৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘বিয়ের পরই অধিনায়ক হিসেবে উন্নতি করেছি’, অনুষ্কার প্রশংসায় অকপট কোহলি

Published by: Sulaya Singha |    Posted: May 28, 2019 5:37 pm|    Updated: May 30, 2019 5:54 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অনুষ্কা শর্মা গ্যালারিতে থাকলেই নাকি খারাপ পারফর্ম করেন বিরাট কোহলি। বিয়ের আগে থেকেই এমন সমালোচনা শুনে আসছেন তিনি। কিন্তু বলিউডের বিখ্যাত একটি গানের বুলি দিয়েই যেন সেসব নিন্দা উড়িয়ে দেন ভারত অধিনায়ক। ‘কুছ তো লোগ কহেঙ্গে, লোগো কা কাম হ্যায় কহেনা।’ আর সেই জন্যই প্রতিবার সমালোচনার মুখে স্ত্রীর সামনে ঢাল হয়ে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ জানান। এবার বিরাট বলেই দিলেন, অধিনায়ক হিসেবে তাঁর পরিণত হওয়ার নেপথ্যেও রয়েছেন অনুষ্কাই। ঠিক যেমন প্রত্যেক সফল পুরুষের নেপথ্যে একজন মহিলা থাকেন, তাঁর জীবনের সেই নারী হলেন অনুষ্কা।

প্রেমের সম্পর্কে থাকাকালীন বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে বিরাটের মুখে অনুষ্কার প্রশংসা শোনা গিয়েছে। কীভাবে মাথা ঠান্ডা রেখে ধীর-স্থিরভাবে পরিণত ব্যক্তির মতো যে কোনও পরিস্থিতি সামলাতে হয়, অনুষ্কাকে পাশে পেয়েই তা শিখেছেন বিরাট। এবার নেতা হিসেবে তাঁর কেরিয়ারের উন্নতির সমস্ত কৃতিত্বও বেটারহাফকেই দিলেন কোহলি।

[আরও পড়ুন: কোন পথে সৌরভের ভবিষ্যৎ? প্রথা ভেঙে সিএবি’র ভাগ্য এবার দেড়শো ভোটারের হাতে]

আসন্ন বিশ্বকাপে দলের গুরু ভার কোহলির কাঁধে। তাঁর নেতৃত্বে ভারতীয় দল টুর্নামেন্টের কতদূর পৌঁছায়, তা দেখার জন্য মুখিয়ে গোটা বিশ্ব। এমনকী বিশেষজ্ঞরা ইতিমধ্যেই ফেভরিটদের তালিকাতেই রেখেছে কোহলি অ্যান্ড কোংকে। আর সেই মহারণ শুরুর আগেই লন্ডনে ক্যাপ্টেনস মিডিয়া ডে-তে বিরাটের কথায় উঠে এল অনুষ্কার প্রসঙ্গ। অকপটেই জানালেন, কীভাবে বিয়েটা তাঁর ব্যক্তিগত এবং পেশাদার জীবনে পরিবর্তন ঘটিয়েছে। “বিয়ের পর দায়িত্ব অনেকটা বেড়ে যায়। বিয়ের আগেও অনেক দায়িত্ব থাকে। কিন্তু এটা একেবারে আলাদা। বিভিন্ন বিষয় আপনি আরও ভালভাবে বুঝতে শেখেন। আমিও আগের তুলনায় অনেক বেশি দায়িত্ববান হয়েছি। এবং এই বিষয়টিই আমাকে নেতৃত্বের ক্ষেত্রেও সাহায্য করে। একজন অধিনায়ক, খেলোয়াড় ও মানুষ হিসেবে উন্নতিতে বড় ভূমিকা নেয়।” বলেন ক্যাপ্টেন কোহলি। অর্থাৎ বিয়ের পরেই যে তিনি অধিনায়ক হিসেবে বেশি সফল, হাবেভাবে সেকথাই বুঝিয়ে দিতে চাইলেন কোহলি।

এদিকে মঙ্গলবার চোট সারিয়ে নেটে ফেরেন বিজয় শংকর। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ওয়ার্ম আপ ম্যাচের আগের দিনই অনুশীলনে ডান হাতে চোট পেয়ে বসে পড়েছিলেন। স্ক্যান রিপোর্টে জানা যায়, হাড়ে চিড় ধরেনি তাঁর। বোর্ডের মেডিক্যাল টিম তাঁকে দ্রুত ফিট করার কাজ চালাচ্ছিল। বিশ্বকাপ শুরুর অনেক আগেই তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে ওঠায় স্বস্তি শিবিরেও। এদিন ওয়ার্ম আপ ম্যাচে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে দলেও রাখা হয় বিজয়কে। যদিও চার নম্বরে নামেননি তিনি। সেই পজিশনে ফের লোকেশ রাহুলই খেলেন।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের জন্য কোহলিকে ভিডিওয় ‘স্পেশ্যাল’ বার্তা দিলেন চেলসি তারকা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement