BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

২২ গজেও এবার করোনা আতঙ্ক! শ্রীলঙ্কা সফরে হাত মেলাবেন না জো রুটরা

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: March 3, 2020 4:07 pm|    Updated: March 3, 2020 4:07 pm

We are not shaking hands with each other: Joe Root on coronavirus threat

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আতঙ্কে জেরবার গোটা বিশ্ব। নোভেল করোনা ভাইরাসের ছোবলে ছারখার হয়ে গিয়েছে চিন। চিন ছাড়িয়ে এবার করোনা ভাইরাস দাপট দেখাচ্ছে বিশ্বের ৬০টি দেশে। খেলার ময়দানেও আতঙ্ক ছড়িয়েছে করোনার। আতঙ্ক এমন জায়গায় পৌঁছেছে যে শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়ে হাত মেলাবেন না ইংরেজ ক্রিকেটাররা। এমনটাই জানিয়েছেন অধিনায়ক জো রুট। হ্যান্ডশেকের বদলে ক্রিকেটাররা ‘ফিস্ট বাম্প’ বা মুষ্ঠি ঠেকাবেন একে অপরকে। কোনওরকম ঝুঁকি নিতে চাইছেন না ব্রিটিশরা।

জানা গিয়েছে, শরীরের সংস্পর্শ থেকে ছড়িয়ে পড়ে এই মারণ ভাইরাস। বিষয়টি সামনে আসার পর থেকে সৌজন্য বিনিময়ের ক্ষেত্রে হ্যান্ডশেক ত্যাগ করে ভারতীয় কায়দায় হাত জোড় করে নমস্কারের রীতি ফিরিয়ে আনার কথা বলছেন বিশেষজ্ঞরা। সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে গিয়ে বেশ কয়েকজন ব্রিটিশ ক্রিকেটার গ্যাস্ট্রো সমস্যা ও ফ্লু-এ আক্রান্ত হয়েছিলেন। ১০ জন ক্রিকেটার ও ৪ জন সাপোর্ট স্টাফের রহস্যজনকভাবে অসুস্থতার কারণে ভুগতে হয়েছিল ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলকে। তাই শ্রীলঙ্কা সফরে কোনও ঝুঁকি নিতে চাইছেন না ব্রিটিশ ক্রিকেটাররা। হ্যান্ডশেক করা থেকে বিরত থাকবেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: ইডেনে কর্ণাটকের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত জয়, ১৩ বছর পর রনজি ফাইনালে বাংলা]

জো রুট জানিয়েছেন, দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকে শিক্ষা নিয়ে এবার কোনও ঝুঁকি নিতে চাইছে না দল। সতীর্থ এবং বিপক্ষ দলের ক্রিকেটারদের সঙ্গে হাত মেলানোর বদলে ফিস্ট বাম্প করা হবে। শুধু তাই নয়, পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা, নিয়মিত ভাল করে হাত ধোওয়া, ব্যাকটেরিয়া নিরোধক ওয়াইপস ব্যবহার বেড়েছে দলের মধ্যে। তবে করোনার জেরে শ্রীলঙ্কা সফরে কোনও সমস্যা হওয়ার ইঙ্গিত নেই আপাতত। কিন্তু সাবধানতা অবলম্বনে কোনও ত্রুটি রাখছেন না রুট-স্টোকসরা। ভালয় ভালয় এই সফর শেষ হোক সেই আশা নিয়েই শ্রীলঙ্কায় খেলতে নামবেন ব্রিটিশরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে