৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশবাসীর উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠার পারদ চড়িয়ে অন্ধকারে হারিয়ে গিয়েছে ল্যান্ডার বিক্রম। চাঁদের পিঠে ঘুরে বেড়িয়ে তথ্য সংগ্রহের স্বপ্ন অপূর্ণই থেকে গিয়েছে। কিন্তু তাতে কী? আপ্রাণ চেষ্টা তো করেছিলেন ইসরোর বিজ্ঞানীরা। আর তাই তাঁদের জন্য গর্বিত গোটা দেশ। মিশন চন্দ্রযান ২ পুরোপুরি সফল না হলেও যতদূর এগোনো গিয়েছে, সেটাই বা কম কী। এই অভিযানের জন্য গোটা দেশ প্রশংসা করেছে ইসরোর। হতাশায় ভেঙে পড়া বিজ্ঞানীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন ক্রীড়াজগতের তারকারাও।

ভারত অধিয়ানক বিরাট কোহলি লিখেছেন, “বিজ্ঞানে ব্যর্থ বলে কিছু হয় না। পরীক্ষানিরীক্ষা করা হয়, তারপর মেলে সাফল্য। ইসরোর বিজ্ঞানীদের অনেক অনেক শ্রদ্ধা ও সম্মান জানাই যাঁরা দিনরাত এক করে পরিশ্রম করেছেন। গোটা দেশ আপনাদের জন্য গর্বিত।” সাফল্যে ভরা ইসরোর ভান্ডার। একক প্রচেষ্টায় বিশ্বে প্রথমবার মঙ্গল মিশনেও সফল হয়েছিল ইসরো। এবারও ইতিহাসের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে ছিল ইসরো। কিন্তু শুক্রবার মধ্যরাতে সুখবর শোনাতে পারল না ল্যান্ডার বিক্রম। চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ২.১ কিলোমিটারের উচ্চতায় পৌঁছনোর পরই তার সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। স্বাভাবিকভাবেই হতাশা গ্রাস করেছে বিজ্ঞানীদের।

[আরও পড়ুন: ৯৫% সফল মিশন চন্দ্রযান ২, আশার কথা শোনালেন বিজ্ঞানীরা]

কিন্তু শেহওয়াগ বলছেন, “স্বপ্ন অধরা থাকলেও উৎসাহে ভাটা পড়েনি। ইসরো সেই নাম, যার কাছে মুশকিলও লজ্জা পায়। একদিন আমরা নিশ্চয়ই সফল হব।” সোনাজয়ী কুস্তিগির গীতা ফোগাট লিখেছেন, “ঢেউ দেখে ভয় পেলে নৌকা কখনওই নদী পেরতে পারবে না। তাই যারা চেষ্টা করে তাদের কখনও হার হয় না। ভারত আপনাদের জন্য গর্বিত।” ভারতের মহাকাশ বিজ্ঞানকে যাঁরা বিরাট উচ্চতায় পৌঁছে দিয়েছেন তাঁদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতীয় দলের কোচ রবি শাস্ত্রীও।

[আরও পড়ুন: ‘চলার পথে বাধা আসেই, তবে চাঁদকে ছোঁয়ার ইচ্ছা আরও বাড়ল’, বিজ্ঞানীদের পাশে মোদি]

শিখর ধাওয়ান, যুবরাজ সিং থেকে প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক অনিল কুম্বলে, লন্ডন অলিম্পিকে ব্রোঞ্জজয়ী শাটলার সাইনা নেহওয়াল, প্রত্যেকেই ইসরোর বিজ্ঞানীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। টুইট করে জানিয়েছেন, ভারতীয় হিসেবে গর্বিত তাঁরা সকলেই।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং