৭ ফাল্গুন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আইপিএলের নিলামে দল পাননি। এমনকী, এখন জাতীয় স্তরের টুর্নামেন্টগুলিতেও তাঁকে উপেক্ষা করা হচ্ছে। বিসিসিআই (BCCI) আয়োজিত চ্যালেঞ্জার ট্রফিতেও সুযোগ পাচ্ছেন না। তাঁর হাতে সম্বল বলতে ছিল শুধু রনজি ট্রফি। আর সেখানেই সব উপেক্ষার জবাব দিলেন মনোজ তিওয়ারি (Manoj Tiwari)। ব্যাট হাতে বুঝিয়ে দিলেন, কেন তাঁকে একসময় দেশের সবচেয়ে প্রতিভাবান ক্রিকেটারদের তালিকায় রাখা হত। রনজি ট্রফিতে নিজের কেরিয়ারের প্রথম ট্রিপল সেঞ্চুরি হাঁকালেন মনোজ। আর তাঁর এই ত্রিশতরানে ভর করেই কল্যাণীতে হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে রানের পাহাড় গড়ল বাংলা।

manoj_web
কল্যাণীতে হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে রনজি ট্রফির ম্যাচে ৩০৩ রানে অপরাজিত থাকলেন জাতীয় দলের প্রাক্তন তারকা। ৪১৪ বলে ৩০৩ রানের অনবদ্য ইনিংস খেললেন তিনি। মারলেন ৩০টি চার এবং পাঁচটি ৬। রবিবারই নিজের রনজি প্রথম সারির কেরিয়ারের ২৭তম শতরানটি করেন তিনি। রবিবার খেলা শেষ হওয়ার সময় তিনি অপরাজিত ছিলেন ১৬৫ রানে। দিনের শেষে বাংলার রান ছিল পাঁচ উইকেটের বিনিময়ে ৩৬৬। সোমবার সকাল থেকেই মারকুটে ব্যাটিং শুরু করেন বাংলার প্রাক্তন অধিনায়ক। এবং পেরিয়ে যান কাঙ্ক্ষিত ত্রিশতরানের গণ্ডি। এটি তাঁর কেরিয়ারের প্রথম ট্রিপল সেঞ্চুরি এবং ষষ্ঠ ডাবল সেঞ্চুরি। এর আগে তাঁর কেরিয়ারের সর্বোচ্চ স্কোর ছিল ২৬৭।বাংলা ইনিংস ঘোষণা করে ৬৩৫ রানে।

[আরও পড়ুন: প্রশ্নের মুখে পন্থের ভবিষ্যৎ! নিউজিল্যান্ড সফরেও উইকেটকিপার হিসেবে কোহলির পছন্দ রাহুল]

বেশ কিছুদিন ধরেই খবরের শিরোনামে আছেন মনোজ তিওয়ারি। কদিন আগেই, বাংলার ড্রেসিং রুমে জাতীয় দলের নির্বাচক দেবাঙ্গ গান্ধীকে ঢুকতে না দিয়ে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। মূলত মনোজের অভিযোগেই দেবাঙ্গকে বাংলার ড্রেসিং রুম থেকে ‘অপমানিত’ হয়ে বেরিয়ে যেতে হয়। এর আগে আইপিএলে দল না পাওয়ার ব্যর্থতাকেও অভিনব ভঙ্গিতে সেলিব্রেট করেছেন তিনি। সেটাও নজর কেড়েছে সংবাদমাধ্যমের। তবে, এবার তিনি প্রচারের আলোয় এলেন ব্যাট হাতে সাফল্যের জন্য।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং