BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

জনরোষের ভয়! মাথায় হেলমেট পরে পিঁয়াজ বেচছেন বিহারের সরকারি কর্মীরা

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 30, 2019 1:41 pm|    Updated: November 30, 2019 1:52 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিন দিন বাড়ছে পিঁয়াজের দাম। পরিস্থিতি এমন হয়েছে যে দেশে এখন পিঁয়াজের থেকেও সস্তায় বিক্রি হচ্ছে আপেল। কিন্তু, আপেল তো আর পিঁয়াজের কাজে আসে না। তাই পিঁয়াজের দাম নিয়ে চরম সমস্যায় গোটা দেশের মানুষ। চারিদিকে বন্যা আর উৎপাদন কম হওয়ায় দিন দিন দাম বাড়ছে পিঁয়াজের। কিছুদিন আগেও ৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হওয়ায় পিঁয়াজ অনেক জায়গাতেই ১০০ টাকার বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে। তাই তরকারির জন্য পিঁয়াজ কাটা তো দূরের কথা, দাম শুনলেই চোখ দিয়ে জল বেরিয়ে আসছে সাধারণ মানুষের। এই পরিস্থিতি বিভিন্ন রাজ্যে এগিয়ে এসেছে সরকার। কমমূল্যে সীমিত পরিমাণ পিঁয়াজ বিক্রি করা হচ্ছে প্রশাসনের তরফে। বিহারের পাটনাতেও মাত্র ৩৫ টাকা কেজি দরে পিঁয়াজ বিক্রি করছে স্টেট কোঅপারেটিভ মার্কেটিং ইউনিয়ন লিমিটেড। কিন্তু, তা বিক্রির সময় যাতে জনরোষের শিকার না হতে হয় তার জন্য মাথায় হেলমেট পরে কাজ করছেন ওই সংস্থার কর্মীরা। যার ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট হতেই হাসির রোল উঠেছে নেটদুনিয়ায়।

[আরও পড়ুন: ধর্ষকরা যেন আইনি সহায়তা না পায়, আর্তি তেলেঙ্গানায় ধর্ষিতা চিকিৎসকের পরিবারের]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পিঁয়াজের অতিরিক্ত মূল্যবৃদ্ধির কারণে যথেষ্ট চিন্তায় রয়েছে বিহার সরকার। তাই সরকারি উদ্যোগে ন্যূনতম মূল্যে পিঁয়াজ বিক্রি শুরু করেছে তারা। শনিবার সকালে স্টেট কোঅপারেটিভ মার্কেটিং ইউনিয়ন লিমিটেডের অফিসের সামনে সংস্থার কর্মীদের ভ্রাম্যমাণ গাড়ি থেকে পিঁয়াজ বিক্রি করতে গেল। তবে পিঁয়াজের জোগান কম থাকায় জনরোষ তৈরি হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তাঁরা। তাই নিজেদের নিরাপত্তার জন্য মাথায় হেলমেট পরে কাজ করছেন।

পিঁয়াজ কেনার ভিড় সামলাতে ব্যস্ত রোহিত কুমার নামে সরকারি কর্মী বলেন, ‘প্রশাসনের কাছে আবেদন জানানো সত্ত্বেও কোনও নিরাপত্তারক্ষীর ব্যবস্থা করা হয়নি। তাই নিজেদের নিরাপত্তার স্বার্থে আমরা হেলমেট পরে কাজ করছি। গতকাল আরা জেলায় পিঁয়াজ বিক্রির আচমকা ক্ষেপে ওঠে স্থানীয় জনতা। তারপর বিক্রেতাদের লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়ে। এর ফলে অনেকে জখম হয়েছে। কারও কারও মাথাও ফেটেছে। তারপরও কোনও নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে না আমাদের। বাধ্য হয়ে হেলমেট পরেছি।’

[আরও পড়ুন: প্রথম দফার নির্বাচনের দিন ঝাড়খণ্ডে মাওবাদী হামলা, বিস্ফোরণে ভেঙে পড়ল ব্রিজ]

মণীশ নামে আরও এক কর্মী বলেন, ‘আমরা গাড়ি নিয়ে প্রতিটি কলোনিতে গিয়ে পিঁয়াজ বিক্রি করছি। সব জায়গাতেই প্রচুর মানুষ ভিড় করছেন। ফলে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি আমরা।’

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement