BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

জোরাল হচ্ছে সম্ভাবনা, আইপিএলের আগেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে পারেন বিরাট কোহলিরা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 22, 2020 12:46 pm|    Updated: July 22, 2020 12:46 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আইপিএলের (IPL) আগেই ক্রিকেটে ফিরছেন বিরাট কোহলিরা! অন্তত তেমনই একটা সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। শোনা যাচ্ছে, আইপিএলের মতো দীর্ঘ টুর্নামেন্টে নামার আগে ক্রিকেটারদের ফিটনেস যাচাই করে নিতে একটা ছোট্ট আন্তর্জাতিক সিরিজের আয়োজন করতে পারে বিসিসিআই (BCCI) । আগস্টের শেষের দিকেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৩টি টি-২০ ম্যাচ খেলতে হতে পারে মেন-ইন-ব্লু’কে। বোর্ডের স্পনসররাও নাকি সেটাই চাইছেন।

IND-SA

গত মার্চে দেশের মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজ ছিল টিম ইন্ডিয়ার। ধরমশালায় যার প্রথম ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে ভেস্তে গিয়েছিল। তারপরই করোনা আতঙ্ক সম্পূর্ণভাবে গ্রাস করে ভারতকে। সেই আবহেও ঠিক ছিল লখনউয়ে দ্বিতীয় ম্যাচটি হবে। COVID-19 নিয়ে বিসিসিআইয়ের প্রকাশিত নিয়মাবলি মেনেই বাইশ গজে নামবেন বিরাট কোহলিরা (Virat kholi)। সেই মতো দুই দল পৌঁছেও গিয়েছিল লখনউ। কিন্তু পরিস্থিতি বিচার করে শেষ মুহূর্তে সিরিজ বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ঠিক হয়েছিল সব স্বাভাবিক হলে আগস্টেই প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলবেন কোহলিরা। কিন্তু তারপর থেকে করোনা আতঙ্ক ক্রমশ বাড়ছে। স্রেফ ভারতেই এখন ১২ লক্ষের কাছাকাছি মানুষ আক্রান্ত। যার জেরে একটা সময় এই সিরিজ অসম্ভব মনে হচ্ছিল। কিন্তু ক্রমবর্ধমান সংক্রমণের মধ্যেও বোর্ড আইপিএল আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই সিরিজটি হওয়ার সম্ভাবনাও পুনরুজ্জীবিত হয়েছে। বিসিসিআইয়ের স্পনসর এবং ব্রডকাস্টাররা এখন চাইছেন আইপিএলে নামার আগে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজ খেলুন বিরাটরা।

[আরও পড়ুন: সৌরভের শর্ত মানতে নারাজ অস্ট্রেলিয়া, ১৪ দিনই কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে বিরাটদের!]

উল্লেখ্য, আইপিএলের সূচি এখনও চূড়ান্ত না হলেও প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে ২৬ সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে এই মেগা টুর্নামেন্ট শুরু হতে পারে। তার আগে ক্রিকেটারদের অন্তত সপ্তাহ তিনেকের অনুশীলন প্রয়োজন। কারণ দীর্ঘ লকডাউনে কেউই অনুশীলন করতে পারেননি সেভাবে। পুরোপুরি ম্যাচ ফিট না হয়ে টুর্নামেন্টে নামলে চোট পাওয়ার একটা সম্ভাবনা থাকে। সেসব এড়াতেই দীর্ঘ অনুশীলনের ভাবনা। এর স্পনসররা চাইছে এসবের ফাঁকেই আগস্টের শেষের দিকে ছোট্ট একটা সিরিজ আয়োজন করতে। তাতে ক্রিকেটারদেরই উপকার। তবে কোনওকিছুই চূড়ান্ত নয়। আপাতত ক্রিকেটাররা আহমেদাবাদের মোটেরা স্টেডিয়ামে বায়ো-সিকিওর পরিবেশে অনুশীলন করবেন। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement