BREAKING NEWS

১৬ ফাল্গুন  ১৪২৭  সোমবার ১ মার্চ ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

OMG! পাঁচ মাসে ৩১ বার করোনা পরীক্ষা, প্রতিবারই রিপোর্ট পজিটিভ এই মহিলার

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: January 23, 2021 8:14 pm|    Updated: January 23, 2021 8:14 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত বছর ২৮ আগস্ট প্রথমবার করোনা পরীক্ষা করা হয়েছিল রাজস্থানের (Rajasthan) বাসিন্দা এক মহিলার। সেই রিপোর্ট পজিটিভ আসায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল কোয়ারেন্টাইনে। কিন্তু তারপর থেকে বিগত পাঁচ মাসে আরও ৩১ বার তাঁর করোনা পরীক্ষা হয়। আর আশ্চর্যের বিষয়, প্রতিবারই সেই রিপোর্টও পজিটিভ এসেছে। আর এই খবর সামনে আসতেই অনেকেই অবাকও হয়েছেন। এমনকী হতবাক চিকিৎসকরাও।

জানা গিয়েছে, সারদা নামে ওই মহিলা রাজস্থানের ভরতপুরের (Bharatpur) বাঝেরা গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। কোভিড পজিটিভ (COVID-19 Positive) হওয়ার পরই তাঁকে ভরতপুরের আরবিএম হাসপাতালে ভরতি করা হয়। এরপর ওই মহিলার শারীরিক এবং মানসিক পরিস্থিতি দেখার পর একজনকে সবসময় তাঁর সঙ্গে রাখার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়। পরবর্তীতে অবশ্য কোয়ারেন্টাইনের জন্য তাঁকে ‘আপনা ঘর আশ্রম’-এ পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

[আরও পড়ুন: ৬০ মিনিটে ‘বুলেট থালি’ শেষ করতে পারলে জিতবেন একটি এনফিল্ড বাইক, জানেন কোথায়?]

ওই আশ্রমে থাকার সময়ই পরপর ৩১ বার সারদার করোনা পরীক্ষা হয়। কিন্তু সবাইকে অবাক করে প্রত্যেকবারই করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। যা দেখার পর সবারই চক্ষু চড়কগাছ। এরপর ওই মহিলাকে পৃথক আইসোলেশনে রাখা হয়। কিন্তু তাতেও সুরাহা হয়নি। এমনকী হোমিওপ্যাথি, আর্য়ুবেদিক, অ্যালোপেথিক – সমস্ত রকম ওষুধ প্রয়োগ করেও কোনও লাভ হয়নি। অবশ্য এই সময় কখনই তাঁর স্বাস্থ্যের কোন অবনতিও হয়নি, শরীরে কোনও দুর্বলতাও দেখা যায়নি। তাতে আরও অবাক চিকিৎসকরা।

[আরও পড়ুন: OMG! অস্ত্রোপচার করিয়ে নিজের উচ্চতা ২ ইঞ্চি বাড়িয়ে নিলেন যুবক! জানেন কত খরচ?]

ইতিমধ্যে জয়পুরের এসএমএস হাসপাতালের চিকিৎসকদের সঙ্গেও বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছে আশ্রম কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি জানার পর সেখানকার চিকিৎসকরাও অবাক হয়ে যান। ওই মহিলাকে আপাতত জয়পুরের হাসপাতালে পাঠানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। সেখানেই তাঁর চিকিৎসা হবে বলে খবর। ভরতপুরে এই মুহূর্তে নতুন করে কোনও করোনা আক্রান্ত নেই। কিন্তু একজন মহিলার বারংবার মারণ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর রীতিমতো উদ্বেগ বাড়িয়েছে প্রশাসনের। চিকিৎসকদের কপালেও চিন্তার ভাঁজ চওড়া হয়েছে আরও।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement