২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ১৬ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এবার খাস কলকাতায় বড়সড় আইপিএল বেটিং চক্রের হদিশ, ধৃত ৩ পাণ্ডা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 9, 2019 7:41 pm|    Updated: May 9, 2019 7:41 pm

Three people accused of illegal betting arrested in Kolkata

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আইপিএল এলেই বেটিং কারবারিদের পোয়াবারো শুরু হয়ে যায়। ক্রিকেটের এই উৎসবকে কেন্দ্র করে রীতিমতো জুয়ার আসর বসে সাট্টা বাজারগুলিতেও। ভারতে বেটিং অবশ্য আইনসম্মত নয়। কিন্তু তাতে কী, আড়ালে আবডালে রমরমিয়ে চলে গড়াপেটার ব্যবসা। গোটা দেশের মতো কলকাতাতেও গোপনে চলছিল বড়সড় বেটিং ব়্যাকেট। বৃহস্পতিবার সেই চক্রের ৩ পাণ্ডা ধরা পড়ল কলকাতা পুলিশের জালে।

[আরও পড়ুন: আইপিএলের বেটিং নিয়ে গন্ডগোল, গুলি চলল দমদমে]

মঙ্গলবার রাতেই দমদমে আইপিএল বেটিংকে কেন্দ্র করে গুলি চলেছে। ৪৮ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই বড়সড় বেটিং চক্রের সন্ধান পেল কলকাতা পুলিশ। তাও আবার খাস কলকাতার ভবানীপুরে। ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে বিস্তারিত জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।
আগামী ১৯ মে কলকাতার দুই কেন্দ্রে লোকসভা ভোট। স্বাভাবিকভাবেই গোটা শহরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানো হচ্ছে। ভোট উপলক্ষ্যে শহরের গেস্ট হাউসগুলিতে বাড়তি নজরদারি চালানো হচ্ছে। ভোটের আগে রাজ্যের বাইরে থেকে দুষ্কৃতীরা এসে গেস্ট হাউসগুলিতেই আস্তানা গেড়ে বসে। তাই গেস্ট হাউসগুলোতে কড়া নজরদারি চালাচ্ছে পুলিশ। এই নজরদারিতেই ফাঁস হল বড়সড় বেটিং চক্র। অনেকটা কেঁচো খুড়তে কেউটে পাওয়ার মতো।

[আরও পড়ুন: জেলায় ভোটের ডিউটিতে কলকাতা পুলিশ, শহরের ট্রাফিকের দায়িত্ব পাচ্ছেন হোমগার্ডরা]

পুলিশ সূত্রের খবর, ভবানীপুরের একটি গেস্ট হাউসে অবৈধভাবে বড়সড় বেটিং চক্র চালাচ্ছিল তিন যুবক। তাঁরা প্রত্যেকেই বারাণসীর বাসিন্দা। মূলত আইপিএলের ম্যাচ ঘিরে চলত বেটিং। অনলাইনে বেটিং চক্রে টাকা ঢালত জুয়ারিরা। লক্ষ লক্ষ টাকার বেটিং চলতে ওই গেস্ট হাউসে বসেই। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ভবানীপুরের ওই গেস্ট হাউসে হানা দিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে ৬টি মোবাইলও উদ্ধার করা হয়েছে। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে চক্রটির সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য সন্ধান করছে পুলিশ। উল্লেখ্য, এর আগে ভোপালে একই রকমের বেটিং চক্রের সন্ধান মিলেছিল। অনলাইনে প্রায় ৫০০ কোটির বেটিং চক্র চলছিল মধ্যপ্রদেশের রাজধানীতে। যদিও, কলকাতায় ঠিক কত টাকার চক্র চলছে, তা এখনও জানতে পারেনি পুলিশ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে