BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

পাকিস্তানের হয়ে খেলছেন কোহলি! ভিডিওটি দেখলে ভারতীয় হিসেবে ক্ষুব্ধ হবেন আপনিও

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 6, 2019 8:52 pm|    Updated: September 6, 2019 8:52 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২০২৫ সাল। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনাল আয়োজিত হচ্ছে শ্রীনগর ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। আর পাকিস্তানের জার্সি গায়ে খেলছেন বিরাট কোহলি। ব্যাটিং লাইন আপে বাবর আজমের পরই রয়েছে ভারত অধিনায়কের নাম। এখানেই শেষ নয়, তালিকায় রয়েছেন শিখর ধাওয়ান, রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাদেজাও। ব্যাপারটা ঠিক বুঝলেন না তো? আসলে ঔদ্ধত্যের চূড়ায় উঠে ভারতকে তীব্র কটাক্ষ করে একটি ভিডিও পোস্ট করেছে পাকিস্তান। যা দেখলে ক্ষোভে রক্ত গরম হয়ে যাবে আপনারও।

[আরও পড়ুন: এ কেমন ছবি পোস্ট করলেন! নেটদুনিয়ায় হাসির খোরাক কোহলি]

যতদিন যাচ্ছে, ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বাড়ছে আঁকচাআঁকচি। কাশ্মীরে ৩৭০ বিলোপের পর থেকে পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়েছে। একেবারে তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে দু’দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক। সীমান্তে রীতিমতো যুদ্ধের আবহ। আর তারই মধ্যে একটি ভিডিও পোস্ট করে ভারতীয়দের ক্ষোভের আগুনে আরও খানিকটা ঘি ঢালল পাকিস্তান। আজ, শুক্রবার পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা দিবস। আর সেই উপলক্ষেই তৈরি এই বিশেষ ভিডিও। যার মাধ্যমে বোঝানোর চেষ্টা হয়েছে, যে আর কয়েক বছর পর ভারত বলে কোনও দেশই থাকবে না। সম্পূর্ণ নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে ভারতের অস্তিত্ব। তখন মানচিত্রে ভারতের পুরো অংশটাই হবে সবুজ রঙের। কারণ গোটাটাই পাকিস্তানে পরিণত হবে। আর সেই বিষয়টি বোঝাতে গিয়েই পাক দলে বিরাট কোহলির খেলার প্রসঙ্গটি টেনে আনা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: স্মিথ না কোহলি? সেরা ব্যাটসম্যান হিসেবে কাকে বাছলেন শেন ওয়ার্ন?]

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ভিডিওটি শেয়ার করেছেন পাক সাংবাদিক নায়লা ইনায়ত। সঙ্গে লিখেছেন, ‘শ্রীনগরে পাক ক্রিকেট দলের হয়ে খেলছেন বিরাট কোহলি। ভ্রম ছাড়া আর কিছুই না।’ ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, এক কিশোরী তার বাবাকে বলছে, ‘আজ কোহলিই ভাল খেলবে।’ উত্তরে বাবা বলছে, ‘একসময় বিরাট ভারতের হয়ে খেলতেন।’ কিশোরী অবাক হয়ে জানতে চাইছে, ভারত আবার কোন দেশ। তারপরই সবুজ রঙে ঢেকে যাচ্ছে ভারতের মানচিত্র। এমন ভিডিওতে ভারতীয়রা যেমন ক্ষুব্ধ, তেমনই পাকিস্তানের ভিডিওটি নিয়ে মশকরাও করতে ছাড়ছেন না অনেকে। বলছেন, কোহলি তখনও ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেননি! অনেকে আবার বলছেন, এভাবে প্রতিরক্ষা দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়ে নিজেরাই নিজেদের হাসির খোরাকে পরিণত করছে পাকিস্তান।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement