১৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২ জুন ২০২০ 

Advertisement

হাসপাতালে ভরতি প্রথম কোচ, চিকিৎসার সব দায়িত্ব নিলেন সৌরভ

Published by: Sulaya Singha |    Posted: April 6, 2020 2:13 pm|    Updated: April 6, 2020 2:13 pm

An Images

আলাপন সাহা: বেলুড় মঠে গিয়ে দু’হাজার কিলো চাল দিয়েছেন। শনিবার ইসকনে গিয়ে প্রত্যেকদিন দশ হাজার লোকের খাওয়ার ব্যবস্থা করেছেন। কারও সমস্যার কথা শুনলেই তিনি এগিয়ে যাচ্ছেন। তিনি, ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক তথা বর্তমান বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। এবার কেরিয়ারের প্রথম কোচের যাবতীয় দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিলেন সৌরভ।

রবিবার ভোরে তিনি খবর পান, তাঁর প্রথম কোচ অশোক মুস্তাফি অসুস্থ। সৌরভের ঘনিষ্ঠ বন্ধু সঞ্জয় দাস (যিনি এক সময় সৌরভের সঙ্গে ক্রিকেট খেলতেন) খবরটা প্রথমে জানতে পারেন। সঙ্গে সঙ্গে সৌরভকে ফোন করে জানান। দুঃখীরাম কোচিং সেন্টারে অশোক স্যরের কাছে প্র্যাকটিস করতেন সৌরভ-সঞ্জয়রা। প্রাক্তন অধিনায়কের ক্রিকেটের হাতেখড়ি অশোক স্যরের কাছেই।

[আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ৫০ লক্ষ যুবরাজের, পাঁচ হাজার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন হরভজন]

এক সময় দুঃখীরাম কোচিং সেন্টারকে বাংলা ক্রিকেটের আঁতুড়ঘর বলা হত। ওখান থেকে প্রচুর ক্রিকেটার উঠে এসেছেন। প্রবাল দত্ত থেকে শুরু করে অরিন্দম সরকার, এমন জনা কুড়ি ক্রিকেটার যাঁরা রনজি খেলেছেন, তাঁদের উঠে আসা অশোক মুস্তাফির কোচিংয়ে। সৌরভের উত্থানের শুরুটাও দুঃখীরাম কোচিং সেন্টার থেকে। আরও ভাল করে বললে মুস্তাফির স্যরের হাত ধরে। সঞ্জয় বলছিলেন, “আমাদের স্যর বাংলা ক্রিকেটের আচরেকর। ওঁর প্রচুর অবদান রয়েছে।”

শোনা গেল, বেশ কিছুদিন বার্ধক্যজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন। শনিবার রাতে শারীরিক অবস্থা আরও খারাপ হয়। সল্টলেকের বাড়িতে একাই থাকেন। মেয়ে ইংল্যান্ডে। বাইপাসের এক বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয় অশোকবাবুকে। তিনি এখন ভেন্টিলেশনে। সৌরভ তাঁর কোচের অসুস্থতার খবর শোনামাত্র সব কিছুর ব্যবস্থা করে দেন। খবর নিয়ে জানা গেল, সৌরভ নিজে হাসপাতালে ফোন করে কোচের খবরাখবর নিয়েছেন। বলেন, যে কোনও প্রয়োজনে তিনি আছেন।

[আরও পড়ুন: সুস্থ হওয়ার কয়েক দিন পর ফের করোনা আক্রান্ত দিবালা ও তাঁর বান্ধবী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement