BREAKING NEWS

২৫ বৈশাখ  ১৪২৮  রবিবার ৯ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

এবার করোনার কবলে ধোনির বাবা-মা, ভরতি হাসপাতালে

Published by: Sulaya Singha |    Posted: April 21, 2021 10:38 am|    Updated: April 21, 2021 10:52 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে আজ কেকেআরের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নামবেন মহেন্দ্র সিং ধোনি (MS Dhoni)। কিন্তু ঠিক তার আগেই এল দুঃসংবাদ। করোনায় আক্রান্ত চেন্নাই অধিনায়কের বাবা পান সিং এবং মা দেবকী দেবী। রাঁচির একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে তাঁদের।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিধ্বস্ত ভারত। বেড়েই চলেছে কোভিড (COVID-19) আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। বুধবারই যেমন স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানাল, একদিনে দেশে মারণ ভাইরাসের কবলে পড়েছে প্রায় ৩ লক্ষ মানুষ। প্রাণ হারিয়েছেন ২ হাজারেরও বেশি। এমন পরিস্থিতিতেও অবশ্য সমস্ত কোভিডবিধি মেনে ক্রিকেটার ও অন্যান্য স্টাফকে বায়ো-বাবলে রেখে চলছে আইপিএল। দর্শকশূন্য মাঠেই খেলছেন কোহলি-রোহিত-ধোনিরা। যদিও টুর্নামেন্ট শুরুর আগে সেখানেো থাবা বসিয়েছিল করোনা। আক্রান্ত হয়েছিলেন আরসিবির দেবদূত পাড়িক্কল-সহ একাধিক ক্রিকেটার এবং গ্রাউন্ড স্টাফ। সবচেয়ে বেশি ভয়াবহ পরিস্থিতি ছিল মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ের। যদিও আপাতত সুরক্ষিত এই স্টেডিয়াম। তবে এবার ক্যাপ্টেন কুলের সংসারে ঢুকে পড়ল এই অতিক্ষুদ্র ভয়ংকর ভাইরাসটি। জানা গিয়েছে, রাঁচির পাল্স সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে ভরতি ধোনির বাবা-মা। আপাতত তাঁদের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তবে তাঁদের বয়স খানিকটা চিন্তায় রাখছে বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের।

[আরও পড়ুন: চাপ সামলে বাজিমাত, রোহিতদের হারিয়ে ধোনির চেন্নাইকে টপকে গেল দিল্লি]

এদিকে, আইপিএলের (IPL 2021) নিয়ম অনুযায়ী, টুর্নামেন্টের মাঝে বায়ো-বাবল ছেড়ে বেরনোর উপায় নেই ক্রিকেটারদের। তাঁর মা-বাবার সঙ্গে ধোনি আপাতত দেখা করতে পারবেন না বলেই খবর। তাঁর চেন্নাই প্রথম ম্যাচে হারলেও গত দু’টি ম্যাচে দারুণ জয় পেয়েছে। তাই নাইটদের (KKR) বিরুদ্ধে আজ বেশ আত্মবিশ্বাসীই দল। কিন্তু হঠাৎই এমন খবর আসায় নিজেকে শক্ত রাখা বড় চ্যালেঞ্জই হয়ে পড়ল ধোনির জন্য।

[আরও পড়ুন: সুপার লিগকে কোনওভাবেই স্বীকৃতি নয়, উয়েফার পাশে দাঁড়িয়ে ঘোষণা ফিফা সভাপতির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement