১ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৯ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৯ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একটা ওভার থ্রো। আর তাতেই যেন মুহূর্তে বদলে গিয়েছিল বিশ্বকাপ ফাইনালের ছবিটা। বিপক্ষের হাতের মুঠোয় চলে যায় ম্যাচ। বাকিটা ইতিহাস। ম্যাচ টাই করেও বাউন্ডারি কাউন্ট নিয়মে হারতে হয় কিউয়িদের। তাই ইংল্যান্ডের বিশ্বজয়ের এ ইতিহাস হজম করা সকলের পক্ষেই কঠিন হয়ে পড়েছে। তাই তো টুর্নামেন্ট শেষ হওয়ার দুদিন পরেও এই আলোচনাতেই সরগরম নেটদুনিয়া। বিশ্বের প্রাক্তন ক্রিকেটাররা তো বটেই আইসিসির নিয়ম নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিনোদুনিয়ার তারকারাও। বাউন্ডারি কাউন্ট নিয়মকে তুলোধোনা করেছেন পরিচালক অনুরাগ কশ্যপ। গোটা বিষয়টিকে মজার এক উদাহরণ দিয়ে ব্যাখ্যা
করে নেটিজেনদের মন কাড়লেন অমিতাভ বচ্চন।

[আরও পড়ুন: গাপ্তিলের ওভার থ্রো নিয়ে মুখ খুললেন উইলিয়ামসন, নিউজিল্যান্ডে স্থগিত সেলিব্রেশন]

ফাইনালে ২৪টি বাউন্ডারি হাঁকিয়েছিল ইংল্যান্ড। নিউজিল্যান্ডে ১৬টি। আবার ইংল্যান্ডের সুপার ওভারে হয় জোড়া চার। সেখানে কিউয়িদের সংগ্রহ একটি ছয়। সব মিলিয়ে উইলিয়ামসনদের তুলনায় বেশি বাউন্ডারি মারায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে যায় ব্রিটিশবাহিনী। আইসিসির এই নিয়মটি যে কতখানি হাস্যকর, নিজের টুইটের মধ্যে দিয়ে সেটাই বোঝালেন বিগ বি। হিন্দিতে তিনি লিখেছেন, “আমার কাছে ২০০০ টাকা আছে, আপনার কাছেও ২০০০ টাকা আছে। আপনার কাছে ২০০০-এর একটা নোট আর আমার কাছে ৫০০ টাকার চারটে। তাহলে কে বেশি ধনী? আইসিসির উত্তর, যার কাছে ৫০০-র চারটে নোট, সে-ই বড়লোক। প্রণাম গুরুদেব।” বিগ বি’র এমন মজাদার ব্যাখ্যার পর আইসিসির নিয়মের বিরুদ্ধে নতুন করে তোপ দাগছেন নেটিজেনরা। যদিও এনিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও মন্তব্য করেনি আইসিসি। তবে মার্টিন গাপ্তিলের ওভার থ্রো নিয়ে এবার মুখ খুলল বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা।

ফাইনালের শেষ ওভারে গাপ্তিলের থ্রো স্টোকসের ব্যাটে লাগে। সেখান থেকে সোজা বাউন্ডারির বাইরে চলে যায় বল। দুটি সিঙ্গল ও বাউন্ডারির সুবাদে ছ’রান যোগ হয়ে যায় ইংল্যান্ডের স্কোরবোর্ডে। কিন্তু প্রাক্তন আম্পায়াররা ব্যাখ্যা করেছেন, ছয় নয়, ইংল্যান্ডকে পাঁচ রান দেওয়া উচিত ছিল। কারণ নিয়ম অনুযায়ী থ্রোয়ের আগে দুই ব্যাটসম্যান পরস্পরকে অতিক্রম করেনি। তাই দ্বিতীয় রানটি গণ্য করা উচিত হয়নি। তবে আইসিসির বক্তব্য, মাঠে আম্পায়াররা নিয়ম মেনে নিজেদের মতো করে সিদ্ধান্ত নেন। পলিসি মেনে তাঁদের সিদ্ধান্ত নিয়ে কোনও মন্তব্য করা যায় না। আইসিসির বক্তব্যেই স্পষ্ট, এসব নিয়ে আর আলোচনার কোনও মানেই হয় না।এদিকে, নিউজিল্যান্ড দলও জানিয়েছে, ম্যাচের আগে পর্যন্তও তারা আইসিসির এই নিয়মের কথা জানত না।

[আরও পড়ুন: ছেলের সাফল্যের দিন কিউয়িদের হয়ে গলা ফাটালেন বেন স্টোকসের বাবা!]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং