২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

চলতি বছর শ্রীলঙ্কায় বসবে আইপিএলের আসর! কী জানাল বিসিসিআই?

Published by: Sulaya Singha |    Posted: April 17, 2020 3:16 pm|    Updated: April 17, 2020 3:21 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আটটি ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে আলোচনার পর বৃহস্পতিবার বিসিসিআইয়ের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত আইপিএল। দেশের বর্তমান পরিস্থিতি যে কোনওভাবেই টুর্নামেন্টের আয়োজন সম্ভব নয়, তাও স্পষ্ট করে দেওয়া হয়। ফলে চলতি বছর যে আর আইপিএল বাতিলেরই পথে, সেই ইঙ্গিতই মেলে। কিন্তু এরই মধ্যে টুর্নামেন্ট আয়োজনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছে শ্রীলঙ্কা। তবে ভারতীয় বোর্ড সে আগ্রহকে বিশেষ আমল দিচ্ছে না বলেই খবর।

ভারতের তুলনায় শ্রীলঙ্কায় করোনার প্রকোপ অনেকটাই কম। এ দেশে যেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ হাজার ছাড়িয়েছে, সেখানে শ্রীলঙ্কায় এখনও পর্যন্ত করোনা পজিটিভের সংখ্যা ২০০-র সামান্য বেশি। শ্রীলঙ্কার আশা, খুব তাড়াতাড়ি স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে পারবে দেশ। যদিও মনে রাখতে হবে, সে দেশের লোকসংখ্যাও ভারতের চেয়ে কয়েকগুণ কম। এমন পরিস্থিতিতে শ্রীলঙ্কা আইপিএল আয়োজনের দায়িত্ব নিতে চাইছে। উদ্দেশ্য, জনপ্রিয় টুর্নামেন্ট যেন বাতিল না করতে হয়। কিন্তু ভারতীয় বোর্ড (BCCI) এ নিয়ে বিশেষ আগ্রহী নয়। এক বোর্ড কর্তার কথায়, “শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের (SLC) তরফে এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও অফিসিয়াল প্রস্তাব আসেনি। কোনও আলোচনাও হয়নি। আর তাছাড়া গোটা বিশ্ব যেখানে স্তব্ধ, সেখানে এ নিয়ে কোনও আলোচনার মানেও নেই।”

[আরও পড়ুন: মানবিক টিম ইন্ডিয়ার ‘চায়নাম্যান’, পুলিশের গাড়িতে করে ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছেন কুলদীপ]

শ্রীলঙ্কায় টুর্নামেন্ট আয়োজনের মতো তিনটি মাঠ রয়েছে। গল, ক্যান্ডি এবং প্রেমদাসা স্টেডিয়াম। আইপিএল আয়োজন করতে পারলে মোটা অঙ্কের লাভও হবে শ্রীলঙ্কার। তাছাড়া জুলাইয়ে ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজও রয়েছে তাদের। তাই দ্রুত স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে মরিয়া দ্বীপরাষ্ট্র। কিন্তু বিসিসিআই যে তাতে সায় দিতে ইচ্ছুক নয়, বোর্ড কর্তার কথায় তেমনটাই স্পষ্ট।

বরং সেপ্টেম্বর-অক্টোবর অথবা অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতে কোনওভাবে আইপিএলের আসর বসানো যায় কি না, সেই ভাবনাচিন্তাই করা হচ্ছে। তবে সেই সময় পরপর এশিয়া কাপ ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ রয়েছে। তাই চলতি বছর আইপিএল আয়োজন আদৌ সম্ভব কি না, তা নিয়ে প্রশ্নচিহ্ন থেকেই যাচ্ছে।

[আরও পড়ুন: পরের সপ্তাহেই মোহনবাগানকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণার সম্ভাবনা ফেডারেশনের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement