৩০ আশ্বিন  ১৪২৬  শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অস্ট্রেলিয়া: ২২৩-১০ (স্মিথ ৮৫, কেরি ৪৬)

ইংল্যান্ড: ২২৬-২  (রয় ৮৫, রুট ৪৯ )

ইংল্যান্ড ৮ উইকেটে জয়ী।


সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:
অজিদের ঔদ্ধত্য গুঁড়িয়ে দিয়ে বিশ্বকাপে নয়া অধ্যায়ের সূচনা করল ইংল্যান্ড। এজবাস্টনে একপেশে ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে ৮ উইকেটে হারিয়ে দিল ইংরেজরা। আগামী ১৪ জুলাই লর্ডসে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড। ১৯৯২-এর পর এই প্রথমবার দুটি  এমন দল ফাইনালে উঠল যারা আগে বিশ্বচ্যাম্পিয়নের খেতাব পায়নি।এই নিয়ে চতুর্থবার বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠল ইংল্যান্ড। 

[আরও পড়ুন: ‘দেশের দরকার আপনাকে’, ধোনির অবসরের গুঞ্জনেই টুইট-বার্তা ক্রিকেটপ্রেমী লতার]

বিশ্বকাপ শুরুর আগে থেকেই টুর্নামেন্টের ফেভরিট হিসেবে ধরা হচ্ছিল ইংল্যান্ডকে। বিশ্ব ব়্যাংকিংয়েও এক নম্বর ছিল ইয়ন মর্গ্যান এন্ড কোম্পানি। টুর্নামেন্টের শুরুটা সেভাবেই করে ইংল্যান্ড। তবে, মাঝখানে কিছুটা খেই হারিয়ে ফেলেছিল মর্গ্যান-বাহিনী। ভারতের বিরুদ্ধে এই এজবাস্টনেই ফর্মে ফেরে তাঁরা। আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি জ্যাসন রয়, জনি বেয়ারস্টোদের। সেমিফাইনালেও সেভাবে ইংল্যান্ডকে বেগই দিত পারল না অস্ট্রেলিয়া।৮ উইকেটে অনায়াস জয় তুলে নেন ইংরেজরা।

এজবাস্টনে এদিন টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। কিন্তু, শুরুতেই বিপর্যয়ের মুখে পড়তে হয় তাঁদের। যে টপ অর্ডারের উপর ভর করে গোটা টুর্নামেন্ট কাঁপিয়ে আসছে অজিরা, সেই টপ অর্ডারই এদিন ডুবিয়ে দিল অস্ট্রেলিয়াকে। মাত্র ১৪ রানের মধ্যে ৩ টি উইকেট খুঁইয়ে চাপে পড়ে গেলেন অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানরা। চাপের মুখে স্টিভ স্মিথ অনবদ্য অর্ধশতরানের ইনিংস না খেললে হয়তো আরও লজ্জার মুখে পড়তে হত ক্যাঙারু বাহিনীকে। এদিন ৮৫ রানের ধৈর্যশীল ইনিংস খেলেন স্মিথ। বিশ্বকাপের নক-আউট পর্বে এই নিয়ে চতুর্থ অর্ধশতরান স্মিথের। এর আগে একমাত্র শচীন তেণ্ডুলকরই নক আউটে ৪ টে অর্ধশতরানের কৃতিত্ব অর্জন করেছিলেন। মূলত স্মিথের এই অর্ধশতরানে ভর করেই ২২৩ রানের সম্মানজনক স্কোরে পৌঁছায় অস্ট্রেলিয়া।

[আরও পড়ুন: সেমিফাইনালে হারের পরই টিম ইন্ডিয়াকে বিদায় জানালেন দুই গুরুত্বপূর্ণ সদস্য]

প্রথমার্ধে পিচের কঠিন পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছিল এই রান তুলতে বেশ বেগই পেতে হবে ইংল্যান্ডকে। কিন্তু, তেমন কিছুই হল না। উলটে জ্যাসন রয়, জো রুট এবং বেয়ারস্টোদের অনবদ্য ইনিংসের সুবাদে মাত্র ৩২ ওভার ১বলেই প্রয়োজনীয় রান তুলে নিল ইংল্যান্ড।৮৫ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেললেন রয়। আম্পায়ারিংয়ের ভুলে প্যাভিলিয়নে ফিরতে না হলে, হয়তো অনবদ্য শতরানের মালিক হতেন ইংল্যান্ড ওপেনার। সেই সঙ্গে আরও একটা জিনিস নিশ্চিত হয়ে গেল। এবারের নতুন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন পেতে চলেছে ক্রিকেট বিশ্ব। কারণ, ইংল্যান্ড বা নিউজিল্যান্ড কেউই এর আগে বিশ্বকাপ জেতেনি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং