১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শ্রীলঙ্কার পর বাতিল টিম ইন্ডিয়ার জিম্বাবোয়ে সফর, করোনার জেরে ধোঁয়াশায় কোহলিদের ভবিষ্যৎ!

Published by: Sulaya Singha |    Posted: June 12, 2020 4:01 pm|    Updated: June 12, 2020 4:01 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জুনের শেষে সীমিত ওভারের ক্রিকেট সিরিজের জন্য শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়া হচ্ছে না টিম ইন্ডিয়ার। বৃহস্পতিবারই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (BCCI) তরফে এ কথা ঘোষণা করা হয়েছিল। সেই ঘোষণার ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই আগস্টে বিরাট কোহলিদের জিম্বাবোয়ে সফরও বাতিল করল বিসিসিআই।

করোনার দাপটে সেই মার্চের মাঝামাঝি সময় থেকে স্তব্ধ বাইশ গজ। বিদেশের মাটিতে ফুটবল ফিরলেও প্রায় তিন মাস কেটে গেলেও ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ নিয়ে ধোঁয়াশা অব্যাহত। বিশেষ করে ভারতীয় দলের। ক্রিকেটাররা এখনও পর্যন্ত অনুশীলনই শুরু করতে পারেননি। ঠিক ছিল জুন-জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কা সফর দিয়েই নতুন করে ছন্দে ফিরবেন কোহলিরা। তিনটে ওয়ানডে ও তিনটে টি-টোয়েন্টি ম‌্যাচের সিরিজ খেলার কথা ছিল তাঁদের। কিন্তু সে গুড়ে বালি। গতকালই বোর্ড জানিয়ে দেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে শ্রীলঙ্কায় গিয়ে সিরিজ খেলা সম্ভব হবে না। তাছাড়া ভারতীয় ক্রিকেটাররা এখনও গৃহবন্দি। কোহলি-রোহিতরা কেউই এখনও ট্রেনিংয়ে নামতে পারেননি। শ্রীলঙ্কা বোর্ডও বিবৃতি জারি করে সিরিজ বাতিলের কথা স্বীকার করে নেয়। এবার জিম্বাবোয়ে সফরও বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।

[আরও পড়ুন: ‘ক্ষমা চাওয়ার সাহস দেখাও সানরাইজার্স’, আইপিএলে স্যামির বিরুদ্ধে বর্ণবৈষম্য নিয়ে আসরে স্বরা]

শুক্রবার বোর্ড সচিব জয় শাহ একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানান, বর্তমান কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই টিম ইন্ডিয়াকে শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবোয়েতে পাঠানো হবে না। চলতি বছর ২২ আগস্ট থেকে জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে বাইশ গজের লড়াই শুরুর কথা ছিল ভারতের। তিনটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলতেন কোহলিরা। কিন্তু তা বাতিলের পথেই হাঁটল বিসিসিআই।

অর্থাৎ হিসেব বলছে, অন্তত সেপ্টেম্বরের আগে টিম ইন্ডিয়াকে প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে দেখার সম্ভাবনা কার্যত নেই। দল কবে অনুশীলনে নামবে, তাও পরিষ্কার নয়। এদিকে, সেপ্টেম্বরের পর আইপিএল আয়োজনের চিন্তাভাবনাও রয়েছে বোর্ডের। সেক্ষেত্রে আবার দেখতে হবে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে আইসিসি কী সিদ্ধান্ত নেয়। সবমিলিয়ে চূড়ান্ত অনিশ্চয়তার ঘেরাটোপে রয়েছে ক্রিকেটের বাইশ গজ।

[আরও পড়ুন: আইপিএলের ফরম্যাটে কোনও বদল উচিত নয়, হুঁশিয়ারি কেকেআর সিইও’র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement