BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

গত বছর চার সপ্তাহ ছিলেন কোমায়, এবার করোনায় আক্রান্ত সেই প্রোটিয়া অলরাউন্ডার

Published by: Sulaya Singha |    Posted: May 8, 2020 9:37 pm|    Updated: May 8, 2020 9:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মারণ নোভেল করোনা ভাইরাস ইতিমধ্যেই প্রাণ কেড়েছে পাকিস্তানের প্রথম শ্রেণির প্রাক্তন এক ক্রিকেটারের। COVID-19-এর কবলে পড়েছেন একাধিক বিশ্বখ্যাত ফুটবলার। এবার দক্ষিণ আফ্রিকার অলরাউন্ডারের শরীরেও মিলল ভাইরাসের হদিশ। যে খবর নিজেই জানিয়েছেন ওই ক্রিকেটার।

সোলো এনকোয়েনি। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম শ্রেণির এই ক্রিকেটার অনেকদিন ধরেই একাধিক রোগে ভুগছেন। এবার তাঁর করোনা রিপোর্টও এল পজিটিভ। যা নিঃসন্দেহে উদ্বেগ বাড়িয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট মহলের। করোনার কামড়ে প্রয়াত পাক ক্রিকেটার জফর সরফরাজ এবং আক্রান্ত স্কটিশ ক্রিকেটার মাজিদ হকের পর এনকোয়েনিই তৃতীয় ক্রিকেটার, যাঁর শরীরে মিলল ভাইরাস।

[আরও পড়ুন: কোয়েসের বিরুদ্ধে চুক্তিভঙ্গের অভিযোগে FIFA’র দ্বারস্থ হচ্ছেন ইস্টবেঙ্গল কোচ রিভেরা]

২৫ বছর বয়সি এই অলরাউন্ডার বর্তমানে স্কটল্যান্ডে। Guillain-Barre সিনড্রম (GBS) জন্য তাঁর অনেকদিন থেকেই চিকিৎসা চলছে। এই রোগে নার্ভের উপর চাপ পড়ে। ফলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। সেই রোগ থেকে এখনও সেরে উঠতে পারেননি তিনি। আর তার মধ্যেই করোনার জীবাণু থাবা বসিয়েছে তাঁর শরীরে। বৃহস্পতিবার টুইট করে এনকোয়েনি নিজের যন্ত্রণা তুলে ধরেছেন, “গত বছর আমার GBS হয়। গত ১০ মাস ধরে এই রোগের
সঙ্গে লড়াই করে চলেছি। এখনও পর্যন্ত লড়াইয়ের অর্ধেক রাস্তাই পার হতে পেরেছি। এরপরই টিবি হয়। লিভার আর কিডনি নষ্ট হয়ে যায়। এবার করোনা পরীক্ষাতেও রিপোর্ট পজিটিভি এসেছে। বুঝতে পারছি না, আমারই কেন এই সবকিছু হচ্ছে।” এত অল্প বয়সে কী করুণ-অসহায় পরিস্থিতিতে পড়েছেন তিনি, তা তাঁর টুইট থেকেই স্পষ্ট।

জানলে আরও অবাক হবেন, গত বছর চার সপ্তাহ কোমায় ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার অনূর্ধ্ব-১৯ দলে খেলা এনকোয়েনি। ওয়ারিয়র্স ফ্র্যাঞ্চাইজির জার্সি গায়েও খেলেছেন তিনি। কিন্তু অনেকদিন ধরেই শরীর সঙ্গ দিচ্ছে না তাঁর। যার জন্য মানসিকভাবেও ভেঙে পড়ছেন তিনি। অলরাউন্ডারের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছেন তাঁর অনুরাগীরা।

[আরও পড়ুন: অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে খেলতে মরিয়া ভারত, প্রয়োজনে ১৪দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন কোহলিরা!]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement