BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ফের কলঙ্কিত পাক ক্রিকেট, ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগে তিন বছর নির্বাসিত আকমল

Published by: Sulaya Singha |    Posted: April 27, 2020 10:09 pm|    Updated: April 27, 2020 11:03 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের কলুশিত পাকিস্তান ক্রিকেট। জেন্টলম্যান্স গেমের জোড়া নিয়মভঙ্গের অভিযোগে তিন বছরের জন্য নির্বাসিত করা হল পাক ব্যাটস্যান উমর আকমলকে। সোমবারই নিজেদের সিদ্ধান্তের কথা জানায় পাক ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

পিসিবির দুর্নীতিদমন আইনের আর্টিক্যাল ২.৪.৪ অমান্য করার জন্য আকমলকে আগামী তিন বছরের জন্য সমস্তরকম ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত করা হল বলে জানান বোর্ডের শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির চেয়ারম্যান। আকমলের বিরুদ্ধে অভিযোগ, পাকিস্তান সুপার লিগে (PSL) ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সে কথা গোপন করে যান। চলতি মাসের শুরুতেই আকমল সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা দুর্নীতির অভিযোগের বিরুদ্ধে তিনি কোনও আবেদন করবেন না। এরপরই বোর্ড মামলাটি শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির সামনে তুলে ধরে। এদিন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি ফজল-ই-মিরান চৌহানের নেতৃত্বাধীন শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি পাক তারকাকে তিন বছরের জন্য নির্বাসিত করার কথা ঘোষণা করল। এদিন টুইটারে পিসিবির তরফে জানানো হয়, বোর্ডের শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি তিন বছরের জন্য উমর আকমলকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত করল।

[আরও পড়ুন: করোনার জের, ফুটসল ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপ দিয়ে শুরু হবে ভারতীয় ফুটবল মরশুম]

চলতি বছর পিএসএলে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে খেলার কথা ছিল আকমলের। যদিও করোনা মহামারির জেরে স্থগিত হয়ে গিয়েছে টুর্নামেন্ট। পাক দলের অন্যতম নির্ভরযোগ্য তারকা আকমল এর আগে জানিয়েছিলেন, দুটি ডেলিভারির জন্য তাঁকে দু’লক্ষ ডলারের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। সেই সঙ্গে ভারতের বিরুদ্ধে না খেলার জন্য মোটা অঙ্কের অর্থেরও প্রস্তাব পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু দুটি প্রস্তাবই বোর্ডের কাছ থেকে গোপন করে যান তিনি। আর সেই কারণেই কড়া শাস্তির মুখে পড়তে হল তাঁকে।

দেশের জার্সি গায়ে মোট ১৬টি টেস্ট খেলেছেন তিনি। ১২১টি ওয়ানডে এবং ৮৪টি টি-টোয়েন্টিতে দলে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। এমন কাণ্ড ঘটিয়ে নিজের কেরিয়ারের চূড়ান্ত ক্ষতি করলেন প্রতিভাবান তারকা। এমনটাই মনে করছে ক্রিকেট মহল।

[আরও পড়ুন: ‘বাঁচাতে পারে ভারতই’, করোনা পরিস্থিতিতে বেতন নিয়ে আশঙ্কায় অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement