BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

পড়ুয়াদের উদ্বুদ্ধ করতে কুম্বলের ভাঙা চোয়ালের উদাহরণ মোদির, আপ্লুত প্রাক্তন অধিনায়ক

Published by: Sulaya Singha |    Posted: January 22, 2020 4:48 pm|    Updated: January 22, 2020 4:48 pm

Anil Kumble reacts after PM Modi uses ‘broken jaw’ example

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সালটা ২০০২। মে মাস। অ্যান্টিগায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে সাত নম্বরে ব্যাট করতে নেমেছিলেন অনিল কুম্বলে। ক্যারিবিয়ান বোলার মার্ভিন ডিলনের ডেলিভারি সোজা গিয়ে লাগে কুম্বলের চোয়ালে। যন্ত্রণায় কাতরাতে থাকেন তিনি। তারপরের দৃশ্য প্রত্যেক ক্রিকেটপ্রেমীর মনে আজও উজ্জ্বল। মাথার উপর দিয়ে চোয়াল পর্যন্ত ব্যান্ডেজ জড়িয়ে পরের দিন মাঠে নেমেছিলেন কিংবদন্তি স্পিনার। হাত ঘুরিয়ে প্যাভিলিয়নে পাঠিয়েছিলেন ব্রায়ান লারাকে। ব্যান্ডেজ বাঁধা অবস্থাতেও সেই টেস্টে ১৪ ওভারে বল করেছিলেন। কুম্বলের সেই অসম সাহসী সিদ্ধান্ত আর দৃঢ় মানসিকতা আজও ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের কাছে বিস্ময়ের। আর ‘পরীক্ষা পে চর্চা’য় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও তাই পড়ুয়াদের কুম্বলের সেই আত্মবিশ্বাসের কথাই মনে করিয়ে দিলেন।

ইচ্ছা থাকলে কোনও কিছুই অসম্ভব নয়। সমাজের প্রত্যেক ক্ষেত্রেই এমন উদাহরণ আছে, যেখানে দেখা যায় ইচ্ছাশক্তি আর কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমেই স্বপ্নপূরণ হয়েছে। সোমবার দিল্লির তালকোটরা স্টেডিয়ামে পড়ুয়াদের মনোবল বাড়ানোর লক্ষ্যে ‘পরীক্ষা পে চর্চা’র আয়োজনে কুম্বলের সেই অসামান্য ইচ্ছাশক্তির কথাই উঠে আসে মোদির মুখে। যা শুনে আপ্লুত প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক। টুইটারে কুম্বলে লেখেন, “পরীক্ষা পে চর্চা ২০২০-র কর্মসূচিতে আমার নাম উল্লেখ করা হল শুনে আমি গর্বিত। নরেন্দ্র মোদিকে অসংখ্য ধন্যবাদ। পরীক্ষার্থীদের জন্য শুভেচ্ছা রইল।”

[আরও পড়ুন: নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে কোহলিদের অতীত পরিসংখ্যান শোচনীয়, চিন্তায় ক্রিকেটপ্রেমীরা]

পরীক্ষা পে চর্চায় অংশ নিয়েছিল হাজার দু’য়েক পড়ুয়া। গোটা দেশ থেকে অন্তত ২ কোটি পড়ুয়া মোদির এই অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছিল। তাঁদের মধ্যে প্রায় দু’হাজার পড়ুয়াকে বেছে নেওয়া হয়েছে। এবং লক্ষাধিক পড়ুয়াকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্বুদ্ধ করতে জাম্বোর পাশাপাশি কলকাতায় অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্টে ভিভিএস লক্ষ্মণ এবং রাহুল দ্রাবিড়ের সেই অনবদ্য ৩৭৬ রানের পার্টনারশিপের কথাও শোনা যায় প্রধানমন্ত্রীর মুখে।

মোদি বলেন, “আমাদের দল তেমন ভাল খেলছিল না। কিন্তু রাহুল দ্রাবিড় আর ভিভিএস লক্ষ্মণ জুটির সেই অসাধারণ মুহূর্ত কি আমরা ভুলতে পারি? একইভাবে চোট নিয়ে অনিল কুম্বলে যেভাবে খেলেছিলেন, তা ভোলা যায়? এটাই মোটিভেশন আর ইতিবাচক চিন্তাভাবনার ক্ষমতা।” মোদির মুখে প্রশংসা শুনে উচ্ছ্বসিত কুম্বলে।

[আরও পড়ুন: কে হবেন ইস্টবেঙ্গলের পরবর্তী কোচ? আলেজান্দ্রোর বিদায়ের দিনই ভেসে উঠল তিনটি নাম]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে