৩০ আশ্বিন  ১৪২৬  শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হোয়াটসঅ্যাপে নিজের মৃত্যুর ৪০০টি শোকবার্তা পেয়ে হতবাক হয়ে গিয়েছেন মুম্বইয়ের এক সংবাদমাধ্যম কর্মী। ওই ব্যক্তির নাম রবীন্দ্র দুসাঙ্গে। পুলিশের কাছে তিনি এবিষয়ে অভিযোগ দায়ের করলেও এখনও পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।

[আরও পড়ুন- স্রেফ সন্দেহের বশে দেওয়া যাবে সন্ত্রাসবাদী তকমা, লোকসভায় পাশ নয়া বিল]

সম্প্রতি পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বাইরে ঘুরতে গিয়েছিলেন রবীন্দ্র। সেসময় হোয়াটসঅ্যাপে প্রথম তাঁর মৃত্যুতে দুঃখ প্রকাশ করে একটি মেসেজ আসে। বিষয়টিতে প্রথমে গুরুত্ব দেননি তিনি। কিন্তু, তারপর বন্ধুবান্ধব ও আত্মীয়স্বজনদের অনেকে মেসেজ পাঠাতে থাকেন। সেগুলি দেখে রবীন্দ্র মনে করেন, তাঁর মায়ের শরীর খারাপের খবর শুনে সবাই হয়তো এই মেসেজ পাঠাচ্ছে। কিন্তু, গত রবিবার মেসেজের সংখ্যা ৪০০ ছাড়াতেই বিরক্ত হয়ে ওঠেন তিনি। এদিকে মেসেজ পাঠানোর পাশাপাশি অনেক বন্ধু ফোন করে খবর নেন তাঁর শরীরের। কেমন আছেন জানতে চান। পরিবারকে নিয়ে ঘুরতে বেরিয়ে এই ধরনের ঘটনা ঘটায় হতবাক হয়ে ওঠেন রবীন্দ্র।

এরপর রবিবারই তাঁকে ফোন করে সমস্ত ঘটনার খুলে বলেন এক প্রতিবেশী। হোয়াটসঅ্যাপ করে মেসেজটি ভুয়ো বলে জানান রবীন্দ্রের ভাইও। অভিযোগ জানান, ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে দুসাঙ্গের ছবি নামিয়ে সঙ্গে শোকবার্তা লিখে মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন- মধ্যপ্রদেশে উলটপুরাণ, কংগ্রেসে ঝুঁকছেন বিজেপির দুই বিধায়ক!]

গোটা বিষয়টি পুলিশকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। কিন্তু, তারা যথাযথ তদন্ত করছে না। এমনকী এই কাজ কে করতে পারে সে কথাও দুসাঙ্গে পুলিশকে জানিয়েছেন। কিন্তু পুলিশের বক্তব্য, আগে আইটি অ্যাক্টের অধীনে থাকা ৬৬-এ ধারা অনুযায়ী এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া যেত। কিন্তু, এখন সুপ্রিম কোর্ট সেটা বাতিল করে দিয়েছে। তাই পুলিশ জমিনযোগ্য ধারায় মানহানির মামলা দায়ের করা ছাড়া আর কিছুই করতে পারবে না।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং