BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পাদ্রী আশীর্বাদ দেওয়ার জন্য হাত তুলতেই ‘হাই-ফাইভ’ খুদের, মিষ্টি ভিডিওয় মুগ্ধ নেটিজেনরা

Published by: Suparna Majumder |    Posted: October 24, 2020 9:39 am|    Updated: October 24, 2020 9:42 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মন্ত্র পড়ে আশীর্বাদ করার জন‌্য ফাদার হাত ওঠাতেই তাঁর হাতের তালুতে সপাটে মেরে হাই-ফাইভ দিল এক খুদে। আশীষ দেবেন কি! গির্জার ভিতরে বালিকার এই কাণ্ড দেখে ফিক করে হেসেই ফেললেন ফাদার। তারপর ফের মুখে ফিরিয়ে আনলেন গির্জার গাম্ভীর্য। মেয়ের কীর্তি দেখে মা ততক্ষণে লজ্জায় অস্থির। তাড়াতাড়ি সন্তানের হাত নিজের হাতে নিয়ে চেপে ধরলেন। তখন আবার শিশুটির মাথায় হাত রেখে আশীর্বাদ সম্পন্ন করলেন ফাদার। ভিডিওটি সোশ‌্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন আমেরিকার জনপ্রিয় প্রাক্তন বাস্কেটবল খেলোয়াড় রেক্স চ‌্যাপম‌্যান (Rex Chapman)।  তবে আমেরিকার কোন জায়গার গির্জায় এমন মজাদার ঘটনা ঘটেছে তার উল্লেখ তিনি করেননি। ভিডিওর ক‌্যাপশনে তিনি লিখেছেন, “ফাদার আশীর্বাদ করার জন‌্য হাত বাড়াতেই মেয়েটি নিষ্পাপভাবে তাঁর হাতে হাই-ফাইভ করে দিয়েছে।”

 

[আরও পড়ুন: পদবি ‘‌করোনা’‌, অন্যদের বিশ্বাস করাতে সঙ্গে পাসপোর্ট নিয়ে ঘুরছেন এই ব্যক্তি]

এই মজার ভিডিও দেখে নেটিজেনরা হেসেই খুন। টুইটারে ভিডিওটির নিচে হাজার হাজার মানুষ শিশুটির নিষ্পাপ স্বভাবের প্রশংসা করেছে। একজন লিখেছেন, “শিশুটির দোষ কোথায়! এখনকার শিশুদের শেখানো হয় কেউ হাতের পাঁচ আঙুল জোড়া করে তার দিকে হাত এগিয়ে দিলেই পালটা তালি দিতে নিজের হাতও সেভাবেই তার দিকে এগিয়ে দিতে হয়।”

নেটিজেনদের অনেকের ধারণা, সাদা গাউন, সাদা মাস্ক পরা বালিকাটি গির্জার রীতির সঙ্গে পরিচিত নয়। হয়তো সে প্রথম কোনও গির্জায় গিয়ে পাদ্রীর মুখোমুখি হয়েছে। তাই স্কুল-বাড়িতে বন্ধুদের হাই-ফাইভ দিতে অভ‌্যস্ত তার মনে হয়েছে, ফাদারও তাকে হাই-ফাইভ দিয়ে তালি মারতে আসছেন। ভিডিওটি সোশ‌্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর সেটি ২২ লাখেরও বেশি দর্শক দেখেছেন। লাইক পড়েছে ২৮,৯০০। রি-টু‌ইট হয়েছে ৬,৩০০ বার।

সোশ‌্যাল মিডিয়ায় অনেকেই তাঁদের নিজেদের সন্তানের এমন নানা কীর্তির কথা শেয়ার করেছেন। কেউ আবার লিখেছেন, “বাচ্চা মেয়েটি ও তার মা মাস্ক পরেছেন। কিন্তু ফাদারের মুখে মাস্ক নেই। তাঁরও মাস্ক পরা উচিত ছিল।” ফাদারের হেসে ফেলা নিয়ে এক ব‌্যক্তির কমেন্ট, “গির্জার ভিতকে সিরিয়াস মুহূর্তে এমন কিছু ঘটলে সত্যিই হাসি চেপে রাখা কারও পক্ষেই সম্ভব নয়।” আর একজন লিখেছেন, “একটা শিশুর চোখ দিয়ে দুনিয়াটা দেখলে সবকিছুই কিন্তু অসাধারণ লাগে।”

[আরও পড়ুন: দেবতা দর্শনে সটান মন্দিরের ভিতর! পুরোহিতের নির্দেশ পেতেই ডেরায় ফিরে গেল ‘সংস্কারী’ কুমির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement