১৮ চৈত্র  ১৪২৬  বুধবার ১ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

শিলিগুড়ি থেকে কানাডা পাড়ি, অভিভাবকের ছোঁয়া পেতে চলেছে অনাথ ‘লিও’

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: February 11, 2020 1:57 pm|    Updated: February 11, 2020 1:58 pm

An Images

সংগ্রাম সিংহরায়, শিলিগুড়ি: জাতে নেড়ি। আবার দুর্ঘটনায় খোয়া গিয়েছে একটি পা। এর ভবিষ্যৎ কী? রাস্তার কুকুরটির প্রতি করুণাবশত যখন অনেকেই এই প্রশ্ন ছুঁড়ে দিচ্ছেন, তখনই তার জীবনে এল দারুণ সুযোগ। কানাডার এক দম্পতির আশ্রয় এবার থাকবে শিলিগুড়ির পথ কুকুর লিও। আর তার এই বিদেশ ভ্রমণ ভাগ্যে চোখ টাটাচ্ছে অনেক অবস্থাপন্ন সারমেয়রই।

leo-water

শিলিগুড়ির পথকুকুর ‘লিও’কে দত্তক নিতে চলেছে কানাডার এক দম্পতি। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই ফুলেশ্বরী এলাকার রাস্তার ওই নেড়িই এখন ‘হিরো’ শহরবাসীর কাছে। শিলিগুড়ি থেকে এক ধাক্কায় কানাডা যাত্রার পিছনে অবশ্য যাঁর অবদান সবচেয়ে বেশি, সেই প্রিয়া রুদ্র খুবই খুশি এই ভেবে যে তাঁদের উদ্যোগে কুকুরটি স্থায়ী আস্তানা পেতে চলেছে। তিনি জানিয়েছেন, যখন কয়েক মাস আগে তাঁরা কুকুরটিকে উদ্ধার করে শুশ্রূষার জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়েছিলেন শহরের অনেকের কাছে, তখন কীভাবে কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছিল। তাঁর বক্তব্য, “আমরা অবলা প্রাণীদের জন্য সারা বছর লড়াই করি। অন্তত এরপর মানুষ এগিয়ে এসে সাহায্য করলে ভাল, তা না করতে পারলে কেউ যেন অন্তত কটূক্তি না করে, এটুকুই প্রার্থনা।”

[আরও পড়ুন: দাঁতের ফাঁকে মাড়ি থেকে গজাচ্ছে লোম! বিরল রোগে আক্রান্ত যুবতী]

গত বছর দুর্গাপুজোর সময় ফুলেশ্বরীতে দুর্ঘটনায় জখম হয়ে পিছনের একটি পা খোয়া যায়। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে, তার সেবাশুশ্রূষা করে সুস্থ করে তোলেন প্রিয়া ও তার সংগঠন অ্যানিম্যাল হেল্পলাইন সেন্টার। সেখানেই তার নাম দেওয়া হয় ‘লিও’। তারপর থেকে তাঁদের সংস্থার শেল্টারে থেকেই সুস্থ হচ্ছিল। পাশাপাশি তাকে সুস্থ করার জন্য সাহায্য চেয়ে বিভিন্ন সোশ্যাল মাধ্যমে আবেদনও করেছিলেন তাঁরা। দিল্লির একটি সংস্থা সেই পোস্ট দেখে প্রিয়াদের সঙ্গে যোগাযোগ করে। তাঁরাই জানান কানাডার এক দম্পতি ‘লিও’কে দত্তক নিতে চান। তারপরই পরবর্তী প্রক্রিয়া শুরু হয়।

[আরও পড়ুন: চিঁড়ের উপর ভারতের ম্যাপ! ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডে নাম শান্তিপুরের তরুণের]

৭ ফেব্রুয়ারি তাকে বাগডোগরা বিমানবন্দর থেকে বিমানে দিল্লি পাঠানো হয়। প্রিয়া জানান, আপাতত দিল্লিতে রয়েছে শিলিগুড়ির লিও। সেখানেই কিছু পরীক্ষানিরীক্ষা করা হবে৷ পাশাপাশি দু’মাসের বিশেষ প্রশিক্ষণ পাবে সে। তারপরই সেখান থেকে কানাডা পাড়ি দেবে শিলিগুড়ির সারমেয়।

Advertisement

Advertisement

Advertisement