Advertisement
Advertisement
মঙ্গল গ্রহ

লালগ্রহে মিলল প্রাণের সন্ধান! নয়া ছবি পাঠাল নাসার কিউরিওসিটি রোভার

২০১১ সালে পৃথিবী থেকে পাড়ি দেয় নাসার  কিউরিওসিটি রোভার।

See Mars like never before, curiosity rover highest-resolution pics
Published by: Monishankar Choudhury
  • Posted:March 7, 2020 10:25 am
  • Updated:March 7, 2020 10:25 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মঙ্গলগ্রহের একাধিক উচ্চমানের ছবি পাঠাল নাসার কিউরিওসিটি রোভার। গত বছর ২৪ নভেম্বর থেকে ১ ডিসেম্বরের মধ্যে ছবিগুলি তোলা হয়েছে। রোভারের মাস্টক্যামে ধরা পড়া ১.৮ বিলিয়ন পিক্সেলের ছবিগুলিতে প্রধানত মঙ্গলের প্রাকৃতিক দৃশ্য ফুটে উঠেছে। এছাড়াও মঙ্গলে প্রাণের সন্ধানে বেশ কিছু তথ্য পেয়েছে যানটি। 

[আরও পড়ুন: টুইটারের প্রোফাইল পিকচারে ডেলিভারি বয়ের ছবি দিল Zomato India, কেন জানেন?]

নাসা সূত্রে খবর, প্রতিদিন প্রায় সাড়ে ছ’ঘণ্টা ধরে এক একটি ছবি তোলা হয়। রোভার একাধিক দিন একই ভ্যান্টেজ পয়েন্ট থেকে তার আশপাশের ছবি তোলার সুযোগ পায়। বর্তমানে লালগ্রহের ‘গ্লেন ক্রেটার’-এর (খাদ) ‘শার্প পর্বতে’ অনুসন্ধান চালাচ্ছে কিউরিওসিটি। ২০১৯ সালের ২৪ নভেম্বর থেকে ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ‘প্যানোরমা মোডে’ ওই এলাকার প্রায় ১ হাজারটি ছবি তুলেছে নাসার রোভারটি। ক্যালিফোর্নিয়ায় নাসার জেট প্রোপালশন ল্যাবরেটরি থেকে কিউরিওসিটি প্রজেক্টের সনমগে যুক্ত বৈজ্ঞানিক অশ্বিনী বাসাভাডা বলেন, “গোটা মিশনে এই প্রথম আমরা স্টিরিও ৩৬০ ডিগ্রি প্যানোরমা ছবির জন্য অভিযান চলিয়েছি। এই ছবি তোলার জন্য রোভারের মাস্ট ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। দুপুর বারোটা থেকে দু’টোর মধ্যে ছবিগুলি তোলার জন্য যানটির কম্পিউটারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।”

Advertisement

২০১১ সালের ২৬ নভেম্বর পৃথিবী থেকে পাড়ি দেয় নাসার  কিউরিওসিটি রোভার। প্রায় নয় মাসের সফরের শেষে ২০১২ সালের ৬ আগস্ট  মঙ্গলের ‘গ্লেন ক্রেটার’-এ অবতরণ করে যানটি। তারপর থেকেই সেখানে প্রাণের সন্ধান চালিয়ে যাচ্ছে রোভারটি। ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে ওই খাদের মাঝে শার্প পর্বতে এসে পৌঁছায় কিউরিওসিটি। ওই খাদেই জৈব পদার্থ ও একটি শুকিয়ে যাওয়া হ্রদের সন্ধান দিতে সক্ষম হয় যানটি। এবার নয়া অত্যন্ত উন্নতমানের ছবি পাঠিয়ে বিজ্ঞানীদের হাতে রীতিমতো তথ্যের একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সম্ভার তুলে দিয়েছে কিউরিওসিটি। 

Advertisement

উল্লেখ্য, মঙ্গলগ্রহকে নিয়ে বিজ্ঞানীদের কৌতূহলের শেষ নেই। বিশেষ করে, এই লালগ্রহে মানুষের বসতি গড়ে তোলা সম্ভব কিনা, তা নিয়ে চলছে নিরন্তর গবেষণা। সেই গবেষণাকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে রোভার পাঠিয়েছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা।  গত নয় বছর ধরে মহাকাশযানটি ঘুরে বেড়াচ্ছে মঙ্গলের মাটিতে। নাসার বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, মঙ্গলের একটি ‘লেক বেড’(হ্রদ ছিল এমন জায়গা)-এ তিনশো কোটি বছরের পুরনো একটি পাললিক শিলা সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। এই শিলায় রয়েছে অরগ্যানিক মলিকিউল বা জৈবিক অণু। এই ঘটনা এলিয়েনদের নিয়ে রহস্যভেদের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে পারেন মহাকাশ বিজ্ঞানীদের।                  

[আরও পড়ুন: শীঘ্রই পাকিস্তানে বন্ধ হচ্ছে ফেসবুক-টুইটার-গুগল পরিষেবা! কেন জানেন?]                      

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ