্থান। এছাড়া যে দ্বীপে তারা সর্বাধিক সংখ্যায় থাকে, তাদের নামে ওই দ্বীপটির নামকরণ হয়েছে – কোমোডো আইল্যান্ড। গত সপ্তাহান্তে ওই রিংকা দ্বীপেই কোনও নির্মাণকাজের জন্য সামগ্রী নিয়ে যাচ্ছিল একটা ট্রাক। আচমকাই পথ রোধ করে চোখের সামনে উদয় হয় বিশালাকার প্রাণীটি। ড্রাগনের গর্জন আর ফোঁসফোঁসানি দেখে ট্রাকচালকদের তখন থরহরিকম্প দশা। এই দৃশ্য দেখে নিরাপদ দূরত্ব থেকে কেউ একজন ছবিটি তুলেছিলেন। তারপর সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতেই নিমেষে তা ভাইরাল।

[আরও পড়ুন: দেবতা দর্শনে সটান মন্দিরের ভিতর! পুরোহিতের নির্দেশ পেতেই ডেরায় ফিরে গেল ‘সংস্কারী’ কুমির]

বন্যপ্রাণ সংরক্ষকদের একাংশের মতে, ট্রাকের শব্দ এবং জ্বালানির ধোঁয়া সহ্য করতে না পেরেই ডেরা থেকে বেরিয়ে রাস্তায় চলে এসেছে। এমনটা এই প্রথম। এরপরই প্রশাসনের উদ্দেশে তাঁদের তীব্র কটাক্ষ, কোমোডো ড্রাগনদের বাসসস্থান সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত নিয়েও সেখানে নির্মাণকাজ কেন? এই ছবি দেখিয়ে তাঁরা বলতে চাইছেন, ঘটনা থেকে শিক্ষা নিক প্রশাসন।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ